ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ মে ২০২১, ২৩ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

প্রধান বিচারপতি হলেন সৈয়দ মাহমুদ হোসেন

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ শুক্রবার, ০৩:৩৬ পিএম
প্রধান বিচারপতি হলেন সৈয়দ মাহমুদ হোসেন

দেশের ২২ তম প্রধান বিচারপতি হয়েছেন আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। শনিবার বঙ্গভবনে শপথ নিচ্ছেন তিনি। একাধিক সূত্রে এ খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে।

আপিল বিভাগের অন্যতম জ্যেষ্ঠ বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। তিনি সরকারের অআস্থাভাজন বলেও পরিচিত। এ কারণেই তাঁকেই রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ প্রধান বিচারপতি হিসেবে বেছে নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন বিচার বিভাগ সংশ্লিষ্টরা।

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা প্রায় আড়াই মাস আগে পদত্যাগ করলেও তাঁর মেয়াদ আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হলো ৩১ জানুয়ারি। এর দুদিনের মাথায়ই শুক্রবার ২ ফেব্রুয়ারি নিয়োগ হলেন প্রধান বিচারপতি।

এর আগে বাংলা ইনসাইডারের প্রতিবেদনে ‘সিনহার মেয়াদ শেষ হলেই আসবেন নতুন বিচারপতি’ শিরোনামের (http://bit.ly/2DXfguw) প্রতিবেদনে সিনহার মেয়াদ শেষের পরপরই প্রধান বিচারপতি নিয়োগের কথা বলা হয়েছিল। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ‘সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা পদত্যাগ করেছেন গত বছরের ১০ নভেম্বর, যা গৃহীত হয় ১৪ নভেম্বর। এরপর দুই মাস কেটে গেলেও প্রধান বিচারপতি নিয়োগ হয়নি। এর কারণ হিসেবে জানা গেল বিচারপতি সিনহার কথাই। তিনি চলে গেলেও তাঁর ভূত ছাড়ছে না বিচার বিভাগকে। বিচারপতি সিনহার পদত্যাগ সংক্রান্ত পরবর্তী কোনো জটিলতা এড়াতেই দেরি হচ্ছে বিচারপতি নিয়োগ। চলতি মাসের (জানুয়ারি) শেষে সিনহার চাকরির মেয়াদ শেষের পরই নিয়োগ হতে পারে পরবর্তী প্রধান বিচারপতি।’

আর বিচার বিভাগ সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানিয়েছেন, বর্তমান ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি আব্দুল ওয়াহ্‌হাব মিঞা আপিল বিভাগের সর্বজ্যেষ্ঠ হলেও তাঁর প্রতি আস্থা রাখতে পারছিল না সরকার। অপর দিকে জ্যেষ্ঠতায় তারপরই ছিলেন বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হাসান। বিভিন্ন কারণেই মাহমুদ হাসান সরকারের আস্থাভাজন। ‘সিনহা’ ঘটনার পর দেশের এই গুরুত্বভাজন সময় অস্থার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়েই তাঁকে বিচারপতি করা হলো। আর প্রধান বিচারপতি নিয়োগে জ্যেষ্ঠতার চেয়ে আস্থার বিষয়টিকে প্রধান্য দেওয়ার নজির এর আগেও বহুবার দেখা গেছে।

বাংলা ইনসাইডার/এমএইচ/জেডএ