ঢাকা, রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

‘বঙ্গবন্ধুর বহিষ্কারাদেশ তুলে নেওয়ায় ঢাবিকে ধন্যবাদ’

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ শনিবার, ০১:০৪ পিএম
‘বঙ্গবন্ধুর বহিষ্কারাদেশ তুলে নেওয়ায় ঢাবিকে ধন্যবাদ’

দীর্ঘ ৬১ বছর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর বহিষ্কারাদেশ তুলে নেওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম রোকেয়া হলের ‘৭ মার্চ ভবন’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদানকালে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের পক্ষে আন্দোলন করায় ১৯৪৯ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করেছিল তৎকালীন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

প্রধানমন্ত্রী বক্তব্যের শুরুতেই ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের নাম অনুসারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকেয়া হলে ভবন উদ্বোধন করতে পেরে আনন্দ প্রকাশ করেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ পরিবারের বেশিরভাগ সদস্যই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন বলেও নিজের বক্তব্যে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

আজ শনিবার সকাল সা‌ড়ে ১০টায় প্রধানমন্ত্রী ‘৭ মার্চ’ ভবনের উদ্বোধন করেন। ‘৭ মার্চ’ ভবন উদ্বোধন উপলক্ষে রোকেয়া হলে এক ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রধানমন্ত্রীর মঞ্চ ও দর্শকদের আসনের মাঝখানের ফাঁকা জায়গায় প্রদর্শন করা হয় মনোমুগ্ধকর ডিসপ্লে। ডিসপ্লে প্রদর্শন শেষ হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রীকে উত্তরীয় পড়িয়ে দেন বেগম রোকেয়া হল ছাত্রলীগের সভাপতি বি.এম লিপি আক্তার ও সাধারণ সম্পাদক শ্রাবণী ইসলাম।

এর আগে ‘৭ মার্চ’ ভবন উদ্বোধন করতে সচিবালয়ের রাস্তা হয়ে রোকেয়া হলে আসেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী যে পথ দিয়ে আসেন সেই পথকে রঙিন করে তুলতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সম্মিলিত শিক্ষার্থী সংসদের শতাধিক শিক্ষার্থী সংসদ সচিবালয় থেকে রোকেয়া হল পর্যন্ত ১৯৭১ ফুট দীর্ঘ এবং ৭ ফুট প্রস্থ আলপনা অঙ্কন করেন। গতকাল শুক্রবার বি‌কেল থেকে মধ্যরাত পযর্ন্ত সড়কে আলপনা আঁকার কর্মযজ্ঞে অংশ নেন তাঁরা।


বাংলা ইনসাইডার/এসএইচটি/জেডএ