ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

আগস্ট ঘিরে ৫ টেনশন

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ৩১ জুলাই ২০২০ শুক্রবার, ০৭:৫৯ পিএম
আগস্ট ঘিরে ৫ টেনশন

কাল থেকে শুরু হচ্ছে শোকের মাস আগস্ট। আগস্ট যেমন বাঙালির শোকের মাস, তেমনি আতঙ্কের মাস। প্রতি বছরই আগস্টে কিছু না কিছু ঘটনা ঘটে যে ঘটনাগুলো আতঙ্ক-উদ্বেগের এবং বিষাদের। আগস্ট মাস এলেই তাই বাঙালি অজানা আতঙ্কে থাকে যে এই আগস্ট মাসেই আবার যেন কি হবে। আর এইরকম পরিস্থিতেই এবার আগস্ট মাস আসছে আরো ভিন্ন রূপে। বিভিন্ন সঙ্কটে জর্জরিত দেশ, শোকের মাসকে বরণ করে নিচ্ছে অনেকগুলো টেনশন, উৎকণ্ঠা, অস্বস্তি নিয়ে। এবারের আগস্ট মাস নিয়ে যে পাঁচটি টেনশন বা উৎকণ্ঠা বাঙালির আছে তাঁর মধ্যে রয়েছে-

১. করোনার দ্বিতীয় ঢেউ

গত মার্চ থেকেই বাংলাদেশে করোনার প্রকোপ শুরু হয়েছে এবং পাঁচ মাস হতে চললেও করোনা এখনো দাপটের সঙ্গে রয়েছে আর করোনা পরিস্থিতি কবে শেষ হবে বা কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে সে সম্পর্কে আমাদের কাছে কোন সুনির্দিষ্ট তথ্য নেই। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর যে যে প্রক্ষেপণ করেছিল তা ছাড়িয়ে গেছে বহু আগেই, এখন সকলে যেন হাল ছেঁড়ে দিয়েছে। এর মধ্যেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঈদ, মানুষ ঈদে বাড়ি যাচ্ছে, কোরবানি দেবে এবং এই সমস্ত কারণেই বাংলাদেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হতে পারে বলে আশংকা করছেন বিশেষজ্ঞরা। বিশেষজ্ঞরা এটাও বলছেন যে, আগস্টে বোঝা যাবে বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি আসলে কোনদিকে মোড় নিচ্ছে।

২. বন্যা

১৯৮৮ এবং ১৯৯৮ এর মতো বন্যার পূর্বাভাস দিয়েছে আবাহাওয়াবিদরা। তাঁরা বলেছেন যে, আমাদের বন্যা দীর্ঘস্থায়ী হতে পারে এবার। একই বক্তব্য দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি এবার দীর্ঘস্থায়ী বন্যার জন্য প্রস্তুতি নেওয়া এবং মানুষ যেন ত্রাণ তৎপরতা থেকে বঞ্চিত না হয় তা নিশ্চিত করার জন্যে নির্দেশনা দিয়েছেন। পুরো আগস্ট মাস জুড়ে এই বন্যা আরেকটি উৎকণ্ঠা তৈরি করবে সকলের জন্য।

৩. জঙ্গী এবং সন্ত্রাসী হামলা

ইতিমধ্যে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাগুলোর পক্ষ থেকে জঙ্গীহামলা হতে পারে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। এই পূর্বাভাসের পরপরই পল্লবী থানায় একটি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে, যার দায় স্বীকার করেছে আইএস। যদিও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুস্পষ্টভাবে বলেছে যে এটা আইএসের ঘটনা নয়, তারপরেও আগস্ট মাসেই বিভিন্ন সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা এবং নানারকম জঙ্গী হামলার ছোটখাটো ঘটনা ঘটতেই থাকে। একাত্তরের পরাজিত শক্তি এবং ১৫ই আগস্টের অপশক্তি একাট্টা হয়ে বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করতে চায় এবং এজন্যে তাঁরা বেছে নেয় এই আগস্ট মাসকে এবং এবারও আগস্টে পুলিশ বাড়তি সতর্কতার ভেতর থাকবে বলে জানিয়েছে। যদিও আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে, জঙ্গীদের বড় ধরনের হামলা করার শক্তি নেই, কিন্তু তারপরেও এক্ষেত্রে তাঁরা সতকর্তা অবলম্বন করছে। যদিও প্রতি বছরের মতো এই বছরেও আগস্ট মাসে বাড়তি সতর্কতা নেওয়া হবে বলে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা জানিয়েছে। প্রতি বছরের মতো এই বছরেও আগস্ট মাসে সন্ত্রাসী হামলার আশংকা টেনশনের বড় কারণ হিসেবে থাকবে।

৪. দুর্নীতিবিরোধী অভিযান

আগস্টেই বোঝা যাবে যে, সরকার করোনার সময়ে যে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান শুরু করেছিল সেই অভিযানের পরিণতি কি এবং কোথায় গিয়ে তাঁর ফলাফল ঠেকবে। আমরা এর আগেও দেখেছি যে, ক্যাসিনো কাণ্ড নিয়ে যে শুদ্ধি অভিযান শুরু হয়েছিল তা একটা পর্যায়ে গিয়ে থেমে গেছে। এখন এই দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে জেকেজির আরিফ, জেএমআই’য়ের আব্দুর রাজ্জাকসহ যারা আটক হয়েছেন বা যাদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালিত হচ্ছে তাঁর কি হবে সাধারণ মানুষ তা দেখতে চায়। সাধারণ মানুষ প্রত্যাশা করে যে দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে শক্ত হাতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং যারাই দুর্নীতিবাজ তাঁদের আইনের আওতায় এনে দুর্নীতি বন্ধে প্রধানমন্ত্রীর যে অঙ্গীকার তা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে দৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। আগস্ট মাসে এই দুর্নীতিবিরোধী অভিযান নিয়েও মানুষের আগ্রহ এবং উৎকণ্ঠা থাকবে।

৫. রাজনীতির মেরুকরণ

আগস্টে বাংলাদেশের রাজনীতির একটা নতুন মেরুকরণের ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। এইসময় বেগম খালেদা জিয়ার জামিনের মুক্তির মেয়াদ বাড়ছে কিনা সে ব্যাপারে যেমন সিদ্ধান্ত হবে তেমনি সরকার তাঁর মন্ত্রিসভার পরিবর্তন করবে কিনা, রাজনীতিকে সচল করার জন্যে আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক উদ্যোগ নেবে কিনা এবং বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো করোনাসহ বিভিন্ন সঙ্কট নিয়ে সরকারবিরোধী আন্দোলনে নামবে কিনা এমন প্রশ্ন উঠেছে। আর এইসমস্ত মেরুকরনগুলো স্পষ্ট হবে এই আগস্টে।

আর এই সবকিছু নিয়ে সরকারের মধ্যে, জনগণের মধ্যে এবং সর্বত্রই কিছু উৎকন্ঠা এবং টেনশন থাকবে।