ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bagan Bangla Insider

‘বয়সের সুবিধা তিনি দুবার নিতে পারেন না’ 

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮ মে ২০১৮ মঙ্গলবার, ০২:০৭ পিএম
‘বয়সের সুবিধা তিনি দুবার নিতে পারেন না’ 

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী খুরশীদ আলম বলেছেন, বয়সের জন্য বেগম খালেদা জিয়ার সাজাই কমানো হয়েছে। তিনি এক সুবিধা দুবার নিতে পারেন না। বয়সের সুবিধা দুবার নিতে পারেন না খালেদা জিয়া।

বয়স একটি বড় বিবেচনা কিনা- আদালতের এমন প্রশ্নের জবাবে দুদকের আইনজীবী একথা বলেন।  আজ মঙ্গলবার জিয়া অরফানেজ দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপাসন বেগম খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন বাতিল চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদকের করা আপিলের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। ওই শুনানিতেই খুরশীদ আলম বেগম জিয়ার জামিন বাতিলের পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করেন।

খুরশীদ আলম আরও যুক্তি দেন, এর আগে বেগম খালেদা জিয়া জামিন না নিয়েই বিদেশে গিয়েছেন। আবার তাঁকে জামিন দেওয়া হলে তিনি বিদেশে গিয়ে থাকবেন।

খুরশীদ আলম আরও বলেন, খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতার স্বপক্ষে কোনো কাগজপত্র হাইকোর্টে দাখিল করা হয়নি। তাই এটি গ্রহণযোগ্য নয়।

খুরশীদ আলমের অপর যুক্তি ছিল, স্বল্প মেয়াদে সাজার ক্ষেত্রে মামলা চলাকালে অভিযুক্ত কতটা সাজা ভোগ করেছে তা বিবেচনায় নেওয়া হয়। বেগম জিয়া মামলা চলাকালে কোনো সাজাই ভোগ করেননি। তাই তাঁর জামিন গ্রহণযোগ্য নয়।  

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত খালেদা জিয়াকে দেওয়া হাইকোর্টের জামিনের বিরুদ্ধে আপিলের শুনানি বুধবার পর্যন্ত মুলতবি ঘোষণা করেছেন আদালত।

এর আগে আজ মঙ্গলবার সকাল ৯টা ৩৫ মিনিটে বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বেঞ্চে খালেদা জিয়ার জামিন বিষয়ে আপিলের শুনানি শুরু হয়। আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি শুরু করেন অ্যাডভোকেট এজে মোহাম্মদ আলী। দুদকের পক্ষে শুনানি শুরু করেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম এবং রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত। রায় ঘোষণার পর ঐ দিনই বিকালে নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। একইসঙ্গে এ মামলার অপর আসামি তার বড় ছেলে তারেক রহমানসহ বাকি পাঁচ জনকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। পাশাপাশি তাদের ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা জরিমানাও করা হয়।

বাংলা ইনসাইডার/আরকে/জেডএ