ঢাকা, সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

আবার সংলাপে বসতে চায় ঐক্যফ্রন্ট ও অন্যান্য সংবাদ

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪ নভেম্বর ২০১৮ রবিবার, ০৮:৩০ এএম
আবার সংলাপে বসতে চায় ঐক্যফ্রন্ট ও অন্যান্য সংবাদ

 

শিগগির ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের সঙ্গে আবারও সংলাপে বসতে চায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। একাদশ সংসদ নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে সাত দফা দাবিতে চলমান সংলাপের ধারাবাহিকতায় আবার আলোচনায় বসতে চান তারা। `সীমিত পরিসরে` সংলাপে বসার আগ্রহ ব্যক্ত করে আজ রোববার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চিঠি দিচ্ছেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন। গতকাল শনিবার রাতে ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। (সমকাল)

অন্যান্য সংবাদ

সমঝোতা হলে খালেদার মুক্তিতে রাজি সরকার!

বহু প্রত্যাশিত ও বহুল আলোচিত সংলাপের মধ্যে দেশের সচেতন নাগরিকসমাজ আশার আলো দেখলেও সরকার ও বিরোধী পক্ষের সম্পর্কে এ মুহূর্তে ‘জট’ হয়ে দাঁড়িয়েছে মূলত খালেদা জিয়ার কারামুক্তি ইস্যু। এ বিষয়টি যে উভয় পক্ষের কাছেই এখন দিনের আলোর মতোই পরিষ্কার, তা দুই পক্ষের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের সঙ্গে কথা বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে জট থেকে বেরিয়ে আলোতে আসার একটি ফর্মুলার কথা সরকারপক্ষ ভেবে রেখেছে বলে জানা গেছে। আর সেটি হলো দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখা হবে—বিএনপি এই নিশ্চয়তা দিলে সরকার খালেদা জিয়ার কারামুক্তির ব্যবস্থা করতে প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছে ক্ষমতাসীনরা।  (কালের কণ্ঠ)

আজ তফসিল ঘোষণার সম্ভাবনা ক্ষীণ

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রাজনৈতিক দলগুলোর সংলাপ চলাবস্থায় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার কাজ গুছিয়ে আনছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তফসিলের কাজ শেষ করতে সাপ্তাহিক ছুটির দিন শনিবার কমিশন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সভায় প্রথমবারের মতো অনলাইনে মনোনয়নপত্র দাখিল করার সুযোগ রেখে বিধিমালা চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। তবে জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিধিমালা চূড়ান্ত হয়নি। এ অবস্থায় কমিশন সভা মুলতবি করা হয়েছে। একাধিক কারণে আজ তফসিল ঘোষণার সম্ভাবনা খুবই কম। (যুগান্তর)

আলোচনা আর আন্দোলন একসঙ্গে কীভাবে সম্ভব

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নির্বাচন নিয়ে যখন আলোচনা চলছে, তখনই দেখলাম আন্দোলনের কর্মসূচি দেওয়া হলো! আলোচনা আর আন্দোলন একসঙ্গে কীভাবে সম্ভব? একদিকে আলোচনাও করবে, আরেকদিকে আন্দোলনের কর্মসূচি দেওয়া হবে, তাহলে এটা কি ধরনের সংলাপ, আর কি ধরনের কথা; আমাদের কাছে বোধগম্য না। জানি না দেশবাসী ও জাতি এটা কীভাবে নেবেন। তবে আমরা চাই সকলের অংশগ্রহণে একটা সুষ্ঠু নির্বাচন হোক এবং দেশে গণতান্ত্রিক ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকুক। সবার অংশগ্রহণে সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে সংলাপে বসেছি। গতকাল শনিবার বিকালে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে শোকাবহ জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। (ইত্তেফাক)

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচটি