ঢাকা, সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিএনপি এক্ষেত্রে নির্লজ্জ

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭ নভেম্বর ২০১৯ বৃহস্পতিবার, ১০:১৫ পিএম
বিএনপি এক্ষেত্রে নির্লজ্জ

আজ দুটি ঘটনা ঘটলো। এক মুক্তিযোদ্ধার লাশ দেশে আসলো। আরেক মুক্তিযোদ্ধা মারা গেলেন। চট্টগ্রাম-৮ আসনের তিন বারের সংসদ সদস্য ও জাসদ নেতা মঈন উদ্দীন খান বাদল মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে ভারতের বেঙ্গালুরের নারায়ণ হৃদরোগ রিসার্চ ইনস্টিটিউট অ্যান্ড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তিনি তিন ছেলে, এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

অন্যদিকে সাদেক হোসেন খোকার জানাযায় আজ উপস্থিত হয়েছিলেন সাবেক রাষ্ট্রপতি বদরুদ্দোজা চৌধুরী, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর সালেহ উদ্দিন, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, সাবের হোসেন চৌধুরী, কল্যাণ পার্টির সৈয়দ মুহম্মদ ইবরাহিম, তোফায়েল আহমেদ, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, অলী আহমদ, আবদুল মঈন খান প্রমুখ। তোফায়েল আহমেদ ও ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ এক কাতারে পাশাপাশি দাড়িয়ে জানাযার নামায পড়েছেন।

জানাজা শেষে বিরোধী দলের পক্ষে সাদেক হোসেন খোকাকে শ্রদ্ধা জানান জাতীয় পার্টির (জাপা) মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা। এরপর শ্রদ্ধা জানান লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি অলি আহমদ, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম এবং বিএনপির ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের নেতৃত্বে বিএনপির স্থায়ী কমিটি, ভাইস চেয়ারম্যান, উপদেষ্টারা শ্রদ্ধা জানান।

কিন্তু মুক্তিযোদ্ধা মঈন উদ্দীন খান বাদল মারা যাওয়াতে বিএনপির মত একটি দল কোন শোক বার্তা দেয়নি। বিএনপি তার চরিত্র পরিবর্তন করেনি। এর আগেও দলটি বিরোধী পক্ষের অনেকের মৃত্যুতে শোক বার্তা পর্যন্ত দিতে কার্পণ্য করেছে। যার ধারবাহিকতা আজও দেখা গেছে।

বাংলা ইনসাইডার/এমআরএইচ