ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ৯ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

আরব বিশ্বেও শেখ হাসিনার চমক

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ শুক্রবার, ১১:১০ এএম
আরব বিশ্বেও শেখ হাসিনার চমক

একটি মুসলিম দেশের নারী হয়েও কীভাবে মানুষের দিনবদলের রূপকার হয়ে উঠলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সেই বিষয়ে একটি বই লিখেছিলেন মুহসিন আল আরিশি। শেখ হাসিনা সম্পর্কে জেনে আরব বিশ্বের মানুষ কতটা মুগ্ধ ও অবাক হয়েছে, সেই কথাই জানালেন এই বইটির লেখক মিশরীয় সাংবাদিক এবং গবেষক। 

মুহসিন আল আরিশির লেখা ‘হাসিনা হাকাইক আসাতি’র বাংলা অনুবাদ গ্রন্থের প্রকাশ উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় জাদুঘরে একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন এবং শেখ হাসিনার প্রশংসা করেন তিনি। 

মিশরীয় এই লেখক বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে লেখা বইটি পড়ে মিশর ও আরবের অনেক পাঠক বলেছেন, বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশের স্বাধীনতা সম্পর্কে তারা জানতই না। এই বই পড়ে বাংলাদেশ সমন্ধে তারা অনেক কিছুই জানতে পেরেছে।’

‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথা জেনে তারা বিস্মিত হয়েছে। তিনি সফল একজন প্রধানমন্ত্রী, একজন সফল নেতা। তিনি তার কাজ করতে গিয়ে কখনই কারও সাথে আপোস করেননি। তিনি নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠা ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে বিভিন্ন দেশের কাছে পথিকৃৎ।’

এই লেখক আরও বলেন, ‘নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে আরব দেশগুলোর কাছে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন অনুসরণীয় ব্যক্তি। তিনি বাংলাদেশকে যেভাবে এগিয়ে নিয়েছেন, সামগ্রিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন একট মডেলে রূপ নিয়েছে।’

মুহসিন আল আরিশির বইটির বাংলায় অনুবাদ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আবদুর রশীদ। বইটির গুরুত্ব প্রসঙ্গে অধ্যাপক রশীদ বলেন, এই বইটি আরও অনেক আগে প্রয়োজন ছিল। আমাদের স্বাধীনতা যুদ্ধে আরব দেশগুলো সমর্থন দেয়নি, একমাত্র ইয়াসির আরাফাত ছাড়া, ৭৫ এর আগ পর্যন্ত আরব দেশগুলো আমাদের সাথে সম্পর্ক রাখেনি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই অধ্যাপক আরও বলেন, ‘মুহসিন আল আরিশি বাঙালি জাতির একজন প্রকৃত বন্ধু হিসেবে পরিচিত হবেন এই বইয়ের মাধ্যমে। যে বিষয়গুলোতে আমাদের দেশের লেখকরা দৃষ্টিপাত করেননি, তিনি সেই বিষয়গুলো তুলে এনেছেন তাঁর বইতে। বঙ্গবন্ধু প্রতি রাতে কোরআন তেলওয়াত করতেন, ১৯৭১ সালে রোজা রাখা অবস্থায় পাকিস্তানিরা, এদেশের রাজাকাররা কত মা-বোনকে কষ্ট দিয়েছেন, নির্যাতন করেছেন, এই কি মুসলমান? মহানবী (সা.) এর সাথে কোরাইশরা যেমন শত্রুতা করেছিল, বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর সাথেও পাকিস্তানিরা তেমন শত্রুতা করেছেন। এসব বিষয়গুলো তিনি তার বইয়ের মাধ্যমে লিখেছেন।’

উক্ত অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর আতিউর রহমান, শহীদজায়া শ্যামলী নাসরীন চৌধুরী, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন অভিনেতা পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়।


বাংলা ইনসাইডার/আরকে