ঢাকা, রোববার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

‘খালেদা জিয়ার বক্তব্য ইমোশনাল’

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০৪:১১ পিএম
‘খালেদা জিয়ার বক্তব্য ইমোশনাল’

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, আদালতে হাজির না হওয়া বিষয়টি খালেদা জিয়ার ইমোশনাল বক্তব্য।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে সমকাল কার্যালয়ের এক গোলটেবিল বৈঠক শেষে আইনমন্ত্রী এসব কথা বলেন। ’সমতলে ক্ষুদ্র জাতিসত্তা ও দলিত জনগোষ্ঠির অধিকার সুরক্ষায় প্রতিষ্ঠানিক নীতি-কাঠামো দাবি’ বিষয়ে ওই গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ‘গত সাত মাস যাবত কোর্ট বসছে এবং মামলার মুখ্য আসামি এই কোর্টে হাজিরা দিচ্ছেন না। নিরাপত্তা জনিত কারণে বা অন্য কোনো কারণে তিনি যখন হাজিরা দিচ্ছেন না, সেইটার সুবিধার্থে নিরাপত্তা আরো সুনিশ্চিত করার জন্য কোর্ট পুরানো নাজিমউদ্দিন রোডের যেই জায়গায় প্রজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছে সেখানে বসানো হচ্ছে। আমার মনে হয়, এতে কারো অধিকার খর্ব করা হচ্ছে না। প্রত্যেকবারই তারা নির্দোষ প্রমাণ করার চেষ্টা না করে, বিচারকে কিভাবে এড়িয়ে যাওয়া যায় সেইটার চেষ্টা করছেন। তাতে এটাই মনে হয়, নিজেদের মনে তারা দোষী স্বাব্যস্ত হয়ে গেছেন, সেই কারণেই তারা বিচারের সম্মুখীন হতে চান না।’

খালেদা জিয়ার গতকালকের কথাকে উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘এটা হয়তো তাঁর ইমোশনাল বক্তব্য। এটা আমি খুব একটা গুরুত্ব দিচ্ছি না।’

ক্যামেরা ট্রায়েলের কথা উল্লেখ করে এসময় তিনি বলেন, ‘আদালত সবার জন্য উন্মুক্ত ছিল। যেখানে আদালত বসানো হয়েছে সেখানে কারো প্রবেশাধিকার নিষিদ্ধ নয়। এটা ক্যামেরা ট্রায়েলের সংঙ্গায় পড়ে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘তারা যদি নির্দোষ প্রমাণিত করতে পারেন, কোনো অসুবিধা নাই। বিচার সুষ্ঠু হচ্ছে এবং সুষ্ঠু হবে। ন্যায় বিচার তারা পাবে। আদালতে এই মমলার ৩২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য দেওয়া শেষ হয়ে গেছে, মামলার শুধু যুক্তি তর্ক বাকি আছে। সেটুকু তারা করলেই হয়।

বাংলা ইনসাইডার/বিপি/জেডএ