ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যুতে মন্ত্রী-এমপিসহ বিভিন্ন মহলের শোক

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৩ জুলাই ২০২০ সোমবার, ০৬:০৮ পিএম
নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যুতে মন্ত্রী-এমপিসহ বিভিন্ন মহলের শোক

দেশের অন্যতম শীর্ষ ব্যবসায়ী, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন সরকারের মন্ত্রী-এমপি, বিরোধীদলীয় উপনেতাসহ বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তি। মরহুমের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান তারা।

বাবুলের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। মন্ত্রী শোকবার্তায় দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে বিশেষত শিল্পবিকাশে বাবুলের অবদান স্মরণ করে বলেন, দেশ একজন আধুনিক চিন্তার সাহসী উদ্যোক্তাকে হারাল।

কাদের বলেন, স্বাধীনতা পরবর্তীকালে শিল্প ও সেবাখাতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার মাধ্যমে তিনি সৃষ্টি করেন ব্যাপক কর্মসংস্থান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এক শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

এছাড়াও তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য তোফায়েল আহমেদ, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, িঅর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক, পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের ও বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এছাড়া নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যুতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ব্যারিষ্টার ফজলে নূর তাপস গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন।

বহু মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টিকারী ও দুটি প্রথম সারির গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠায় অবদান রাখা নুরুল ইসলাম বাবুলকে কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেন দ্য এডিটরস গিল্ডের সভাপতি মোজাম্মেল বাবু। এছাড়া অ্যাটকো, বিজেসিও শোক জানিয়েছে।

সোমবার (১৩ জুলাই) রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে (সাবেক অ্যাপোলো) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন এই শিল্পপতি। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এই হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর।