ঢাকা, রোববার, ২১ অক্টোবর ২০১৮, ৬ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

পরিবেশ দূষণে বছরে ২ লাখ ৩৪ হাজার মানুষের মৃত্যু

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০১৮ শুক্রবার, ০৬:২৪ পিএম
পরিবেশ দূষণে বছরে ২ লাখ ৩৪ হাজার মানুষের মৃত্যু

বাংলাদেশে পরিবেশ দূষণ অনেক মানুষের মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে৷ বিশ্বব্যাংকের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পরিবেশ দূষণজনিত কারণে শুধু ২০১৫ সালে বাংলাদেশে ২ লাখ ৩৪ হাজার মানুষ মারা গেছে। 

আজ শুক্রবার দুপুরে বাংলাদেশ শিশুকল্যাণ পরিষদ কনফারেন্স রুমে বাপার উদ্যোগে ‘পরিবেশ দূষণে বাংলাদেশে বছরের ২ লাখ ৩৪ হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে, দূষণ বন্ধে অবিলম্বে কার্যকর ও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ’-এর দাবিতে এক সংবাদ সম্মেলন থেকে এ তথ্য জানান সংগঠনের নেতারা।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, বাংলাদেশে পরিবেশ দূষণ জ্যামিতিক হারে বেড়েই চলেছে। সম্প্রতি এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, ২০১৫ সালে পরিবেশ দূষণজনিত কারণে ২ লাখ ৩৪ হাজার মানুষ মারা গেছে। এর মধ্যে ৮০ হাজার মানুষ মারা গেছে শহরে। এ ছাড়া, নানা রোগব্যাধিতে মোট মৃতের সংখ্যা ছিলো ৮ লাখ ৪৩ হাজার। পরিবেশ দূষণের মধ্যে বায়ূদূষণে মৃত্যুর সংখ্যা অন্যান্য দূষণ জনিত মৃত্যু থেকে বেশি।

এছাড়াও বাংলাদেশের নদী, নালা, খাল, বিল দূষণ ও দখল হয়ে যাচ্ছে। ঢাকার চারপাশের ইটভাটা, তীব্র যানজট, পুরোনো মোটরগাড়ি থেকে নির্গত কালো ধোঁয়া এবং ধুলা, কার্বন ডাই অক্সাইড ঢাকার বাতাসকে ভারি করে তুলছে বলেও উল্লেখ করে বাপা।

এরপর পরিবেশ দূষণ রোধে বেশকিছু পরামর্শ দেয় বাপা। সেগুলোর মধ্যে রয়েছে, ইটের বিকল্প জ্বালানি হিসাবে কংক্রিট ব্লকের ব্যবহার বাড়ানো, কাঠ পোড়ানো বন্ধ করা, ১৬ বছর ও তার বেশি ব্যবহৃত যানবাহন ব্যবহার বন্ধ করা,সব বড় সড়কের পাশে ফুটপাত দখলমুক্ত করা, মাটিবাহী ট্রাক ও গরুর গাড়ি থেকে বালি ও মাটি পড়া বন্ধ করা, সারাদেশে গাছ লাগানো জোরদার করা ও ধুমপান কমানো।

বাপার সহসভাপতি অধ্যাপক এম ফিরোজ আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. আব্দুল মতিন, যুগ্ম সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম মোল্লাহ, মিহির বিশ্বাসসহ অনেকেই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

বাংলা ইনসাইডার/বিকে