ঢাকা, বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

সিনহার মেয়াদ শেষ হলেই আসবেন নতুন বিচারপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৪ জানুয়ারি ২০১৮ বুধবার, ১২:৪৪ পিএম
সিনহার মেয়াদ শেষ হলেই আসবেন নতুন বিচারপতি

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা পদত্যাগ করেছেন গত বছরের ১০ নভেম্বর, যা গৃহীত হয় ১৪ নভেম্বর। এরপর দুই মাস কেটে গেল এখনো প্রধান বিচারপতি নিয়োগ হয়নি। এর কারণ হিসেবে জানা গেল বিচারপতি সিনহার কথাই। তিনি চলে গেলেও তাঁর ভূত ছাড়ছে না বিচার বিভাগকে। বিচারপতি সিনহার পদত্যাগ সংক্রান্ত পরবর্তী কোনো জটিলতা এড়াতেই দেরি হচ্ছে বিচারপতি নিয়োগ। চলতি মাসের শেষে সিনহার চাকরির মেয়াদ শেষের পরই নিয়োগ হতে পারে পরবর্তী প্রধান বিচারপতি।

ষোড়শ সংশোধানী এবং এর পরবর্তী বিভিন্ন মন্তব্য নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই অসুস্থতার কারণে গত বছরের ৩ অক্টোবর থেকে এক মাসের ছুটি নেন বিচারপতি সিনহা। ছুটি নেওয়ার ১০ দিনের মাথায় ১৩ অক্টোবর অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ ছাড়েন তিনি। এর আগে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে নিজের স্বাক্ষরিত লিফলেটে বিচারপতি সিনহা নানা বিতর্ক উস্কে দেন। পরদিনই হাইকোর্টের এক বিবৃতিতে প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অবৈধ লেনদেন, নৈতিক স্থলনসহ ১১ টি সুনির্দিষ্ট অভিযোগ আনা হয়। এসব অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এমনিতেই অবসরের আগে (৩১ জানুয়ারি, ২০১৮) আদালতে বসতে পারতেন না প্রধান বিচারপতি। তবে ছুটিতে থাকা অবস্থায়ই বিদেশ থেকে পদত্যাগ পত্র পাঠান বিচারপতি সিনহা। ১০ নভেম্বর সিঙ্গাপুর থেকে তাঁর পাঠানো পদত্যাগপত্র ১৪ নভেম্বর গ্রহণ করেন রাষ্ট্রপতি।

সিনহার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করলেও প্রধান বিচারপতি নিয়োগে সরকার সময় নেওয়ার কারণ সাবেক প্রধান বিচারপতির ওপর তাঁরা বিশ্বাস রাখতে না পারা। পূর্বেও বিচারপতি সিনহা অসুস্থতার কারণে ছুটি নিয়ে পরে অসুস্থ নন বলে দাবি করেছেন। এখন পদত্যাগের বিষয়েও সিনহা এমন উল্টোপাল্টা করতে পারেন আশঙ্কা করছে সরকার।

সরকারের একাধিক সূত্র জানাচ্ছে, বিচারপতি সিনহা ‘আনপ্রেডিক্টেবল চরিত্র’। এখন হয়তো কিছু বলছে না কিন্তু তাঁর মেয়দের আগে অন্য কাউকে নিয়োগ দিলে হয়তো তিনি রিট করে বসতে পারেন। দাবি করতে পারেন তিনি পদত্যাগই করেননি। আবার হয়তো ক্ষমতার পালাবদলের সঙ্গে সঙ্গে দেশের বিচার বিভাগকে নানা প্রশ্নের মুখে ফেলতে পারেন সিনহা। এমন মানুষের পক্ষে ক্ষুদ্র ব্যক্তিস্বার্থে সবকিছু করা সম্ভব।

বিচারপতি সিনহার এমন পদক্ষেপের আশঙ্কায়ই সরকার তাঁর মেয়াদ শেষ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছেন একাধিক সূত্র। সিনহার চাকরির মেয়াদ আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হবে ৩১ জানুয়ারি। তবে এর আগেই ২৯ জানুয়ারি তাঁর শেষ কর্মদিবস হওয়ার কথা। সিনহার অনুষ্ঠানিক মেয়াদ শেষ হলেই নতুন বিচারপতির নিয়োগের ঘোষণা দিতে পারে সরকার।

একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে, আগামী প্রধানবিচারপতি কে হচ্ছেন তা এরই মধ্যে ঠিক করা হয়েছে। আনুষ্ঠানিক সব কাজকর্মও শেষ। এখন অপেক্ষা শুধু সাবেক প্রধান বিচারপতির আনুষ্ঠানিক মেয়াদ শেষের। তাই নতুন প্রধানবিচারপতি আসতে পারেন চলতি মাসের শেষে বা আগামী মাসের শুরুতেই।

বাংলা ইনসাইডার/জেডএ