ঢাকা, রোববার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

একজন মুশতাক, একজন লেখক রাষ্ট্রের জন্য কতটা ভয়ংকর

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ শনিবার, ০৭:৫৯ পিএম
একজন মুশতাক, একজন লেখক রাষ্ট্রের জন্য কতটা ভয়ংকর

মুশতাক আহমেদ একজন বোহেমিয়ান লেখক। ভিন্ন চিন্তার মানুষ ও লেখক। তিনি তার চিন্তা ও ভাবনা ফেসবুকে লিখেছিলেন। এই লেখা কি এতোটাই ভয়ংকর ছিলো যে তার জন্য র‌্যাবকে তার বাড়ী থেকে তুলে নেতে হবে? মুশতাক কি পি.কে হালদারের চেয়ে ভয়ংকর ছিলেন? যে পি.কে হালদার জনগণের হাজার কোটি টাকা লুট করে এখন কানাডায় দিব্যি আরামে আছে। সেতো দিব্যি কলা দেখিয়ে চলে গেল। আইন প্রয়োগকারী সংস্থা তখন কি করেছিল?

মুশতাক কি বেসিক ব্যাংকের বাচ্চুর চেয়েও ভয়ংকর ছিলেন? যে বাচ্চু একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংককে দেউলিয়া বানিয়ে এখনো দাঁত কেলিয়ে ঘুরে বেড়ায়। মুশতাক কি রাজনৈতিক ক্যাডারদের চেয়েও ভয়ংকর ছিলেন। যে ক্যাডাররা প্রকাশ্যে অস্ত্র উঁচিয়ে গুলি করে হত্যা করে সাংবাদিক বুরহানকে?

মুশতাক কি সেই সব দুর্বৃত্ত আমলাদের চেয়েও ভয়ংকর ছিলেন? যারা ফাইল আটকে ঘুষ নিয়ে কানাডায় বিত্তের পসার ঘটায়। মুশতাক কি সেই সব ধর্মান্ধ উস্কানি দাতাদের চেয়েও ভয়ংকর ছিলেন? যারা ওয়াজের নামে উস্কানি দিচ্ছে ইচ্ছামতো। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যাদের অশ্লীল বয়ানে ভরপুর।

মুশতাক কি সেই এমপি পুত্রের চেয়েও ভয়ংকর ছিলেন? যে কিনা নৌ কর্মকর্তাকে পিটিয়ে দিব্যি জামিন পান।

কিছু লেখার জন্য একটি মানুষ নয় মাস জেল খাটলো। তার চিন্তা প্রকাশের অপরাধে তাকে তার বাড়ীতে ফিরতে হলো লাশ হয়ে। একটি লেখা তাহলে কতটা ভয়ংকর। একজন লেখক রাষ্ট্রের জন্য কতটা ক্ষতিকর।

একজন লেখক কি একজন ব্যাংক লুটেরার চেয়েও ভয়ংকর অপরাধী? একজন লেখক কি একজন দুর্নীতিবাজ আমলার চেয়ে ক্ষতিকারক? একজন লেখক কি একজন দুর্বৃত্ত রাজনীতিবিদের চেয়েও বিপদজনক?

মুশতাকের মৃত্যু আমাদের এই সব প্রশ্নের মুখোমুখি দাড় করিয়েছে। আমরা যদি ধরেও নেই মুশতাকের লেখা আপত্তিকর, উস্কানিমূলক। কিন্তু তার জন্য তাকে প্রাণ দিতে হবে? ১৪ বার জামিন চেয়েও ব্যর্থ হতে হবে? মুশতাকের মৃত্যু আমাদের সবার জন্য একটি বার্তা। কঠিন বার্তা। তাহলো, এই রাষ্ট্রে একজন লেখকই হলো সবচেয়ে ক্ষতিকর প্রাণী। একটি লেখা একটি বোমার চেয়েও বিস্ফোরক। আমরা আশা করতে চাই, মুশতাকের সংশ্লিষ্ট সকলের বোধোদয় ঘটাবে। অতি উৎসাহীদের সংযত করবে। যাদের হাত দিয়েই বড় ক্ষতিগুলো হচ্ছে সরকারের, রাষ্ট্রের। মুশতাক বা ভিন্ন চিন্তার লেখকরা নন, চাটুকার, অতি উৎসাহীরা ক্রমশ ভয়ংকর হয়ে উঠছে। এদের রুখতেই হবে।