ঢাকা, শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

জাতির সব ক্রান্তিকালে সশস্ত্র বাহিনী গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২০ শনিবার, ০৭:৫০ পিএম
জাতির সব ক্রান্তিকালে সশস্ত্র বাহিনী গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে

সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাষণ দেন। যা বাংলাদেশ টেলিভিশনসহ বেসরকারি টেলিভিশন এবং রেডিওতে একযোগে প্রচার করা হয় ।  

ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন ,`মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্য দিয়ে যে ক্ষুদ্র পরিসরে সশস্ত্র বাহিনী জন্ম হয়েছিল। তা আজ বিশাল প্রতিষ্ঠানে পরিচিত হয়েছে। স্বাধিনতার পর-পরই জাতির পিতা একটি উন্নত ও পেশাদার সশস্ত্র বাহিনীর প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করেছিলেন। সে লক্ষে তিনি ১৯৭৪ সালে প্রণয়ন করেছিলেন প্রতিরক্ষা নীতিমালা। যুদ্ধ বিদ্ধস্ত দেশে সিমিত সম্পদ নিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ১৯৭২ সালেই গড়ে তোলেন বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমি, কম্বাইন আর্মস স্কুল এবং সেনাবাহিনীর প্রতিটি কোরের জন্য একটি সতন্ত্র ট্রেনিং সেন্টার।` 

ভাষণে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর সকল সদস্যকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানিয়ে  শেখ হাসিনা সশস্ত্র বাহিনীর প্রতিটি সদস্য মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে দেশপ্রেম, পেশাদারিত্ব এবং নৈতিকতার আদর্শে স্ব স্ব দায়িত্ব নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করে যাবেন বলে আশা প্রকাশ করেন। জাতি গঠনমূলক বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণের পাশাপাশি জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছেন বলেও জানান তিনি। বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা মহামারিসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় এগিয়ে আসায় সশস্ত্র বাহিনীর প্রশংসা করেন।


এ ছাড়া ঐতিহাসিক এ দিনে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের সকল বীর শহীদ এবং মাতৃভূমির জন্য জীবন উৎসর্গকারী সশস্ত্র বাহিনীর শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।