ঢাকা, বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ৭ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

কেন একের পর এক বিতর্কে তাপস?

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৩ জানুয়ারি ২০২১ বুধবার, ০৬:৫৬ পিএম
কেন একের পর এক বিতর্কে তাপস?

বাংলাদেশের রাজনীতিতে ক্লিন ইমেজের অধিকারী ব্যরিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। ওয়ান-ইলেভেনের পর সব  থেকে উজ্জল এবং আলোকিত সম্ভাবনাময় রাজনীতিবীদদের অন্যতম তিনি। তিনবার ধানমন্ডী নির্বাচনী এলাকা থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। গত বছর ঢাকা দক্ষিণের মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। মেয়র নির্বাচিত হবার পর থেকেই তিনি সম্ভাবনার স্বাক্ষর রাখছেন। কিন্তু সম্ভাবনার পাশাপাশি বেশ কিছু বিতর্কেও নিজেকে জড়িয়ে ফেলছেন। এই বিতর্ক তার রাজনৈতিক জীবনের জন্য ইতিবাচক না নেতিবাচক সেই প্রশ্ন উঠেছে। তাপস যেসব বিতর্কের কেন্দ্রে, তার মধ্যে রয়েছে:

১. সাঈদ খোকন বিতর্ক : ফুলবাড়িয়ার অবৈধ দোকান পাট উচ্ছেদ নিয়ে এই বিতর্কের শুরু হয়। সাঈদ খোকন দাবী করেছেন, ফুলাবড়িয়ার দোকান বৈধ ভাবে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। উচ্ছেদ করা হচ্ছে, ব্যক্তিগত ক্ষোভ এবং আক্রোশ থেকে। এই বিতর্ক এখন প্রকাশ্য রূপ নিয়েছে।

২. মধুমতি ব্যাংক বিতর্ক : সাঈদ খোকন দাবী করেছেন যে, তাপস মেয়র হবার পর দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের টাকা তাপসের মালিকানাধীন মধুমতি ব্যাংকে রাখা হয়েছে। খোকন অভিযোগ করেন, এর ফলে তাপস অনৈতিক ভাবে লাভবান হয়েছেন। তাপস মধুমতি ব্যাংকের বিষয়টি এড়িয়ে গেছেন। তবে, তিনি পরোক্ষ ভাবে দুর্নীতির সংজ্ঞা দিয়ে বলেছেন, এটা দুর্নীতির মধ্যে পরে না।

৩. ওয়াশা বিতর্ক : তাপস মেয়র হবার পরপরই ওয়াশার এমডি তাকসিম খানের সংগে বিতর্কে জড়িয়ে পরেন। ঢাকার জলাবদ্ধতার জন্য তিনি খাল সংরক্ষণে ওয়াশার ব্যর্থতার কথা বলেন। শেষ পর্যন্ত স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের উদ্যোগে ওয়াশা থেকে খালের কর্তৃত্ব সিটি কর্পোরেশনকে দেয়া হয়। এখন তাপস কি করেন, সেটাই দেখার বিষয়।

৪. ঝুলন্ত তার বিতর্কে : ঢাকা শহরে ঝুলন্ত তার উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেয়, দুই সিটি কর্পোরেশন। এই কার্যক্রম শুরু হলে তা ইন্টারনেট সেবা প্রদানকারীদের আপত্তির মুখে পরে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার এভাবে তার সরানোর সিদ্ধান্তে আপত্তি করেন। তিনি যৌক্তিক সময় দেয়ার আবেদন করেন। এই বিতর্ক আবার নতুন শুরু হতে যাচ্ছে।

৫. দুদক চেয়ারম্যান বিতর্ক : এই বিতর্ক তাপসের মেয়র হবার আগে থেকেই। মূলত: বেসিক ব্যাংক ইস্যুতে তাপস দুদক চেয়ারম্যান ড: ইকবাল মাহমুদের পদত্যাগ দাবী করেছিলেন। সম্প্রতি আবারও ঐ দাবী করেছেন।

এই সব বিতর্কে তাপস আরও নতুন উচ্চতায় উঠবেন, নাকি বিতর্কিত হবেন, তা ভবিষ্যতই বলে দেবে।