ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ৯ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

সরকারের সেরা ৫ সাফল্য

মাহমুদুল তুহিন
প্রকাশিত: ১৫ জানুয়ারি ২০২১ শুক্রবার, ০৮:৫৮ পিএম
সরকারের সেরা ৫ সাফল্য

টানা দুই মেয়াদে আওয়ামী লীগ সরকার দ্বিতীয় বছর পার করেছে। একটি সরকারকে মূল্যায়নের জন্য দুই বছর যথেষ্ট সময়। এই দুই বছর সরকার অনেক কঠিন পথ অতিক্রম করেছে। বিশেষ করে করোনা সংক্রমণ সারা বিশ্বকে নাড়া দিয়েছে এবং করোনা সংক্রমণের ফলে পুরো বিশ্ব বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।

গত দুই বছরে যদি সরকারের কার্যক্রমগুলো মূল্যায়ন করা যায় তাহলে সরকারের ৫ টি বড় ধরনের ইতিবাচক সাফল্য দেখা যায় এবং এই সাফল্যের মূল কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

১. অর্থনৈতিক সফলতা: সরকারের সবচেয়ে বড় সাফল্য হলো করোনা পরিস্থিতিতেও দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখা। বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো করোনা সংক্রমণের সময় সবকিছুতে লকডাউনের নীতি গ্রহণ করেনি। বরং ঝুঁকি নিয়েছিল। লকডাউনে না গিয়ে বাংলাদেশ স্বাভাবিক নীতি গ্রহণ করেছিল। বাংলাদেশ বিশ্বের সবচেয়ে ব্যতিক্রম দেশ, যেখানে খুব কম সময়ের জন্য সবকিছু বন্ধ রেখেছিল। এক্ষেত্রে সরকারের প্রধান লক্ষ ছিল অর্থনৈতিক পরিস্থিতি যেন সচল থাকে সেইদিকে লক্ষ রাখা। সেটি সরকার অত্যন্ত সাফল্যের সাথে করেছে। দেখা যাচ্ছে যে, করোনার সময় যে দেশগুলো অর্থনীতিতে ভালো করেছে সেই দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম।

২. পদ্মা সেতু দৃশ্যমান: পদ্মা সেতু সরকারে বড় একটি চ্যালেঞ্জ এবং সাফল্য। নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু প্রকল্পের জন্য যে বিশাল উদ্যোগ নিয়েছিল তা এখন আর কোন স্বপ্ন নয়, বরং বাস্তবতা। পদ্মা সেতু বাংলাদেশের উন্নয়নের একটি মাইলফলক। এছড়াও মেট্রো রেল, কর্ণফুলী টানেল সহ আরও অনেক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড অব্যাহত রয়েছে।

৩. রোহিঙ্গাদের ভসানচরে স্থানান্তর: গত কয়েকবছর ধরে প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গাদের ভার বহন করছে বাংলাদেশ। মিয়ানমারের সংকট এখন বাংলাদেশের একক সংকটে পরিণত হয়েছে। রোহিঙ্গাদের একটা নিরাপদ আশ্রয় দেয়া সরকারের জন্য চ্যালেঞ্জ ছিল। বিশেষ করে ভসানচরে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে পশ্চিমা বিশ্বের আপত্তি ছিল। কিন্তু এসমস্ত আপত্তি উপেক্ষা করে সরকার যেভাবে রোহিঙ্গাদেরকে ভসানচরে নিয়ে গেছে সেটি একটি বড় ধরনের সাফল্য।

৪. করোনা মোকাবেলা: বাংলাদেশে যখন করোনা শুরু হয় তখন মনে করা হয়েছিল বাংলাদেশ করোনায় লণ্ডভণ্ড হয়ে যাবে। যেহেতু বাংলাদেশ অত্যন্ত ঘনবসতিপূর্ণ একটি দেশ এবং এদেশের মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি না মানার প্রবণতা বেশী। করোনার সময় যে বিষয়গুলো মেনে চলতে হয় সেগুলোর ব্যাপারে এক ধরণের অনীহা ছিল মানুষের মধ্যে। কিন্তু বাস্তবতা হলো যে বিশ্বের যে দেশগুলো করোনায় মোকাবেলায় সফল হয়েছে সে দেশগুলোর তালিকায় অবশ্যই বাংলাদেশ এগিয়ে। প্রথমত, বাংলাদেশে মৃত্যুর হার কম। দ্বিতীয়ত, আক্রান্তের হারও কম। এর ফলে বাংলাদেশ করোনায় মোকাবেলায় যে সফল দেশগুলো আছে, সেই সফল দেশগুলোর মধ্যে একটি হিসেবে প্রতীয়মান।

৫. দুর্নীতি বিরোধী অভিযান: বর্তমান সরকার দায়িত্ব গ্রহণ করে বলেছিল দুর্নীতির বিরুদ্ধে তারা শূন্য সহনশীলতা নীতি গ্রহণ করবে। গত এক বছরেও সরকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে দৃঢ় অবস্থান দেখিয়েছে। বিশেষ করে করোনা সংকটের সময় যেসব দুর্নীতি, অনিয়মগুলো হয়েছে সেগুলো কঠোরভাবে দমন করার জন্য সরকার যা যা করার দরকার সবকিছুই করেছে। যেমন- রিজেন্টের সাহেদ, সাবরিনা, জেএমআই এর আব্দুর রাজ্জাক, সম্প্রতি পিকে হালদার সহ এমন সব চিহ্নিত দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে সরকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকারের অবস্থানকে স্পষ্ট করেছে।