ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

বিকাশ প্রতারণায় মাসে ৮০ হাজার টাকা আয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ বুধবার, ০৪:২৮ পিএম
বিকাশ প্রতারণায় মাসে ৮০ হাজার টাকা আয়

বিকাশের মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেয়া চক্রের এক সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। নাম সাদ্দাম হুসাইন (২২), বাড়ি ফরিদপুরের মধুখালীর ডুমাইনে। বাবার নাম মৃত সাহেদ মিয়া। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সদর থানা পুলিশ বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়ার জঙ্গল বাজার থেকে তাকে আটক করে। এ সময় তার কাছ থেকে নগদ বেশকিছু টাকা উদ্ধার করে পুলিশ।

সাদ্দাম হুসাইন জানান, তারা কয়েকজন মিলে এই প্রতারণা করতেন। প্রথমে তারা বিকাশের দোকান থেকে ক্যাশ আউটের নম্বর সংগ্রহ করেন। পরে ফোন দিয়ে দিনে ৪/৫ জন গ্রাহককে বলতেন আপনার নম্বরে ভুলে টাকা গেছে। ফেরত না দিলে অভিযোগ দিয়ে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হবে। অ্যাকাউন্ট চালু করতে বিকাশ হেড অফিস থেকে আপনাকে ফোন দিয়ে একটি পিন নম্বর চাইবে। তখন পুনরায় আপনার অ্যাকাউন্ট খুলতে তাদের দেয়া পিন বলবেন। তাহলে অ্যাকাউন্ট সচল হয়ে যাবে।’ তখন বিকাশ গ্রাহক ও তারা উভয়েই ওই অ্যাকাউন্টে ঢুকতে পারেন। সেই সুযোগে তারা গ্রাহকের টাকা হাতিয়ে নেন।

তিনি আরও জানান, দুই বছর ধরে এ কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত। তিনি মাঠ পর্যায়ের কর্মী, প্রতিমাসে এভাবে ৬০ থেকে ৮০ হাজার টাকা আয় করেন। আর যাদের নির্দেশে কাজ করেন তাদের মাসে আয় হয় লাখ লাখ টাকা। এ কাজে তাদের এলাকার প্রায় ৯০ ভাগ যুবক জড়িত।

রাজবাড়ী সদর থানার পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম বলেছেন, বিকাশ প্রতারক চক্র সদর উপজেলার বরাটের এলাকার আমিরুল ইসলামের ৭৭ হাজার ৪৪৩ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে- এমন মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে ঢাকার বিকাশ হেল্প সেন্টারে যোগাযোগ করে জানতে পারেন ওই টাকা চট্টগ্রাম ও ঝিনাইদাহের দুটি নম্বরে ক্যাশআউট করা হয়েছে। পরে এসব স্থানে খোঁজ নিয়ে তার নেতৃত্বে পুলিশ গতকাল মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে রাজবাড়ী বালিয়াকান্দির নারুয়ার জঙ্গল বাজারে অভিযান চালিয়ে সাদ্দাম হুসাইন নামে বিকাশ প্রতারক চক্রের একজনকে ১০ হাজার ২০০ টাকাসহ আটক করে। তার বিরুদ্ধে রাজবাড়ী সদর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে এই কর্মকর্তা।

বাংলা ইনসাইডার/বিকেডি