ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯, ৫ চৈত্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

এডগার অ্যালান পো: আপাদমস্তক রহস্যেঘেরা এক লেখক

সাহিত্য ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭ অক্টোবর ২০১৮ রবিবার, ০১:৪০ পিএম
এডগার অ্যালান পো: আপাদমস্তক রহস্যেঘেরা এক লেখক

সময়কাল ১৮৮৪ সাল। সমুদ্রপথে ইংল্যান্ড থেকে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছিল একটি জাহাজ। দুর্ঘটনার কবলে পড়ে জাহাজটি মাঝপথে ডুবে যায়। ভাগ্যক্রমে বেঁচে যায় তিনজন নাবিক এবং রিচার্ড পার্কার নামে ১৭ বছরের এক বালক। তাঁদের সঙ্গে কোনো খাবার নেই। দীর্ঘদিন না খেয়ে মাঝসমুদ্রে জাহাজের ধ্বংসাবশেষের উপর কাটতে থাকে তাঁদের জীবন। এক সময় বাঁচার জন্য তিন নাবিক রিচার্ড পার্কারকে খেয়ে ফেলে। এটি একটি সত্য ঘটনা। অদ্ভুতভাবে এই ঘটনার ঠিক ৪৬ বছর আগে ১৮৩৮ সালে এডগার অ্যালান পো ‘দ্য ন্যারেটিভ অব আর্থার গর্ডন পিম অব ন্যানটাকেট’ শিরোনামে হুবহু এমন একটি গল্প লিখেছিলেন। গল্পের ওই চরিত্রের নামও ছিল রিচার্ড পার্কার আর তিনজন নাবিক! সঙ্গে পো এটাও বলেছিলেন যে, এটি একটি সত্য ঘটনার উপর বর্ণিত! এই ঘটনার পর লেখক পো’কে ঘিরে শুরু হয় রহস্য। তিনি কি তাহলে ভবিষ্যৎ দেখতে পেতেন! বা তাঁর কাছে কি কোনো টাইম মেশিন ছিল!        

এমনই আপাদমস্তক রহস্যে মোড়া এক আশ্চর্য প্রতিভাবান লেখক এডগার অ্যালান পো। সাহিত্যের জনপ্রিয় ধারা রহস্য রোমাঞ্চ’র জনক তিনি। পো’র গোয়েন্দা গল্প থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে উনিশ শতকে সারা বিশ্বে অসংখ্য গোয়েন্দা গল্প লেখক তৈরি হয়। শুধু গোয়েন্দা গল্পই নয়, তাঁর গল্প ও কবিতা অনুপ্রাণিত করেছে রবিন্দ্রনাথ ঠাকুর, তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়, শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়, হুমায়ুন আহমেদ,  জীবনানন্দ দাশসহ অনেক বিশ্ব বিখ্যাত লেখককে।

এডগার অ্যালান পো’র জন্ম ১৮০৯ সালের ১৯ জানুয়ারি আমেরিকার বোস্টন শহরে। বৈচিত্র্যময় জীবনের অধিকারী এই প্রতিভাবান সাহিত্যিকের আজ ২১০ তম জন্মবার্ষিকী। এক বিশৃঙ্খল পরিবারে তাঁর জন্ম। মদ্যপ মা-বাবার সংসারে ভয়ংকর পরিবেশে কাটে পো’র ছোট বেলা। যদিও খুব ছোট বয়সেই মা-বাবকে হারিয়ে এতিম হয়ে পড়েন। সেই সময় এক দম্পতি তাঁকে গ্রহণ করলেও আনুষ্ঠানিকভাবে দত্তক নেননি। পো ইউনিভার্সিটি অফ ভার্জিনিয়ায় এক বছর লেখাপড়া করলেও আর্থিক সংকটের কারণে ছেড়ে দেন।  

কিশোর বয়স থেকেই লেখালেখি শুরু করেন এডগার অ্যালান পো। তবে বিশ বছর হওয়ার আগেই তাঁর কিছু লেখা প্রকাশিত হয়। শুরুর দিকে অসংখ্য কবিতা লিখেলেও রহস্য রোমাঞ্চ ও ভৌতিক গল্পের জন্য তিনি বিশ্ব বিখ্যাত হয়েছেন। লেখায় অসামান্য দক্ষতার সঙ্গে রহস্যময়, ভুতুড়ে, মৃত্যুর গন্ধমাখা এক আতংকিত পরিবেশ সৃষ্টি করেছেন পো। তাঁর উল্লেখযোগ্য কবিতার মধ্যে রয়েছে হেলেনের প্রতি, স্বপ্ন, ইস্রাফিল, দ্য রেভেন, অ্যানাবেল লি। এছাড়া তাঁর ভুতুড়ে, ও রহস্য গল্পের মধ্যে আমন্তিলাডোর পিপা, রু মর্গের হত্যাকাণ্ড, চুরি যাওয়া চিঠি, দ্যা ব্ল্যাক ক্যাট, দ্যা ফল অফ দ্যা হাউস অফ আশার, দ্যা পিট অ্যান্ড দ্যা পেন্ডুলাম অন্যতম। পো- এর দ্যা রেভেন বা দাঁড়কাক কবিতাটি রোমান্টিকতা, মোহনীয় ছন্দ ও রহস্যময় আবহ তৈরি করারা জন্য বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ কবিতার স্বীকৃতি লাভ করেছে। তিনি উঁচু মানের রচনাশৈলী এবং প্রতিকবাদী দৃষ্টিভঙ্গির জন্য বিখ্যাত কবি ডাব্লিউ বি ইয়েটস ও কথা সাহিত্যিক মোপাসাঁ কর্তৃক প্রশংসিত হয়েছেন। এছাড়া তাঁর লেখা নিয়ে হলিউডে অসংখ্য চলচ্চিত্র নির্মিত হয়েছে।

জন্ম থেকে মৃত্যু অবধি পো নানা রকম যন্ত্রণা, আর্থিক দৈন্যতা ও মানসিক অস্থিরতার মধ্য দিয়ে গেছেন। জীবদ্দশায় তিনি অসংযমী জীবন যাপন করেছেন, জুয়া খেলেছেন, মাদক দ্রব্য সেবন করেছেন। মৃত্যুর এক বছর আগে ঘুমের বড়ি খেয়ে একবার আত্নহত্যারও চেষ্টা করেন তিনি। রহস্য গল্প লিখতে লিখতে একসময় নিজের মৃত্যুকেও করেছেন রহস্যময়।

মৃত্যুর আগে পো নিউইয়র্কের কাছাকাছি একটি ছোট্র কুটিরে একা বাস করতেন। সেসময় ভয়ংকর বিষণ্ণতায় আচ্ছন্ন হয়ে জনবিচ্ছিন্ন জীবন যাপন করতেন। ১৮৪৯ সালের ৩ অক্টোবর হঠাৎ তাঁকে পড়ে থাকতে দেখা যায় যুক্তরাষ্ট্রের বাল্টিমোরের রাস্তায়। জোসেফ ওয়াকার নামের এক সহৃদয় ব্যক্তি তাঁকে ভর্তি করে দেন ওয়াশিংটন কলেজ হাসপাতালে। কিন্তু বাঁচানো যায় নি তাঁকে। ১৮৪৯ সালের ৭ অক্টোবর এক রহস্যজনক পরিস্থিতিতে মৃত্যুবরণ করেন পো। তাঁর মৃত্যুর রহস্য আজও আলোচনার বিষয়।

গভীর আবেদনময় কবিতা ও ব্যতিক্রমধর্মী গল্প রচনা করে এডগার অ্যালান পো শুধু মার্কিন সাহিত্যে নয়, বিশ্বসাহিত্যের এক রহস্যঘেরা ব্ল্যাকহোল। 

 

বাংলা ইনসাইডার/এইচপি/জেডএ