ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ৯ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

প্রধানমন্ত্রীর জন্য কেউ নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ বুধবার, ১০:১৭ এএম
প্রধানমন্ত্রীর জন্য কেউ নেই

আল জাজিরার বিতর্কিত প্রতিবেদন প্রকাশিত হবার পর এখন পর্যন্ত সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় এবং বিভাগ থেকে একাধিক প্রতিবাদ দেয়া হয়েছে এবং এসব প্রতিবাদে আল জাজিরার প্রতিবেদনকে ঢালাওভাবে মিথ্যা, বিভ্রান্তিকর বলা হয়েছে। কিন্তু পুরো প্রতিবেদন যে প্রধানমন্ত্রীকে হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে এবং প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর সম্মানহানীর উদ্দেশ্যে। সেই বিষয়টি উপেক্ষা করা হচ্ছে সবগুলো প্রতিবাদে। এখন পর্যন্ত পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে যে প্রতিবাদ দেয়া হয়েছে সেই প্রতিবাদটি ঢালাও এবং সুনির্দিষ্টভাবে কোনো বিষয় উত্থাপন করা হয়নি। শুধু ঢালাওভাবে বলা হয়েছে আল জাজিরার প্রতিবেদন মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও বানোয়াট।

সেনা সদরের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর থেকে দুটি প্রতিবাদ দেয়া হয়েছে। প্রথম প্রতিবাদে ইসরায়েল থেকে ইন্টারসেপ্ট যন্ত্রপাতি কেনার অভিযোগ খণ্ডন করা হয়েছে এবং দ্বিতীয়টিতে সেনাপ্রধানের দুই ভাইয়ের যথাযথ আইনি প্রক্রিয়ায় অভিযোগ থেকে অব্যাহতি প্রাপ্তির বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে। কিন্তু আল জাজিরার প্রতিবেদনে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং কিংবা তথ্য অধিদপ্তর থেকে অথবা আওয়ামী লীগ থেকে কোনো প্রতিবাদ দেয়া হয়নি কেন সেটি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে?। কারণ ওই প্রতিবেদনে হারিস আহমেদকে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত দেহরক্ষী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। 

আওয়ামী লীগ সভাপতিকে যারা চেনেন তারা জানেন যে শেখ হাসিনা কখনও দেহরক্ষী রাখেননি এবং এদের সঙ্গে শেখ হাসিনার কোনো যোগসূত্র বা ন্যূনতম যোগাযোগ নাই। দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য যে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং কিংবা আওয়ামী লীগের দপ্তর অথবা তথ্য অধিদপ্তর এ ব্যাপারে কোনো আনুষ্ঠানিক প্রতিবাদ জানায়নি। পুরো প্রতিবেদনটি যদি কেউ ঠান্ডা মাথায় দেখেন তাহলে বুঝতে পারবেন প্রধানমন্ত্রীকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্যই প্রতিবেদনটি করা হয়েছে অথচ এ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী এবং সরকারের যে প্রেস উইংগুলো এক ধরনের নিরবতা পালন করছে কেন সেটি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।