ঢাকা, রোববার, ২৪ জুন ২০১৮ , ৯ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

বীথির স্বপ্ন মা-বাবার মুখে হাসি ফোটানো

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৪ জুন ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০২:৫০ পিএম
বীথির স্বপ্ন মা-বাবার মুখে হাসি ফোটানো

পেশাগত কারণে সম্প্রতি নিউমার্কেটে যাচ্ছিলাম। ধানমন্ডি ২৭ এর রাপা প্লাজার সামনে জ্যামে আর ভ্যাপসা গরমে প্রাণ যায় যায় অবস্থা। অসহ্য গরমে আর বাসে বসে থাকতে পারছিলাম না। অগত্য বাধ্য হয়ে বাস থেকে নেমে হাঁটা শুরু করলাম।

সোবহান বাগ মসজিদের উল্টো পাশে ওভার ব্রিজের কাছে আসতেই দেখি ছোট একটি মেয়ে ভীষণ মনোযোগ দিয়ে খাতায় কিছু একটা লিখছে। কৌতুহল নিয়ে কাছে গিয়ে ভালো করে খেয়াল করে দেখলাম তার সামনে একটি আদর্শ লিপি বই, বইয়ের পাশেই একটি ওজন মাপার মেশিন, পাশে কাগজে লেখা আছে ওজন মাপা হয় ২ টাকা। 

ওজন মাপার মেশিনে মাঝে মাঝে লোকজন নিজেদের ওজন মেপে দুই/পাঁচ টাকা দিচ্ছে। ছোট্ট মেয়েটিকে যে যা দিচ্ছে, কোন কথা না বলে তাই নিয়ে তার ছোট কাল ব্যাগে রেখে আবার তার খাতায় লেখায় মনোযোগ দিচ্ছে।

তাড়া থাকার পরেও ছোট্ট মেয়েটির কাছে গিয়ে কথা বলার লোভ কিছুতেই সামলাতে পারলাম না। কাছে গিয়ে আদর্শ লিপি বই দেখে আমি নিজেও স্মৃতি-কাতর হয়ে পরেছিলাম। আমার জীবনের প্রথম বই এই আদর্শ লিপি। এই আদর্শ লিপি বই থেকেই আমার লেখাপড়ার শুরু। অবশ্য আমার ছোটবেলায় আদর্শ লিপি বই ছিল সাদাকালো এখনকার মত এমন রঙিন নয়।

কাছে গিয়ে জানতে চাইলে সে জানাল, তার নাম বীথি, বয়স ১০ বছর। সে ধানমন্ডির আপন পাঠশালায় পড়াশুনা করে। প্রতিদিন স্কুল শেষে সে এইখানে চলে আসে তার ওজন মাপার মেশিন নিয়ে। মানুষের ওজন মেপে প্রতিদিন ২৫০ থেকে ৩০০ টাকা আয় হয়। আয়ের পুরোটাই বীথি তার বাবার হাঁতে তুলে দেয়।

পড়ালেখা শিখে কি হতে চাও এমন প্রশ্নে বীথির সহজ সরল উত্তর, কি করতে চাই জানিনা, তবে যাই করি মা-বাবার খেয়াল রাখতে চাই। বাবা মার মুখে হাসি ফোটাতে চাই। 

বীথির গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানার ছোট ফাউশা গ্রামে, বাবার নাম হারুন। বীথির বাবার সব সময় কাজ থাকে না। বীথির মা প্রায় সময় অসুস্থ থাকে। ছোট বীথির আয় দিয়েই ছয় সদস্যের সংসার চলে।

বীথির সঙ্গে কথা বলা শেষ করে হাঁটতে হাঁটতে ভাবছিলাম, ১০ বছরের ছোট্ট মেয়েটির আয়ে একটি পরিবার চলে, সে তার মা-বাবার মুখে হাসি ফোটানোর কথা ভাবে। আমরা অনেকেই হয়ত প্রতিষ্ঠিত হয়ে চাকরি-বাকরি, ব্যবসা-বাণিজ্য করেও মা-বাবার তেমন একটা খেয়াল রাখিনা। এই ছোট্ট শিশুর কাছ থেকে আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে। 


বাংলা ইনসাইডার/আরকে/জেডএ