ঢাকা, বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

আউটসোর্সিং কাজে দরকারি ৬ দক্ষতা

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৯ আগস্ট ২০২০ শনিবার, ০৯:০২ এএম
আউটসোর্সিং কাজে দরকারি ৬ দক্ষতা

করোনাকালীন এই সময়ে বাড়ছে আউটসোর্সিং কাজের চাহিদা। সেইসাথে অনলাইন এই কাজের ধরনেওও আসছে নিত্য নতুন সব পরিবর্তন। পরিবর্তনশীল বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে ভার্চুয়াল এই কাজ বাংলাদেশিরা তরুণরাও করছে। আর এতে করে কর্মসংস্থানের সুযোগ বাড়ছে এবং বাড়ছে বিভিন্ন ক্যাটাগরির কাজের সুযোগ। আর এই সমস্ত কাজ করার জন্য দক্ষতাও প্রয়োজন। তাই নতুনদের জন্য আউটসোর্সিং কাজের দরকারি ৬ টি দক্ষতা সম্পর্কে তুলে ধরা হল।

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন

ফ্রীল্যান্সিং জগতে আছেন কিন্তু এসইও এর নাম শোনেননি, এমন লোক পাওয়া দুষ্কর। কারন সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (এসইও) খুবই সাধারণ কাজ। আপনার বানানো ওয়েবসাইটকে বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন যেমন- গুগল, ইয়াহু, বিং ইত্যাদিতে প্রমোট করার মাধ্যমে তাদের সার্চ রেজাল্টে নিয়ে আসাকেই এসইও বলা হয়। নতুনদের জন্য ফ্রীল্যান্সিং শুরু করার একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হচ্ছে এসইও।

অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সাপোর্ট

এই ধরণের কাজের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের ডাটা এন্ট্রির কাজ, পার্সোনাল অ্যাসিস্ট্যান্ট, ওয়েব রিসার্চ, ইমেইল হ্যান্ডলিং ইত্যাদি অন্যতম। অন্যান্য কাজের চেয়ে এই ধরণের কাজ অনেক সহজ। সেইসাথে তুলনামূলকভাবে পেমেন্টও কিছুটা কম। কম্পিউটারের উপর ভাল দক্ষতা থাকলে আপনি অনায়াসে এই ধরণের কাজ করতে পারেন।

বিজনেজ সার্ভিস

মার্কেটপ্লেসে অ্যাকাউন্টিং, বিজনেস প্লানিং, বিজনেস কনসালটেশনের কিছু কাজ রয়েছে। ভাল মার্কেট অ্যানালাইজার হতে পারলে আপনিও এই কাজ করতে পারবেন। এগুলো মূলত অনলাইন মার্কেট গুলোর সবচেয়ে কমন কাজ। আপনি যদি ভালভাবে কাজ শিখতে পারেন তাহলে আপনিও বেশ ভাল মানের কাজ করতে পারবেন।

ডিজাইন এন্ড মাল্টিমিডিয়া

এই ধরণের কাজের মধ্যে রয়েছে গ্রাফিক্স ডিজাইন, লোগো ডিজাইন, বিজনেস কার্ড ডিজাইন, বিভিন্ন এনিমেশন তৈরি, অডিও ভিডিও সম্পাদনা, প্রেজেন্টেশন তৈরি করণ ও প্রিন্ট ডিজাইন ইত্যাদি। এই সমস্ত কাজ শিখে দক্ষতা বাড়াতে পারলে এখান থেকে বেশ অর্থ আয় করতে পারবেন।

সেলস এন্ড মার্কেটিং কাজ

সেলস এন্ড মার্কেটিং কাজের সেক্টর অনেক বড়। এর মধ্যে রয়েছে এসইও, বিজ্ঞাপন, ইমেইল-মার্কেটিং, এসএমএম বা সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং, এসইএম বা সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং, মার্কেট রিসার্চ এন্ড এ্যনালাইসিস, সেলস জেনারেশন, বিজনেস প্ল্যানিং ইত্যাদি। এই ধরনের কাজে আপনি বেশ ভাল অর্থ উপার্জন করতে পারেন।

রাইটিং এন্ড ট্রান্সলেশন

এই বিষয়ে কাজ করতে গেলে আপনাকে ইংরেজিতে বেশ দক্ষ হতে হবে। ইংরেজিতে দক্ষ হলে আপনি আর্টিকেল লিখে আয় করতে পারবেন। আর যদি আপনি বিভিন্ন দেশের ভাষা জেনে থাকেন তাহলে ট্রান্সলেশনের কাজও করতে পারেন। তবে শুধু কাজ করার জন্য আবার বিভিন্ন দেশের ভাষা শিখতে যাবেন না।