ঢাকা, বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ২ আষাঢ় ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

শরিকদের আবদার…

জাহিদ আব্দুল্লাহ
প্রকাশিত: ২০ জুলাই ২০১৭ বৃহস্পতিবার, ০৭:৫৯ এএম
শরিকদের আবদার…

এখনো দেড় বছর বাকি। কিন্তু এরই মধ্যে নির্বাচনের হাওয়া লেগেছে রাজনৈতিক দলগুলোর জোটে। কে কতোটি আসনে প্রার্থী দেবে এই নিয়ে দর কষাকষি শুরু হয়ে গেছে। আসন নিয়ে দরাদরি দেখা গেছে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলেও। আর এই নিয়ে জোটের দলগুলোর সঙ্গে আওয়ামী লীগের সম্পর্ক হয়ে পড়েছে শীতল।

সম্পর্কের টানাপোড়েনের শুরুটা হয়েছে বামসহ জোটের দলগুলোর অনেকগুলো নির্বাচনী আসনে প্রার্থী দেওয়ার আবদারে। দলগুলো যত আসনে প্রার্থী দিতে চাচ্ছে তা কোনোভাবেই মানছে রাজি নয় নেতৃত্বে থাকা আওয়ামী লীগ।

১৪ দলের শীর্ষ পর্যায় সূত্রে জানা গেছে, শরিকদের মধ্যে থাকা হাসানুল হক ইনুর নেতৃত্বাধীন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) আগামী নির্বাচনে ৩০ টি আসনে প্রার্থী দিতে চায়। রাশেদ খান মেননের নেতৃত্বাধীন ওয়ার্কাস পার্টি এবং দিলীপ বড়ুয়ার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ সাম্যবাদী দলও ৩০ টি করে আসনে প্রার্থী দেওয়ার আবদার করেছে। আর শরীফ নূরুল আম্বিয়ার নেতৃত্বধীন জাসদ ২৫টি এবং হাজি আবদুস সামাদের গণ আজাদী লীগ ২০ টি আসনে প্রাথী দিতে ইচ্ছুক। শরিকের অন্যান্য দলগুলোর আবদারও নিজেদের সামথ্যের তুলনায় বেশি।

পূর্বের জাতীয় নির্বাচনগুলোতে দলগুলোর সাফল্যে (?) কোনোভাবেই এসব দাবিকে মেনে নেওয়ার পক্ষপাতী নয় আওয়ামী লীগ।

১৪ দলের সমন্বয়ক এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, গ্রামে একটি কথা প্রচলিত কামান চাইলে দেওয়া হয় বন্দুক। শরিকরা আবদার করতেই পারে। তবে এর কতোটা পূরণ হবে তা সময়ই বলে দেবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, লন্ডন থেকে বিএনপি নেতৃত্ব দেশে ফিরে আসুক। এরপর তাঁদের সিদ্ধান্তের ভিত্তিতেই কর্মপরিকল্পনা ঠিক করা হবে। জোটবদ্ধ হয়ে প্রার্থী দেওয়া হবে কি না সেই বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে সবসময়ই চেষ্টা থাকবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সবাইকে নিয়ে একসঙ্গে পথচলা ও সামনে এগিয়ে যাওয়া।


বাংলা ইনসাইডার/ জেডএ

বিষয়: আওয়ামী-লীগ