ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ৯ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

নিহতদের পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান, সমবেদনা ও অন্যান্য সংবাদ

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩ আগস্ট ২০১৮ শুক্রবার, ১১:০৯ এএম
নিহতদের পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান, সমবেদনা ও অন্যান্য সংবাদ

ঢাকার বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় নিহত শিক্ষার্থী দিয়া খানম মিম ও আবদুল করিমের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল তাদের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ডেকে নেন। বেশকিছু সময় তাদের সঙ্গে কথা বলেন এবং সান্ত্বনা দেন। পাশাপাশি দুই পরিবারকে ২০ লাখ টাকা করে পারিবারিক সঞ্চয়পত্র অনুদান দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে নিহত শিক্ষার্থীর পরিবার প্রধানমন্ত্রীর কাছে কয়েকটি দাবি করেছিলেন, সঙ্গে সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী সে দাবি মেনে নিয়েছেন।  (বাংলাদেশ প্রতিদিন)

অন্যান্য সংবাদ

সব দাবি বাস্তবায়নের উদ্যোগ প্রধানমন্ত্রীর

নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করার দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই বিষয়টি তদারকি করছেন। ইতিমধ্যে ঘাতক বাসের চালক ও মালিককে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই দুই বাসের রুট পারমিট বাতিল করা হয়েছে। এছাড়া সব স্কুলের সামনে স্পিড ব্রেকার স্থাপন, ¬্যাকার্ডধারী বিশেষ ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন, শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজসংলগ্ন বিমানবন্দর সড়কে আন্ডারপাস নির্মাণ এবং ওই স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের যাতায়াতের জন্য পাঁচটি বাস প্রদান করতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সড়ক পরিবহন আইন আগামী দুই মাসের মধ্যে পাস করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। সব মিলিয়ে সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে কঠোর অবস্থানে যাবে সরকার। শিক্ষার্থীদের ৯ দফা দাবি দ্রুত বাস্তবায়নে কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে গতকাল প্রধানমন্ত্রী সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন। (ইত্তেফাক)

এবার অচল সারাদেশ

সরকার দাবি মেনে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনে নামা শিক্ষার্থীরা রাজপথ ছাড়েনি। সরকারি সিদ্ধান্তে গতকাল বৃহস্পতিবার দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও রাজধানীর পাশাপাশি বিক্ষোভ ছড়িয়েছে জেলায় জেলায়। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে গত বুধবার মধ্যরাত থেকে সারাদেশে বাস বন্ধ রেখেছেন পরিবহন মালিকরা। পাঁচ দিনের আন্দোলনে অচল ঢাকা সারাদেশ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছে পড়েছে তাদের অঘোষিত ধর্মঘটে। এতে মহাদুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।  (সমকাল)

পলিথিন টানিয়ে অফিস করেন কর্মকর্তা

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা পলিথিন টানিয়ে অফিস করেন। এক যুগেরও বেশি সময় ধরে অফিসটি এমনই বেহাল। বাইরে থেকে জরাজীর্ণ ওই ভবন দেখে বোঝার উপায় নেই অফিসের ভেতরের আসল চিত্র। সামান্য বৃষ্টিতেই ভবনের ছাদ দিয়ে পানি পড়ে। এ ছাড়া অফিসের সব কক্ষের ছাদ ও পলেস্তারা খসে পড়ছে। ছাদ ও দেয়ালগুলোয় দেখা দিয়েছে বড় বড় ফাটল। সামান্য বৃষ্টিতেই ছাদ বেয়ে পানি পড়ায় প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ভিজে যায়। এ কারণে অফিসটির কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা বছরের পর বছর ধরে পলিথিন টানিয়ে অফিস করেন। (আমাদের সময়)

কাগজপত্র নেই তাই বাস নামেনি রাস্তায়

সড়কে নৈরাজ্য রুখতে শিক্ষার্থীদের কর্মসূচির প্রতিবাদে এবার বেঁকে বসেছে পরিবহন নেতা, মালিক ও চালকরা। শিক্ষার্থীরা গাড়ির লাইসেন্স, ফিটনেস সনদ পরীক্ষা করছে। এ কারণে ভুয়া চালকরা ভয়ে রাস্তায় বাস নিয়ে নামছে না। কিন্তু বৈধ চালকদেরও বাস নিয়ে নামতে দেখা যায়নি। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে রাজধানীতে বাস চলাচল প্রায় পুরোপুরি বন্ধ থাকে। বিভিন্ন স্থানে গলিতে বা রাস্তার পাশে সারি সারি বাস দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। (কালের কন্ঠ)

বাংলা ইনসাইডার/এএইচসি