ঢাকা, সোমবার, ১০ মে ২০২১, ২৭ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

আবার ক্ষমতায় এলে তারেকের সাজা কার্যকর ও অন্যান্য সংবাদ

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৫ অক্টোবর ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০৮:৩৭ এএম
আবার ক্ষমতায় এলে তারেকের সাজা কার্যকর ও অন্যান্য সংবাদ

 

আগামী নির্বাচনের মাধ্যমে আওয়ামী লীগ আবার ক্ষমতায় এলে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে এনে তাঁর সাজা কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল বুধবার বিকেলে জাতীয় সংসদের অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে আবার আমরা ক্ষমতা আসতে পারলে অবশ্যই তাঁকে (তারেক) ফিরিয়ে আনতে পারব, শাস্তি দিতে পারব। তাঁকে ফিরিয়ে আনার জন্য ব্রিটিশ সরকারের সঙ্গে আমরা আলাপ-আলোচনা করছি। সাজা কার্যকর করার জন্যও দেশবাসীর দোয়া চাই।’ (কালের কণ্ঠ)

অন্যান্য সংবাদ

গণতন্ত্র উদ্ধারে মাঠে নামুন: সিলেটে ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে ড. কামাল

বিশিষ্ট আইনজীবী ড. কামাল হোসেন বলেছেন, গণতন্ত্র ‘পুনরুদ্ধারে’ আন্দোলনের জন্য সবাই প্রস্তুত হোন। দেশের মালিকদের হাতে গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিতে হবে। এজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাঠে নামার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, জনগণ ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাঠে নামলে আমাদের বিজয় অনিবার্য। আন্দোলনের মধ্যদিয়ে আমরা আবার দেশের মালিক হব। স্বাধীন দেশের প্রকৃত মালিক জনগণ। কিন্তু বর্তমানে জনগণের হাতে সেই মালিকানা নেই। এটা আদায় করে নিতে হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে বিএনপিকে সঙ্গে নিয়ে জোট গঠনের পর বুধবার সিলেটে অনুষ্ঠিত প্রথম জনসভা থেকে এই আহ্বান জানান। এতে তিনি কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেন। (যুগান্তর)

ড. কামাল নষ্ট রাজনীতিক ------ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, ১/১১-এর কুশীলবরা, বাংলাদেশের পরিচিত-পরীক্ষিত চক্রান্তকারীরা আজকে হাত মিলিয়েছে ২১ ও ১৫ আগস্টের খুনিদের সঙ্গে। এরা হাত মিলিয়েছে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সন্ত্রাসীদের সঙ্গে। এদের সাত দফা হচ্ছে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচালের সাতটি চক্রান্ত। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, এদের নেতা কে? এদের নেতা মঞ্চে আছে কামাল হোসেন, আর পেছনে আছে আসল নেতা তারেক রহমান। মন্ত্রী বলেন, আজকে আমার অবাক লাগে— বাংলাদেশের প্রথম সংবিধান প্রণেতা বলে যিনি দাবি করেন, যিনি গণতন্ত্রের নামে মায়াকান্না করেন, যিনি নীতি-নৈতিকতার কথা বলেন, নষ্ট রাজনীতির বিরুদ্ধে কথা বলেন— সেই ড. কামাল হোসেন আজকে নষ্ট রাজনীতির প্রবর্তক ও প্রচারক বিএনপির সঙ্গে হাত মিলিয়ে প্রমাণ করেছেন তিনিও নষ্ট রাজনীতিক। (ইত্তেফাক)

ফেসবুক নজরদারি করবেন দুই হাজার তথ্যপ্রযুক্তিবিদ

জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রাষ্ট্রবিরোধী বিভিন্ন ধরনের নেতিবাচক তথ্য প্রচার প্রতিরোধে উদ্যোগ নিয়েছে র‌্যাব। এ লক্ষ্যে আগামী চার মাসের জন্য একটি প্রতিষ্ঠানকে নিয়োগ দেওয়া হবে। প্রতিষ্ঠানটির দুই হাজার ৫০ জন অভিজ্ঞ তথ্যপ্রযুক্তিবিদ ২৪ ঘণ্টা উল্লিখিত মাধ্যমগুলো নজরদারিতে রাখবেন। তারা রাষ্ট্রবিরোধী গুজব, বিদ্বেষ ও বিভ্রান্তিমূলক পোস্টের জবাব দেবেন। একই সঙ্গে এসব কাজে যারা যুক্ত থাকবেন, তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে র‌্যাবকে সহযোগিতা করবেন। এ ছাড়া এসব মাধ্যমে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের সঠিক তথ্য প্রচারেও দায়িত্ব পালন করবেন প্রযুক্তিবিদরা। `সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম পর্যবেক্ষণ` নামে প্রস্তাবিত প্রকল্প প্রস্তাবের ওপর অনুষ্ঠিত মূল্যায়ন কমিটির (পিইসি) সভার কার্যবিবরণী সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। (সমকাল)

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচটি