ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ , ৫ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

ঈদের বাজারে জাল নোটের ঝুঁকি, চিনব কীভাবে?

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২২ মে ২০১৮ মঙ্গলবার, ০৮:০৪ এএম
ঈদের বাজারে জাল নোটের ঝুঁকি, চিনব কীভাবে?

রোজা শুরু থেকেই জমজমাট বাজার। শুরুতে ইফতার ও আনুসাঙ্গিক বাজারে চাপ। আর কদিন পেরোতেই শুরু হবে ঈদের পোশাক কেনার ধুম। আর বাজারের এমন রমরমা অবস্থায় হবে প্রচুর অর্থ লেনদেন। এমন সময় জেঁকে বসবে জালিয়াত চক্র। বাজারে ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবে জালনোট।

ঈদের আগে নোট জালকারী চক্রের `অপতৎপরতা` বাড়ে জানিয়ে সব ব্যাংকগুলোকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। একই সঙ্গে কীভাবে জাল নোট সহজে চেনা যায় - সে সম্পর্কেও নির্দেশনা দিয়েছে।

জাল নোট চিনব কীভাবে?
- ২০ টাকা এবং তদূর্ধ্ব মূল্যমানের আসল নোটের ওপরের প্রতিচ্ছবি, লেখা মূল্যমান এবং নকশার ওপর হাত বুলালে তা অমসৃণ, খসখসে লাগবে। জাল নোটে তেমন বোধ হবেনা।

- ১০ টাকা এবং তদূর্ধ্ব মূল্যমানের নোটের ওপর নিরাপত্তা সুতো সেলাইয়ের মতো ফোঁড়া থাকে। এছাড়া, আলোর বিপরীতে ধরলের বাঘের মাথার জলছাপ স্পষ্ট দেখা যায়। জা লনোটের সুতা বা জলছাপ এত সূক্ষ্ম থাকেনা।

- আসল নোটে রং পরিবর্তনশীল কালি ব্যবহার করা হয়। ২০০০ সাল থেকে মুদ্রিত ৫০০ টাকার নোটের সামনের পিঠের ওপরের বাঁ দিকের কোণার ওপরের অংশ নাড়াচাড়া করলে রং পরিবর্তন হতে থাকে। সবুজ থেকে সোনালী আবার সবুজ হতে থকে। জাল নোটে এই রং পরিবর্তন হয়না।

কেন্দ্রীয় ব্যংকের নির্দেশনায় ব্যাংকগুলোকে বলা হয়েছে, গ্রাহকদের কাছে থেকে টাকা নেওয়া এবং দেওয়ার আগে ভালো করে নোটগুলো পরীক্ষা করতে হবে। নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যেন এটিএম মেশিনে টাকা ঢোকানোর আগে জাল নোট সনাক্তকারী মেশিন দিয়ে নোটগুলো অবশ্যই পরীক্ষা করা হয়। ব্যাংকের শাখাগুলোতে টিভি মনিটরে জাল নোট সনাক্তকরণ সম্পর্কে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তৈরি ভিডিও প্রদর্শন করারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সূত্র: বিবিসি

বাংলা ইনসাইডার/জেডএ