ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৫ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

কঠোর অবস্থানে যেতে পারে সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১ এপ্রিল ২০১৮ বুধবার, ১১:০০ পিএম
কঠোর অবস্থানে যেতে পারে সরকার

কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরতদের ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে যেতে পারে সরকার। আগামীকাল থেকেই এই অবস্থান নেওয়া হতে পারে। এ লক্ষ্যে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মধ্যে আলোচনা চলছে। তাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামীকাল বৃহস্পতিবার কেউ যদি বিক্ষোভ করতে চায় তাহলে নিজ ক্যাম্পাসের মধ্যে করতে হবে। প্রধান সড়ক অবরোধের মাধ্যমে জনজীবন বাধাগ্রস্ত করে কোনো আন্দোলন করতে দেওয়া হবে না। এমন আন্দোলনকারীদের শান্তিপূর্ণভাবেই সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হবে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, টানা বিক্ষোভের কারণে জনজীবনে ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে এবং দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে সাধারণ মানুষ। তাই আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রধান সড়কে কোনো প্রতিবাদ বিক্ষোভ করতে দেওয়া হবে না। তবে কঠোর অবস্থানে গেলেও তা যেন শান্তিপূর্ণ হয়, কোনোভাবেই সহিংস না হয়ে ওঠে এ ব্যাপারেও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষের কাছে আজ রাতের মধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্র সচিব যোগাযোগ করেছেন। বলা হয়েছে, তাঁদের শিক্ষার্থীদের যেন থামানো হয়। শিক্ষাথীরা যেন সড়ক অবরোধ করে কোনো বিক্ষোভ না করতে পারে। কোনো প্রতিবাদ করতে হলে তা যেন ক্যাম্পাসের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে।

উল্লেখ্য, গত দু‘দিনে কোটা সংস্কারের আন্দোলন চলাকালে রাজধানী ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ সড়কসহ দেশজুড়ে মহাসড়কগুলো অবরোধ করেছে শিক্ষার্থীরা। এর ফলে পুরো দেশের মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হয়েছে। বুধবার বিকেলে সংসদের প্রধানমন্ত্রী কোনো কোটাই থাকবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর এমন ঘোষণার পর থেকেই সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছে কোটা সংস্কারের জন্য আন্দোলনকারীরা। তাদের সংগঠক বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের পক্ষ থেকে রাতে আলোচনা করে আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকালে সিদ্ধান্ত জানানোর কথা বলা হয়েছে। তবে এজন্য সকাল ১০ টায় সবাইকে সমাবেশে আসতে বলা হয়েছে।


বাংলা ইনসাইডার/জেডএ