ঢাকা, সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

জলাবদ্ধতার শিকার ৫ একর ফসলি জমি

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ শুক্রবার, ০৯:১৭ পিএম
জলাবদ্ধতার শিকার ৫ একর ফসলি জমি

 

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে ইসমাইল হোসেন নামে এক প্রবাসীর কাছে চাঁদা না পেয়ে তার ফসলি জমি কেটে নষ্ট করে ফেলার অভিযোগ উঠেছে একই এলাকার কয়েকজন স্থানীয় প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে। এতে করে জলাবদ্ধতার মুখে পড়েছে ওই প্রবাসীর ৫ একর ফসলি জমি, হুমকির মুখে রয়েছে ওই এলাকার অর্ধ শতাধিক বসতভিটেসহ নারকেল ও সুপারী বাগান। এদিকে প্রতিহিংসা ও প্রভাব খাটিয়ে স্থানীয় মতিরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অফিস সহকারি আবদুল মতিনের নেতৃত্বে এ ঘটনা ঘটে বলে শুক্রবার দুপুরে অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী পরিবারটি।

ভুক্তভোগী ইসমাঈল হোসেন ও স্থানীয়রা জানায়, কমলনগরের মতিরহাট এলাকার প্রবাসী ইসমাঈলের কাছে স্থানীয় আব্দুল মতিন বেশকিছুদিন ধরে চাঁদা চেয়ে আসছিল। চাঁদা না দেয়ার কারণে সম্প্রতি মতিন দলবলসহ প্রায় শতাধিক লোক জড়ো করে জোরপূর্বক ওই প্রবাসীর জমি কেটে ড্রেন তৈরি করে জোয়ারের পানি ছেড়ে দিয়ে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি করে ৫ একর ফসলি জমি নষ্ট করেছে। এতে ওই প্রবাসীর বাড়ীসহ একাধিক বাড়ীর যাতায়াতের পথ নষ্ট হয়ে গেছে, সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতার।

ওই প্রবাসীর মা ছালেহা বেগম জানান, মতিন ও তার সহযোগিরা প্রতিহিংসাবশত তাদের ৫ একর জমি নষ্ট করেছে। এজন্য তিনি প্রশাসনের কাছে ন্যায় বিচার দাবী করেন।

এদিকে অভিযুক্ত আবদুল মতিন জানান, জমি কর্তনের সময় আমি নেতৃত্বে ছিলাম না। তবে ঘটনার সময় উপস্থিত ছিলাম। আর এসংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশ না করার জন্য তিনি এপ্রতিবেদককে অনুরোধ করেন।

কমলনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বাপ্পী জানান, কেউ কারো জমি কেটে বিনষ্ট করা কোন ভাবে উচিত হয়নি। তবে উভয় পক্ষকে ডেকে একটা সমাধানের চেষ্টা করার কথা জানান তিনি।