ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

আবারো স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ‘শব্দ বোমা’

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৫ আগস্ট ২০২০ শনিবার, ০৬:৪৮ পিএম
আবারো স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ‘শব্দ বোমা’

একের পর এক বিতর্কিতম অযাচিত বক্তব্য দিয়ে আলোচিত সমালোচিত স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। সেই সমালোচনার ধারা তিনি অব্যাহত রেখেছেন। আজ ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল। জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে স্বাভাবিকভাবে সকলে প্রত্যাশা করেছিলে যে জাতির পিতাকে স্বরণের মধ্য দিয়ে এই আলোচনা চলবে। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। আলোচনা সভায় স্বাস্থ্য সচিব মো. আবদুল মান্নান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান, বিএমএর’র সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রীর সাবেক স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্টা অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলীসহ স্বাস্থ্যক্ষেত্রের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা আলোচনায় অংশ নেন।  

কিন্তু মন্ত্রী আলোচনায় অংশ নিয়েই শুরু করেন ভিন্ন কথাবার্তা। এই শোক দিবসের দিনে তিনি আরেকটি ‘শব্দ বোমা‘ জাতির উদ্দেশ্যে নিক্ষেপ করেন। সেই ‘শব্দ বোমা’য় তিনি বলেন, করোনা কিছুদিনের মধ্যেই চলে যাবে। ভ্যাকসিনের প্রয়োজন নাও হতে পারে।

এই বক্তব্য তিনি কোথা থেকে পেলেন? কিভাবে পেলেন? করোনা চলে যাবে এটা কি স্বপ্নে পাওয়া কোন বানী পেয়েছেন! ভ্যাকসিনের জন্য যখন সারাবিশ্বে লড়াই চলছে। যখন বাংলাদেশ ভ্যাকসিন দৌড়ে দিকভ্রান্ত, তখন স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য পুরো জাতিকে হতাশ করেছে। অবশ্য স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এ ধরণের বিভ্রান্তিকর বক্তব্য এটাই প্রথম নয়। এর আগেও করোনা সংকটের শুরু থেকে তিনি একের পর এক দায়িত্বহীন এবং অযাচিত বক্তব্য দিয়েছিলেন। তিনি প্রথমে পিপিইকে পিপিপি বলেছিলেন। এরপর তিনি বলেছিলেন, বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা কম। তারপর তিনি বলেছিলেন বাংলাদেশের পরিস্থিতি অন্যান্য দেশের চেয়ে ভালো। সব চিকিৎসকদের পিপিই প্রয়োজন নেই বলেও তিনি বিতর্কিত হয়েছিলেন।

এ ধরণের একের পর এক বিতর্কিত বক্তব্য রাখাই যেন স্বাস্থ্যমন্ত্রীর একমাত্র কাজ হয়ে দাড়িয়েছে। তবে আজকের এই বক্তব্য নিয়ে পুরো জাতি বিস্মিত হয়েছে। কারণ বাংলাদেশে ভ্যাকসিন লাগবে না এটি ভেবে যদি স্বাস্থ্যমন্ত্রী দিবানিদ্রা দেন তাহলে পুরো জাতির সর্বনাশ হতে বেশি সময় লাগবে না।