ঢাকা, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বাঁচিয়ে দিয়েছেন

রেজাউল করিম রাজা
প্রকাশিত: ১২ এপ্রিল ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০২:২১ পিএম
প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বাঁচিয়ে দিয়েছেন

প্রধানমন্ত্রী ভালো কাজই করেছেন। ১০ শতাংশ কোটা রাখার চেয়ে না রাখাই ভালো। সামনে পয়লা বৈশাখ বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব এমন সময় রাস্তাঘাট অচল হয়ে থাকার কারণে আমাদের এমনিতেই অনেক ক্ষতি হয়ে গিয়েছে। বৈশাখের বেশির ভাগ আয়োজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রিক। আন্দোলন স্থগিত না হলে বৈশাখ পালন করাও অসম্ভব হয়ে যেত। তাই এমন সময় প্রধানমন্ত্রী কোটা বাতিল করে দেশবাসীকে বাঁচিয়ে দিয়েছেন। 

বৃহস্পতিবার সকালে কোটা সংস্কার আন্দোলন স্থগিতের পর এভাবেই নিজের মনোভাব ব্যক্ত করেন বেসরকারি চাকরিজীবী রায়হান আহমেদ।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের কারণে গত কয়েকদিন রাজধানীসহ দেশের অনেক এলাকা কার্যত অচল হয়ে গিয়েছিল। রাজপথ ও রেলপথও বন্ধ হয়ে গিয়েছিল অনেক স্থানে। গতকাল বুধবার বিকালে সংসদে প্রধানমন্ত্রী কোটা প্রথা বাতিল করার ঘোষণা দেন। প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল করেছে আন্দোলনকারীরা। প্রধানমন্ত্রীর কোটা বাতিল এবং আন্দোলনকারীদের আন্দোলন স্থগিত করার ঘোষণায় রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে কয়েকদিনের অচলাবস্থা কেটে যায়। জনমনে ফিরে আসে স্বস্তি। বৃহস্পতিবার রাজধানীতে কয়েকটি এলাকা ঘুরে দেখা যায় ঢাকার অধিকাংশ স্থানে লোকজনের কাজের ব্যস্ততা চলছে পুরোদমে। বাংলা ইনসাইডারের পক্ষ থেকে কয়েকজনের কাছে বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়।

সিএনজি চালক সোহেল বলেন, গত তিনদিন রাস্তাঘাট বন্ধ ছিল জ্যামের কারণে। ঘণ্টার পর ঘন্টা জ্যামে আটকে ছিলাম। আমার জমা টাকা উঠে নাই ভাই। আজকে রাস্তাঘাটের অবস্থা মোটামুটি অনেক ভালো। লোকজনও আছে অনেক। তাই আজকে ভাড়া ভালোই পাইতেছি। চিন্তা আছে আজকে বেশি রাত পর্যন্ত ভাড়া মাইরা কয়েকদিনের ক্ষতি পোষায়া নিব যা পারি।

ধানমন্ডি এলাকায় রিকসা চালান জিয়া মোল্লা। এই প্রতিনিধিকে তিনি বলেন, কয়েকদিন মামারা রাস্তায় ব্যারিকেড দিয়া মিছিল করছে। তার জন্য আমরাতো কামাই রোজগার করতে পারি নাই। এহন আন্দোলন বন্ধ হইছে তাই ভাড়াও ভালো পাইতেছি আজ।

ফার্মগেটে ফুটপাতের পাশে চা বিক্রি করেন আলিমুদ্দিন মিয়া। সে বলে, গত কয় দিন তো রাস্তাঘাটে মানুষই আছিল না। বেচা বিক্রি করুম কার কাছে। তয় মামা আইজ বেচা বিক্রি ভাল। আমি শুনছি হাসিনা সরকার নাকি সব দাবি মাইন্না নিছে। 

বিভিন্ন পেশা ও বয়সের মানুষের কাছে জানতে চাওয়া হলে মোটামুটি সবাই সরকারের কোটা বাতিল করে কয়েকদিনের আন্দোলন ইতি টানায় সরকারকে সাধুবাদ জানান। নিজেদের স্বস্তির কথা বলেন।  


বাংলা ইনসাইডার/জেডএ