ঢাকা, সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক, ১২ বছরের শিশু অন্তঃসত্বা

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৩ আগস্ট ২০১৯ মঙ্গলবার, ০৮:০৫ পিএম
বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক, ১২ বছরের শিশু অন্তঃসত্বা

দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলায় ১২ বছরের এক শিশুকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দিনের পর দিন ধর্ষণ করে আসছিলেন মোহন্ত(২২) নামে এক যুবক। এক পর্যায়ে ধর্ষিতা অন্তঃসত্বা হয়ে যায়। 

এই ঘটনায় অভিযুক্ত যুবককের নামে গত ১১ আগস্ট রবিবার বিরামপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা  দায়ের করেন শিশুটির মা। মামলার পর বিরামপর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই যুবককে গ্রেফতার করে গতকাল সোমবার জেলহাজতে পাঠিয়েছে ।

বিরামপুর থানা পুলিশের তদন্ত পরিদর্শক সোহেল রানা বলেন, আট মাস ধরে ওই শিশুকে ধর্ষণ করেছে মোহন্ত হাসদা নামে একই এলাকার এক যুবক। শনিবার বিয়ের দাবি নিয়ে ওই যুবকের বাসায় গেলে তার বাবা-মা মেয়েটিকে বাসা থেকে বের করে দেয়। এ ঘটনায় গত রবিবার ওই যুবককে অভিযুক্ত করে মামলা করেন মেয়েটির মা। পরে অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

এব্যাপারে শিশুটির মা বলেন, অনেকদিন ধরে আমার মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে মোহন্ত। কয়েকদিন ধরে মেয়ের শারীরিক পরিবর্তন ঘটলে বিষয়টি আমাকে জানায়। বিষয়টি যাচাই করার জন্য শহরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে আল্ট্রাসনোগ্রাম করানো হয়। পরে রিপোর্টে মেয়েটি ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা বলে নিশ্চিত করেন ডাক্তার।

বিরামপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, ধর্ষণের শিকার মেয়েটির মায়ের মামলার পর ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয়। সোমবার সকালে তাকে দিনাজপুর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। মেয়েটিকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে মোহন্ত।

বাংলা ইনসাইডার