ঢাকা, সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মাদকের গডফাদাররা ধরাছোঁয়ার বাইরে এবং অন্যান্য সংবাদ

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৭ জুলাই ২০১৮ শুক্রবার, ১০:০৯ এএম
মাদকের গডফাদাররা ধরাছোঁয়ার বাইরে এবং অন্যান্য সংবাদ

ধরাছোঁয়ার বাইরেই রয়ে গেছেন মাদকের গডফাদাররা। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযান শুরুর পর চিহ্নিত অনেক মাদক গডফাদার তারা এলাকায় রয়েছেন। যারা আত্মগোপনে ছিলেন ইতিমধ্যে তাদের কেউ কেউ নিজ এলাকায় ফিরেও এসেছেন। কিন্তু তাদের গ্রেফতার করার সাধ্য যেন কারো নেই। সব জায়গায় তাদের লোক আছে। মন্ত্রণালয়, প্রশাসনের শীর্ষ পর্যায়েও তাদের হাত রয়েছে। মাদকের গডফাদারদের অর্থের দাপটে অনেকটা অসহায় র্যাব-পুলিশসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারীর বাহিনীর সদস্যরা। যার কারণে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা যাচ্ছে না।(ইত্তেফাক)

অন্যান্য সংবাদ

পাকিস্তানে ঝুলন্ত পার্লামেন্ট প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন ইমরান

পাকিস্তানে বিতর্কিত নির্বাচনে নিজের দল তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) বিজয় দাবি করেছেন ক্রিকেট তারকা থেকে রাজনীতিক ইমরান খান। ভোটে বিজয়ের মাধ্যমে পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন তিনি। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতির উদ্দেশে এক ভাষণে ইমরান ঘোষণা দিয়েছেন- নতুন পাকিস্তান গড়ার, যেখানে সব নীতি হবে দেশের মানুষের কল্যাণে। পাকিস্তানের জাতির পিতা মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর `স্বপ্নের পাকিস্তান` গড়ার প্রত্যয় জানিয়ে ইমরান আরও বলেন, তিনি রাজনীতিতে কিছু পাওয়ার জন্য আসেননি। পিটিআইকে ম্যান্ডেট দেওয়া হয়েছে বিস্তৃত সংস্কারের। তিনি বলেন, আমি পাকিস্তানকে তেমন দেশ হিসেবে গড়তে চাই, যা মদিনায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। যে কল্যাণ রাষ্ট্রে বিধবা ও দরিদ্রদের সেবা করা হতো। (সমকাল)

কয়লা কেলেঙ্কারি খনির সদ্যবিদায়ী এমডি হাবিব সাময়িক বরখাস্ত

সম্প্রতি বন্ধ হয়ে যাওয়া বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য শিগগিরই কয়লা আমদানি করবে সরকার। গতকাল রাতে রাজধানীতে একটি অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, এক মাসের মধ্যেই কয়লা আমদানি করা হবে।

এদিকে কয়লা কেলেঙ্কারির জেরে বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির সদ্যবিদায়ী ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হাবিব উদ্দিন আহমদকে এক মাসের জন্য সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। কয়লা গায়েবের ঘটনা গণমাধ্যমে চাউর হওয়ার পর তাকে খনি থেকে সরিয়ে পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যানের দপ্তরে সংযুক্ত করা হয়েছিল। (আমাদের সময়)

ড. কামাল ‘প্রধানমন্ত্রী’ প্রস্তাবে বৃহত্তর ঐক্যে আবার হোঁচট

বিএনপির নেতৃত্বে যে বৃহত্তর ঐক্যের চেষ্টা চলছে, সেই জোটের একজন নেতাকে সামনে এনেই আটঘাট বেঁধে নির্বাচনের মাঠে নামতে হবে; জয়লাভ করলে যিনি কয়েক মাসের জন্য সরকারপ্রধান (প্রধানমন্ত্রী) হবেন। কিন্তু সেই নেতার প্রশ্নে একমত হতে পারছে না ঐক্যে আগ্রহী দলগুলো।

নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, সম্ভাব্য জোটের প্রধান নেতা হিসেবে বিকল্পধারার সভাপতি অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নাম আলোচনায় আছে। কিন্তু বিজয়ের পর সম্ভাব্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের নাম কিছুটা আলোচনায় আসায় বিএনপির পাশাপাশি উদারপন্থী দলগুলোর মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।(কালের কন্ঠ)

বাড়তি নজর থাকবে ১১৪ কেন্দ্রে

রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর করার জন্য ১৩৮টি কেন্দ্রের মধ্যে ১১৪টিকে ঝুঁকিপূর্ণ চিহ্নিত করেছে মহানগর পুলিশ। এগুলোতে বাড়তি নিরাপত্তা ও পর্যবেক্ষণ রাখার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে নির্বাচনের দিন কেন্দ্রগুলোতে দায়িত্ব পালনের জন্য পোলিং এজেন্টদের তালিকা সাধারণত ভোট গ্রহণের দিন নেওয়ার কথা থাকলেও এবার অগ্রিম চাওয়া হয়েছে। এ নিয়ে রাজশাহীতে তৈরি হয়েছে অবিশ্বাস ও অনাস্থা। রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র সিনিয়র সহকারী কমিশনার ইফতেখায়ের আলম জানান, এলাকাভিত্তিক ভোট কেন্দ্রের অবকাঠামোগত অবস্থা, জনসংখ্যা, রাস্তাঘাট, বিদ্যুৎ সরবরাহসহ বিভিন্ন দিক বিবেচনা করে ১১৪টি কেন্দ্রকে  ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব কেন্দ্রে অতিরিক্ত নিরাপত্তাব্যবস্থা থাকবে। (বাংলাদেশ প্রতিদিন)

বাংলা ইনসাইডার/এএইচসি