ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘ভূমি অধিগ্রহণ কার্যক্রমে কোন ধরণের অনিয়ম সহ্য করা হবে না’

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ শনিবার, ০৫:৫৩ পিএম
‘ভূমি অধিগ্রহণ কার্যক্রমে কোন ধরণের অনিয়ম সহ্য করা হবে না’

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন পর্যটন শিল্পের জন্যে গুরুত্বপূর্ণ কক্সবাজার সহ দেশের কোথাও ভূমি অধিগ্রহণ কার্যক্রমে কোন ধরণের অনিয়ম সহ্য করা হবে না।

আজ শনিবার বিকেলে কক্সবাজার জেলার হিল-ডাউন সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে এক মতবিনিময় সভায় ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী এ মন্তব্য করেন।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা। সঞ্চালক হিসেবে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে ভূমি অধিগ্রহণ একটি অপরিহার্য বিষয় উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, যারা ভূমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির আশ্রয় গ্রহণ করে তারা এক অর্থে দেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাধাগ্রস্ত করে, তারা জনগণের শত্রু। ভূমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির আশ্রয় নেওয়া বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা শাস্তির সম্মুখীন হয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, পূর্বের যেকোনো সময় থেকে ক্ষতিপূরণ প্রদান প্রক্রিয়া অনেক স্বচ্ছ হয়েছে। জনগণ এর সুফল পাচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, আমরা অনলাইনের মাধ্যমে ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণ প্রদানের ব্যবস্থা করছি। এছাড়া বাড়ি বাড়ি গিয়ে অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণের অর্থ প্রদানের কাজ ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে।

এ সময় ভূমি সংক্রান্ত যেকোনো অভিযোগ ভূমি সেবা হটলাইন ১৬১২২ নম্বরে কল করে ভূমি বিষয়ক বিভিন্ন সমস্যার সমাধান পাওয়ার জন্যে এবং ভূমিসংক্রান্ত বিভিন্ন অভিযোগ দায়ের করার জন্যে সবাইকে পরামর্শ দেন ভূমিমন্ত্রী।

আগামী ১৭ মার্চ, ২০২০ থেকে নামজারির জন্যে কোন ম্যানুয়াল আবেদন গ্রহণ করা হবেনা। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের বছরই ভূমি অফিসে নামজারির আবেদন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ ডিজিটালাইজড করার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে আমরা বদ্ধ পরিকর - দৃঢ়তার সাথে সাইফুজ্জামান চৌধুরী এ সময় উল্লেখ করেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১ জুলাই এ আনুষ্ঠানিকভাবে সারাদেশের ৪৮৫টি উপজেলা ভূমি অফিস ও সার্কেল অফিসে এবং ৩৬১৭ টি ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ই-নামজারি কার্যক্রম বাস্তবায়িত হয়েছে। কিছু কিছু অঞ্চলে ইন্টারনেট সংযোগ ও বিদ্যুৎ সংযোগ অপ্রতুল হবার কারণে অনলাইনের বদলে ম্যানুয়াল আবেদনপত্র (কাগজে) গ্রহণ করা হচ্ছে। যেসব ভূমি অফিসে এখনও বিদ্যুৎ সুবিধা অপ্রতুল সেসব অফিসে সৌর বিদ্যুৎ সিস্টেম স্থাপন করে ই-নামজারি চালু করা হবে।

মতবিনিময় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার-২ আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল এবং কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (কউক) চেয়ারম্যান লে. কর্নেল (অব.) ফোরকান আহমেদ। এছাড়াও আরও উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার আওয়ামী লীগ-এর সহ-সভাপতি রেজাউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসেদুল হক রাশেদ, আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট আব্বাস উদ্দীন চৌধুরী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এম এ মনজুর সহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকবৃন্দ।

মতবিনিময় সভায় অংশ নেওয়ার পর `২য় জাতীয় কমিউনিটি বেইজড স্কাউট ক্যাম্প`-এর মহা তাঁবু জলসা ও সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করতে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী কক্সবাজার জেলার টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ট্যুরিজম পার্কের উদ্দেশ্যে রওনা হন।