ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৩ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

জনগণের তথ্য ভান্ডার করছে বিবিএস 


প্রকাশিত: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১ সোমবার, ১০:০৩ এএম
জনগণের তথ্য ভান্ডার করছে বিবিএস 

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) দেশজুড়ে এনপিআর করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। সংস্থাটি বলছে, এনপিআর তথ্যভাণ্ডারে শূন্য থেকে শুরু করে তথ্য থাকবে প্রত্যেক বয়সী মানুষের। এতে প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম পর্যন্ত তথ্য সংরক্ষিত থাকবে। জাতীয় জনসংখ্যা নিবন্ধনে দেশের সব মানুষের জনতাত্ত্বিক ও বায়োমেট্রিক তথ্যসহ থাকবে একটি বিশদ তথ্যভাণ্ডার। একজন মানুষের বয়স, রক্তের গ্রুপ, জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর, পেশা, ধর্ম, বর্ণ, পরিবারের সব তথ্য থাকবে তাতে।  

গতকাল রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) শেরে বাংলা-নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে এক কর্মশালায় বিষয়টি তুলে ধরা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম।

কর্মশালায় পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, এ ধরনের রেজিস্টার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটাকে সাজিয়ে গুছিয়ে উপস্থাপন করাটাই বড় চ্যালেঞ্জ। মানুষের প্রাইভেসি রক্ষার বিষয়টি বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে। বিদেশি সংস্থাগুলো আমাদের তথ্য নিয়ে বাণিজ্যিক ব্যবহার করছে। এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। রেজিস্টার খাতে অভারলেপিং না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। এতে সময় ও অর্থের অপচয় ঘটে। অর্থের অপচয় আমরা কোনো ভাবেই মানতে পারি না।

প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম বলেন, এটা একটি মাইলফলক হবে। এখানে নাগরিকদের সব তথ্যেই থাকবে। এটা জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে ডুপ্লিকেশন, ওভারলেপিং বা এ ধরনের বিষয়গুলো যাতে না হয়। সময়, খরচ ও জটিলতা এড়াতে ধীর স্থিরভাবে বসে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এই রেজিস্টার যাতে শক্তিশালী হয়। তথ্য সঠিক না হলে পরিকল্পনা সঠিক হবে না। বেইজ ইয়ার ডাটা দ্রুত ঠিক করা দরকার। জনশুমারির করছি এটা এক ধরনের শুমারি। আমাদের হাউজ হোল্ড ডাটা বেজ করেছি। সেখানেও কিছু তথ্য নেওয়া হয়েছে। হাউজ হোল্ড ডাটা বেজ এনআইডি ডাটা বেজ, জনশুমারি এবং এনপিআর সবগুলোই কিন্তু কাছাকাছি।

উল্লেখ্য, দেশে জনসংখ্যা কত, তা জানতে বিবিএস এখন জনশুমারির কাজে হাত দিয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে খরচ হবে ১ হাজার ৭০০ কোটি টাকার বেশি। আলাদা একটি জরিপের মাধ্যমে ৭২৭ কোটি টাকা খরচ করে দেশের প্রতিটি খানার তথ্য এরই মধ্যে সংগ্রহ করেছে বিবিএস।