ঢাকা, শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

ভীষণ কষ্টে কথা বললেন তোফায়েল আহমেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭ মার্চ ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ০৫:২৪ পিএম
ভীষণ কষ্টে কথা বললেন তোফায়েল আহমেদ

গলার সমস্যার কারণে কথা বলতে কষ্ট হচ্ছিল তোফায়েল আহেমেদের। কেউ একজন এসে একগ্লাস পানি দিলেন। কিন্তু তোফায়েল আহমেদ বলে যাচ্ছিলেন সেই স্মৃতি। ১৯৭১ সালে স্মৃতি।

তিনি বলেন,‘বঙ্গবন্ধু দুটোই করেছিলেন। তিনি ৪ টি শর্ত আরোপ করেন। সেনাবাহিনী ব্যারাকে ফিরিয়ে নিয়ে যাও। নির্বাচিতদের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করো। এবং গত কয়দিনে যে হত্যাকান্ড চালানো হয়েছে তার বিচার বিভাগীয় তদন্ত করো। এই শর্তগুলো আরোপ করে তিনি বিচ্ছিন্নতাবাদী হলেন না। আবার তিনি স্বাধীনতারও ঘোষণা দিয়ে দিলেন। এই বক্তৃতাটা ছিল বঙ্গবন্ধুর বিশ্বাসের বক্তৃতা।’

তিনি উল্লেখ করেন,‘শ্রদ্ধেয় সভানেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা উপস্থিত আছেন, তিনি আমার থেকে বেশি জানেন। ৬ তারিখ রাতে যখন বঙ্গবন্ধু ভাবছেন কি বলবেন। যখন তিনি পায়চারী করছিলেন। তখন আমাদের শ্রদ্ধেও বঙ্গমাতা বঙ্গবন্ধুকে বলেছিলেন, সারাজীবন একটা লক্ষ্য নির্ধারণ করে তুমি সংগ্রাম করেছো। বারবার যে কারণে কারাগারে গিয়েছো। মৃত্যুর মুখে দাড়িয়ে মৃত্যুকে আলিঙ্গন করেছো। তোমার সেই বিশ্বাস থেকে যা তুমি বিশ্বাস করো, যার জন্য জীবনের যৌবন কারাগারে কাটিয়েছো তুমি তাই করবে। বঙ্গবন্ধু তাই বলেছিলেন। ’

তিনি বলেন,‘একটি ভাষণের মধ্য দিয়ে নিরস্থ বাঙালিকে সশস্ত্র করেছিলেন।’

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের ওপর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে এমন কথা বলেন তোফায়েল আহমেদ। সভায় সভাপতি হিসেবে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিকেল সাড়ে তিনটায় তিনি সভায় যোগ দেন। তার সভাপতিত্বেই এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

সভায় দলের নেতাকর্মীরা ছাড়াও বুদ্ধিজীবীরা বক্তব্য রাখেন। সভা পরিচালনা করছেন আওয়ামী লীগের প্রচার-প্রকাশনা সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এবং উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম।


বাংলা ইনসাইডার/এমআরএইচ