ঢাকা, সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

কেন সেদিন মোশতাককে শপথ পড়িয়েছিলেন এইচ টি ইমাম?

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪ মার্চ ২০২১ বৃহস্পতিবার, ০৯:৩৭ এএম
কেন সেদিন মোশতাককে শপথ পড়িয়েছিলেন এইচ টি ইমাম?

এইচ টি ইমামের ৮২ বছরের বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনে একটিমাত্র কলঙ্কের তিলক ছিলো সেটি হলো ৭৫ এর ১৫ আগস্টে জাতির পিতাকে স্বপরিবারে হত্যার পর খুনি খন্দকার মোশতাককের শপথ পড়ানো। এইচ টি ইমাম ছিলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব। ৭৫ এর ১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর খুনি মোশতাক বঙ্গভবনে যে শপথ পাঠ করেছিলেন সেই অনুষ্ঠান রীতি অনুযায়ি মন্ত্রিপরিষদ সচিব করেছিলেন। ওই শপথ বাক্য পাঠ করানোর পরেই এইচ টি ইমামকে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয় এবং দীর্ঘদিন তিনি কারাভোগ করেছিলেন। 

রাজনৈতিক অঙ্গনে প্রায়ই প্রশ্ন করা হয়, কেন সেদিন তিনি খুনি মোশতাককে শপথ পাঠ করিয়েছিলেন? তার সমালোচকরা তার জীবিতকালে এ নিয়ে কম সমালোচনা করেনি। কিন্তু প্রেক্ষিত বাস্তবতা বিবেচনা করলে দেখা যায় ঐ সময় তার  হয়তো করার কিছুই ছিল না। এইচ টি ইমাম একজন সাহসী রাজনৈতিক যোদ্ধা ছিলেন না, তারুণ্যের প্রতিবাদী ছিলেন না। তিনি ছিলেন একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তা, একজন আমলা। একজন সিভিল ব্যুরোক্র্যাট অস্ত্রের মুখে কি বা করতে পারে। 

এইচ টি ইমাম তার জীবিত কালেই বলেছিলেন তাকে জোর করে অস্ত্রের মুখে বাধ্য করে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল শপথ বাক্য পাঠ করানোর জন্য। তার সামনে একটি বিকল্প ছিল মৃত্যু। হয়তো মৃত্যু এবং আপোষকামীতার এই মাঝামাঝিতে তিনি সে সময় চিন্তা শুণ্য হয়ে পড়েছিলেন এবং খুনি মোশতাকের শপথ বাক্য পাঠ করাতে বাধ্য হয়েছিলেন। তবে ঐ শপথ বাক্য পাঠ কখনোই তার রাজনৈতিক পদস্খলনের ইঙ্গিত বহন করেনা বরং বাংলাদেশের রাজনীতিতে যারা গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি তারা সংকটের সময় সাহসে রুখে দাঁড়াতে পারেন না, তারই একটি প্রমাণমাত্র। ঐ একটি রাজনৈতিক কলঙ্ক ছাড়া এইচ টি ইমামের রাজনৈতিক জীবনে কখনোই তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং আওয়ামী লীগের আদর্শ থেকে দূরে সরে যাননি। আর ঐ ঘটনাটির জন্য এইচ টি ইমামকে আদৌ দায়ী করা যায় কি না সেও রাজনৈতিক অঙ্গনে বড় প্রশ্ন বটে।