ঢাকা, শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

জাতিসংঘ অধিবেশনে ভাষণ দিতে যুক্তরাষ্ট্র যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী


প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ মঙ্গলবার, ১২:২৪ পিএম
জাতিসংঘ অধিবেশনে ভাষণ দিতে যুক্তরাষ্ট্র যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

জাতিসংঘ অধিবেশনে ১৮ তম বারের মতো ভাষণ দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুক্তরাষ্ট্র সফরের সকল কর্মসূচি চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ভাষণ দেবেন তিনি। এর আগে তিনি ১৭ বার জাতিসংঘে ভাষণ দিয়েছেন। এবার হবে ১৮তম। 

ভয়েস অব আমেরিকার জানায়, আসছে ১৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জেএফকে এয়ারপোর্টে অবতরণ করবেন। সেখানে তাকে স্বাগত জানানোর সকল প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি দলে থাকছেন- পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে এ মোমেন, বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র প্রধানমন্ত্রীর তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়, সায়মা ওয়াজেদ হোসেন পুতুল এবং সংসদ সদস্য আব্দুস সোবহান গোলাপ, পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন। এছাড়াও থাকছেন প্রধানমন্ত্রীর দফতরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

এ ছাড়া জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ভাষণের পর নিউইয়র্কে কর্মরত সাংবাদিকদের সংবাদ সম্মেলনে ভার্চুয়ালি কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পাশাপাশি প্রবাসীদের একটি সমাবেশে একইভাবে ভার্চুয়ালি বক্তব্য দেবেন তিনি। এই সমাবেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নতুন নেতৃত্বের নামও ঘোষণা করা হতে পারে। তবে বিষয়টি এখনও নিশ্চিত নয়।

এরপর শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর)  ওয়াশিংটন ডিসির উদ্দেশ্যে নিউইয়র্ক ত্যাগের কথা প্রধানমন্ত্রীর। ওয়াশিংটনে চিকিৎসার ফলোআপ ছাড়াও তিনি মার্কিন প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গের সাথে ভার্চুয়াল বৈঠকে অংশ নিতে পারেন। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর ভার্জিনিয়া এবং নিউইয়র্কে শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়েছে প্রবাসীরা।

উল্লেখ্য, করোনার কারণে একেবারেই কম প্রতিনিধি দল নিয়ে শেখ হাসিনা এবার জাতিসংঘের অধিবেশনে অংশ নেবেন। গণমাধ্যম কর্মীদের সংখ্যাও থাকছে কম। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে অধিবেশনের ডেস্কেও সীমিতসংখ্যক কূটনীতিক ও পদস্থ কর্মকর্তারা বসবেন। শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি বজায় থাকবে সবখানে। এদিকে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের যুক্তরাষ্ট্র শাখার কুইন্সে ওয়ার্ল্ডফেয়ার মেরিনা মিলনায়তনে আলাদা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে এ মোমেন।