ঢাকা, রোববার, ১৩ জুন ২০২১, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

শেখ হাসিনা কখনো লড়াইকে ভয় পাননি

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৪ এপ্রিল ২০১৮ মঙ্গলবার, ০৫:১২ পিএম
শেখ হাসিনা কখনো লড়াইকে ভয় পাননি

চলতি বছর টাইম ম্যাগাজিনের বিশ্বের প্রভাবশালী ১০০ ব্যক্তির তালিকায় আছেন বাংলাদেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তালিকায় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে সংক্ষেপে প্রতিবেদন লিখেছেন হিউম্যান রাইট ওয়াচের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক মীনাক্ষী গাঙ্গুলি। এই মানবাধিকার কর্মী প্রধানমন্ত্রীকে টাইমে যা লিখেছেন তারই অনুবাদ দেওয়া হলো:

১৯৯০ এর দশকে শেখ হাসিনার সঙ্গে আমার প্রথম সাক্ষাৎ হয়েছিল। ওই সময় তিনি সেনা শাসন অবসানের জন্য ভীষণ ভাবে প্রচারণা চালাচ্ছিলেন। আমাদের শেষ সাক্ষাৎ হয়েছিল ২০০৮ সালে। তখনও তিনি আরেকটি সেনা শাসনের বিরুদ্ধে প্রচারণা চালাচ্ছিলেন। এর পরের বছর বিপুল বিজয়ের মাধ্যমে তিনি প্রধানমন্ত্রী হন।

তাঁর পিতা বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দিয়েছেন। আর তাঁরই উত্তরাধিকার শেখ হাসিনা কখনো লড়াইকে ভয় পাননি। আর তাই গত আগস্টে যখন লাখো জাতিগত রোহিঙ্গা শরণার্থী মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সহিংসতা থেকে বাঁচতে বাংলাদেশের আসতে শুরু করল তিনি এই মানবিক চ্যালেঞ্জটি গ্রহণ করেছিলেন। বাংলাদেশ অতীতে এমন বিপুল শরণার্থী কখনোই আশ্রয় দেয়নি কিন্তু জাতিগত নিধনের শিকার ও মানসিকভাবে আহতদের তিনি ফিরিয়ে দিতে পারেননি।

এর জন্য তিনি প্রশংসার দাবিদার হলেও তিনি মানবাধিকার ইস্যুতে হোঁচট খেয়েছেন। তাঁর সরকারের বিরুদ্ধে বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড ও গুমের অভিযোগ রয়েছে। তাঁর সরকার নিন্দা ও ভিন্নমত সহ্য করছে না। যার মতো মানুষ ক্ষমতার বাইরে থাকার সময় অনিয়মের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছেন সেই শেখ হাসিনার একনায়কতন্ত্রের প্রবণতা কমাতে হবে এবং মিয়ানমার ও অন্যান্যদের দেখাতে হবে গণতন্ত্র ভিন্নমত ও বৈচিত্র্যকে গ্রহণ করে।


বাংলা ইনসাইডার/ডিজি/জেডএ