ঢাকা, বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ২ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

নির্বাচনে যা কিছু পালনীয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৩০ ডিসেম্বর ২০১৮ রবিবার, ০৮:১৫ এএম
নির্বাচনে যা কিছু পালনীয়

যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে নির্বাচন কমিশন সেনাবাহিনী, পুলিশ, বিজিবিসহ প্রায় ৭ লাখ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এর পাশাপাশি র্নিবাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা, প্রিজাইডিং অফিসার, সহাকারী প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার, সাংবাদিক, পর্যবেক্ষকসহ প্রায় ১৫ লাখ লোক নির্বাচনের দিন মাঠে থাকবে। নিরবিচ্ছিন্ন নিরাপত্তা বজায় রাখতে নিষেধাজ্ঞা রাখা হয়েছে বিভিন্ন বিষয়ে।

বেবিট্যাক্সি, অটোরিকশা, ইজিবাইক, ট্যাক্সিক্যাব, মাইক্রোবাস, জিপ, পিকআপ, কার, বাস, ট্রাক, টেম্পো ও স্থানীয় পর্যায়ে বিভিন্ন যন্ত্রচালিত যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। লঞ্চ, ইঞ্জিনচালিত সব ধরনের নৌযান ও স্পিডবোট ইত্যাদি চলাচলের ওপরও নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রয়েছে। ভোটারদের চলাচলের জন্য ব্যবহৃত ক্ষুদ্র নৌযান এ নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত রাখা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশনের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, গ্যাস, ডাক, টেলিযোগাযোগের মতো জরুরি সেবা কাজে নিয়োজিত যানবাহন; ওষুধ, চিকিৎসা ও অনুরূপ কাজে ব্যবহৃত দ্রবাদি (অ্যাম্বুলেন্স) এবং সংবাদপত্র বহনকারী সব ধরনের যানবাহন নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত রয়েছে। ফলে এগুলো চলতে পারছে নির্বাচনের দিন।

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী, রিটার্নিং কর্মকর্তার অনুমতি এবং গাড়িতে স্টিকার থাকাসাপেক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী, তাদের নির্বাচনী এজেন্ট, পরিচয়পত্র ও স্টিকার থাকলে দেশি ও বিদেশি পর্যবেক্ষক এবং সাংবাদিকদের গাড়ি ও মোটরসাইকেলে নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না। নির্বাচনী কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য ও বৈধ পরিদর্শক গাড়ি, মোটরসাইকেল ও নৌযান ব্যবহার করতে পারছেন।

বিভিন্ন কূটনীতিকরাও তাদের গাড়ি নিয়ে বের হতে পারছেন। তবে কূটনীতিক অধ্যুষিত অঞ্চলে বহিরাগত যান প্রবেশে নির্বাচন কমিশনের অনুমতি লাগবে।

আর বিদেশগামীদের যাতায়াতের ক্ষেত্রে কিছুটা শিথিলতা রয়েছে। আর ভোটের দিন বাস বন্ধ থাকলেও ট্রেন, লঞ্চ ও বিমান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। নির্বাচনের সময়ে সড়কে যান চলাচলে বিধিনিষেধ থাকলেও বিদেশ যাওয়া-আসার যাত্রীরা যাতায়াত করতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে পাসপোর্ট, টিকিট ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তাদের দেখাতে হবে।

গুরুতর অসুস্থ রোগীরাও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখিয়ে যাতায়াত করতে পারবেন। এসব বিষয়ে ট্রাফিক পুলিশকে নির্দেশনা দেওয়া রয়েছে। ভোটকেন্দ্রেও বিভিন্ন বিষয়াদি মেনে চরতে হবে ভোটারদের। ভোটকেন্দ্র বা তার আশেপাশে অরাজকতা সৃষ্টি না করা, কেন্দ্রে মোবাইল সঙ্গে না নেওয়া, কোনো ধরনের দাহ্য পদার্থ, ম্যাচ, লাইটার, ধারালো বস্তু এমন কিছু নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ না করার আহ্বান জানানো হয়েছে। নিষিদ্ধ আর সাধারণ নাগরিক হিসেবে আমাদের উচিৎ সমস্ত নির্দেশনা মেনে চলা।

 

বাংলা ইনসাইডার/এসএইচ