ঢাকা, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

আজ বিশ্ব পর্যটন দিবস

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০২:২২ পিএম
আজ বিশ্ব পর্যটন দিবস

‘পর্যটনশিল্পের বিকাশে তথ্যপ্রযুক্তি’-এই প্রতিপাদ্য নিয়ে আজ ২৭ সেপ্টেম্বর বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও উদযাপিত হচ্ছে বিশ্ব পর্যটন দিবস। পর্যটনের ভূমিকা সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধিসহ সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক উপযোগিতাকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়া এ দিবসের লক্ষ্য।

প্রতিবছরের মতো এবারও বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন ও বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডসহ বিভিন্ন পর্যটন সংস্থা দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

বাণীতে রাষ্ট্রপতি ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে তথ্য-প্রযুক্তিনির্ভর মধ্য আয়ের দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে পর্যটন শিল্পের অবদান নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, পর্যটন ব্যবসা পরিচালনায় ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে অবদান রাখতে সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি বেসরকারি উদ্যোক্তাদেরও স্বতঃস্ফূর্তভাবে এগিয়ে আসতে হবে।

বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবরে শুরু হচ্ছে তিন দিনের ‘ট্যুরিজম ফেস্ট ২০১৮’। বিকেল সাড়ে ৩টায় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী একেএম শাহজাহান কামাল প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করবেন। এছাড়াও ঢাকার প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেল ও চট্টগ্রামের হোটেল আগ্রাবাদ আয়োজন করেছে বাংলাদেশি ফুড ফেস্টিভ্যাল।

এদিকে বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষে শুক্রবার তিন দিনব্যাপী ৭ম এশিয়ান ট্যুরিজম ফেয়ার-২০১৮ শুরু হচ্ছে ঢাকায়। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল এ মেলা উদ্বোধন করবেন। বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন ও বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের সার্বিক সহযোগিতায় পর্যটন বিচিত্রা এ ট্যুরিজম ফেয়ারের আয়োজন করছে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাজধানীর বসুন্ধরার ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটিতে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এ মেলা চলবে। মেলায় বাংলাদেশসহ ভারত, নেপাল, চায়না, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুরের বিভিন্ন পর্যটন সংস্থার ১২০টি স্টল অংশ নেবে।

উল্লেখ্য, জাতিসংঘের বিশ্ব পর্যটন সংস্থার (ইউএনডব্লিউটিও) উদ্যোগে ১৯৮০ সাল থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর দিবসটি পালন করা হয়।

বাংলা ইনসাইডার/বিকে/জেডএ