ঢাকা, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৬ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে তিন অভিযোগ সরকারের

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট ২০১৭ বৃহস্পতিবার, ০৮:০০ পিএম
প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে তিন অভিযোগ সরকারের

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিন্‌হার বিরুদ্ধে অসদাচরণের তিন অভিযোগ উত্থাপন করছে সরকার। এই অভিযোগ সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলে তদন্তের জন্য রাষ্ট্রপতিকে আনুষ্ঠানিক ভাবে চিঠি দেবে সরকার। চিঠি প্রস্তুত করবেন অ্যাটর্নি জেনারেল, আইন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন নিয়ে তা পাঠানো হবে রাষ্ট্রপতির কাছে। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে সংবিধানের ৯৬ (৫) (খ) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি বিষয়টি তদন্ত করার জন্য সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলকে নির্দেশ দেবেন। তবে, এ ধরনের অসদাচারণের অভিযোগ আনুষ্ঠানিক উত্থাপনের আগে প্রধান বিচারপতি যদি পদত্যাগ করেন তবে সরকার আর আনুষ্ঠানিক অভিযোগ উত্থাপন করবে না।

অসদাচরণের যে তিনটি অভিযোগ সরকার উত্থাপন করতে চাইছে, সেগুলো হলো:-

১. যুদ্ধাপরাধে দণ্ডিত একজন আসামির ডেথ রেফারেন্স আপিল বিভাগে বিচারাধীন থাকা অবস্থায়, দণ্ডিত ব্যক্তির পরিবারের সঙ্গে ‘বৈঠক’। সরকার মনে করছে, এর মাধ্যমে তিনি বিচারপতিদের যে আচরণবিধি তা লঙ্ঘন করেছেন। ডেথ রেফারেন্স বিচারাধীন থাকা অবস্থায় আসামি পক্ষের পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাৎ গুরুতর অসদাচারণ বলে সরকার মনে করছে।

২. একজন আবেদকারীর অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে আপিল বিভাগের বেঞ্চ পরিবর্তন। ওই আবেদনকারী প্রধান বিচারপতিকে অনুরোধ করেন যে, বাড়ি সংক্রান্ত তাঁর মামলার শুনানির জন্য যেন একজন নির্দিষ্ট বিচারপতিকে বেঞ্চে না রাখেন। কোর্টের বাইরে এ ধরনের অভিযোগ পক্ষপাতপূর্ণ এবং তা অসদাচারণের পর্যায়ে পড়ে। ওই আবেদনকারীর অনুরোধে তিনি বেঞ্চ পরিবর্তন করেন।

৩. প্রধান বিচারপতি থাকাকালীন সময়ে আদালতের বাইরে রাজনৈতিক এবং উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রদান যা একজন বিচারপতির আচরণের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। সরকার পক্ষ থেকে এধরনের একাধিক বক্তব্যের অডিও এবং ভিডিও সংগ্রহ করা হয়েছে।

সংবিধানের ৯৬ (৬) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, এসব অভিযোগ সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের কাছে এলে, তারা এ বিষয়ে তদন্ত করবেন। সংবিধানে ৯৬ (৭) অনুযায়ী তদন্তের জন্য কাউন্সিল স্বীয় কার্যপদ্ধতি নির্ধারণ করবেন।

ষোড়শ সংশোধনী রায় বাতিলের পর সুপ্রিম কোর্টের রায়ে সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল পুন:স্থাপনের কথা বলা হয়। প্রধান বিচারপতি রায়ের পরপরই কাউন্সিলের একটি সভা আহ্বান করেন। সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল প্রধান বিচারপতির নেতৃত্ব হলেও তাঁর বিষয়ে অভিযোগ তদন্ত করবেন, আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ তিন বিচারপতি।

সরকারের একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে, প্রধান বিচারপতিকে সরে যেতেই হবে। তবে, অসদাচারণের অভিযোগ এড়াতে তিনি চাইলে পদত্যাগও করতে পারেন। সংবিধানের ৯৬ (৮) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী প্রধান বিচারপতি রাষ্ট্রপতির কাছে তাঁর পদত্যাগ পেশ করতে পারেন। বঙ্গভবন সূত্র নিশ্চিত করেছে, যেকোনো সময়ে রাষ্ট্রপতি প্রধান বিচারপতিকে বঙ্গভবনে আমন্ত্রণ জানাতে পারেন। সেখানে মহামান্য রাষ্ট্রপতি পুরো বিষয়টি নিয়ে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে কথা বলবেন। এরপরই নির্ধারিত হবে, আসলে প্রধান বিচারপতি এবং সরকারের টানাপোড়েনের পরিণতি কী।

বাংলা ইনসাইডার/জেডএ