ক্লাব ইনসাইড

কুবিতে ২২ এপ্রিল থেকে ঈদের ছুটি

প্রকাশ: ০৯:৪৩ পিএম, ২১ এপ্রিল, ২০২২


Thumbnail কুবিতে ২২ এপ্রিল থেকে ঈদের ছুটি

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) ঈদ-উল-ফিতরের ছুটি শুরু হচ্ছে আগামী ২২ এপ্রিল থেকে। ছুটি চলবে ১৫ মে পর্যন্ত। তবে, দাপ্তরিক কার্যক্রম চলবে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডেপুটি রেজিস্ট্রার মোঃ দলিলুর রহমান। 

তিনি বলেন, 'ঈদ উপলক্ষে কুবির একাডেমির কার্যক্রম ২২ এপ্রিল থেকে ১৫ মে পর্যন্ত বন্ধ থাকবে এবং দাপ্তরিক কার্যক্রম ২৮ এপ্রিল থেকে ১৫ মে পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। তবে ২২ তারিখের পরও কোনো বিভাগের পরীক্ষা নেওয়া বাকি থাকলে সংশ্লিষ্ট বিভাগ তা সম্পন্ন করতে পারবে।'

উল্লেখ, বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ক্যালেন্ডারে রমজান, পহেলা বৈশাখ (বাংলা নববর্ষ), শব-ই-ক্বদর, জুমাতুল বিদা, মে দিবস, ঈদ-উল-ফিতর, গ্রীষ্মকালীন ছুটি ও বৌদ্ধ পূর্ণিমার জন্য  ছুটির কথা উল্লেখ থাকলেও, করোনার ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার জন্য রমজানেও বিশ্ববিদ্যালয় খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এছাড়া করোনার ক্ষতি পোষাতে ছয় মাসের সেমিস্টার চার মাসে করা হয়েছে। করোনায় ক্যাম্পাস দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর বিশ্ববিদ্যালয় খোলায় ক্লাস, পরীক্ষা ও অ্যাসাইনমেন্ট নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন শিক্ষার্থীরা। দীর্ঘ ছুটি পেয়ে মা-বাবার সঙ্গে ছুটি কাটাতে এরই মধ্যে হল ছাড়তে শুরু করেছেন শিক্ষার্থীরা।

কুবি   ঈদের ছুটি  


মন্তব্য করুন


ক্লাব ইনসাইড

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে সায়েন্স ক্লাবের যাত্রা শুরু


Thumbnail ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে সায়েন্স ক্লাবের যাত্রা শুরু

''এক্সপ্লোর ইয়োর ক্রিয়েটিভিটি'' স্লোগানকে সামনে রেখে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেছে 'সায়েন্স ক্লাব'। 

সোমবার (০৩ অক্টোবর) ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. শাহজাহান আলী এবং উপদেষ্টা এপ্লাইড কেমিস্ট্রি এন্ড কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মিনহাজ উল হক ও ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন টেকনোলোজি বিভাগের ড. মোঃ শরিফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সংগঠন সূত্রে, গত ১লা অক্টোবর ক্লাবের উপদেষ্টাগণের অনুমোদনক্রমে সায়েন্স ক্লাবের যাত্রা শুরু হয়। ক্লাবের অন্য উপদেষ্টারা হলেন, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জয়শ্রী সেন, ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোঃ খালিদ হোসেন জুয়েল, ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাম্মী আক্তার এবং ইনভায়রনমেন্টাল সায়েন্স অ্যান্ড জিওগ্রাফি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ. ইনজামুল হক (সজল)।

ক্লাবটির প্রধান উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মোঃ শাহজাহান আলী বলেন, একাডেমিক পড়াশোনার পাশাপাশি এক্সটা কারিকুলার অ্যাক্টিভিটিস শিক্ষার্থীদের জ্ঞান ও মেধার বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের দক্ষ করে তুলতে এই ধরনের ক্লাবের বিকল্প নেই।

ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী শফিকুল ইসলামকে সভাপতি এবং একই বিভাগের আরমান হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে ক্লাবের ৫ সদস্যের একটি আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, সহ-সভাপতি বায়োমেডিকেল ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের শাহ্ মুহাম্মদ নাঈম, যুগ্ম সম্পাদক বায়োটেকনোলজি এন্ড জেনেটিক ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের নুরুন নেছা জামান এবং কোষাধ্যক্ষ এপ্লাইড কেমিস্ট্রি এন্ড কেমিক্যাল ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী মোঃ মহসিন আলী।

এ বিষয়ে ক্লাবের সভাপতি শফিকুল ইসলাম বলেন, মূলত জ্ঞান-বিজ্ঞান চর্চার জন্যই এই ক্লাব প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে। ক্লাবটি প্রতিবছর বিজ্ঞান মেলার আয়োজন করবে এবং বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক অলিম্পিয়াড, কনটেস্ট, কুইজ আয়োজন করে শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞানের প্রতি আগ্রহী করে তুলবে। এছাড়াও জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর এর সহযোগিতায় ভ্রাম্যমাণ জাদুঘর প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করবে।

সাধারণ সম্পাদক আরমান হোসেন বলেন, আধুনিক বিজ্ঞানের সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্য বিজ্ঞানচর্চার বিকল্প নেই। বৈজ্ঞানিক ম্যাগাজিন ও জার্নাল প্রকাশ, বিজ্ঞানভিত্তিক সভা সেমিনার আয়োজন, সামাজিক সমস্যা চিহ্নিত করে বিজ্ঞানভিত্তিক বাখ্যা ও সমাধান, বিজ্ঞান চর্চার যথাযথ সুবিধা ও ক্ষেত্র তৈরী হলো সায়েন্স ক্লাবের অন্যতম উদ্দেশ্য।



মন্তব্য করুন


ক্লাব ইনসাইড

হাবিপ্রবিতে বাংলাদেশে প্রথম ভেটেরিনারি অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত

প্রকাশ: ০৫:৫০ পিএম, ০১ অক্টোবর, ২০২২


Thumbnail হাবিপ্রবিতে বাংলাদেশে প্রথম ভেটেরিনারি অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ভেটেরিনারি অনুষদ এবং জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) আয়োজনে বাংলাদেশে প্রথমবারের মত ভেটেরিনারি অলিম্পিয়াড-২০২২ অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
 
আজ শনিবার (১ অক্টোবর) সকাল ১০ টায় হাবিপ্রবির টিএসসির সম্মুখে উক্ত অলিম্পিয়াডের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. তাহেরা ইয়াসমিন।

আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রেজিস্টার অধ্যাপক ড. মো. সাইফুর রহমান, আইআরটি'র পরিচালক অধ্যাপক ড. এস এম হারুন উর রশীদ, আইকিউএসি'র পরিচালক অধ্যাপক ড. বিকাশ চন্দ্র সরকার, জনসংযোগ ও প্রকাশনা শাখার পরিচালক অধ্যাপক ড. শ্রীপতি সিকদার, প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. মামুনুর রশিদ, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ড. ইমরান পারভেজ, এফএও এর প্রতিনিধি এবং শিক্ষার্থীরা সহ অন্যান্যরা। প্রথমবারের মতো আয়োজিত উক্ত অনুষ্ঠানে অনলাইনে ১২ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬৮টি দল অংশগ্রহণ করে এবং অনুষ্ঠানটি ১২ টি বিশ্ববিদ্যালয়ে একযোগে শুরু হয়।  

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, আজ থেকে দেশে ভেটেরিনারি অলিম্পিয়াড এর যাত্রা শুরু হল। ভেটেরিনারি শিক্ষাকে আরও যুগোপযোগী ও আধুনিক করতে আজকের এই অলিম্পিয়াড গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে এবং দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে কাজ করবে।  

এ সময় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষার্থীরা কয়েকটি ধাপে বিভিন্ন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। এরপর দুপুর ৩ টায় বিজয়ী ও অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের মাঝে সার্টিফিকেট প্রদানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।


মন্তব্য করুন


ক্লাব ইনসাইড

কুবি ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে ধোঁয়াশা

প্রকাশ: ১২:৫৩ পিএম, ০১ অক্টোবর, ২০২২


Thumbnail কুবি ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে ধোঁয়াশা

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্তি নাটকীয়তায় পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কমিটি বিলুপ্তির কথা জানানো হলেও ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বলছেন কমিটি বিলুপ্ত করা হয়নি। 

গতকাল শুক্রবার রাত ১২টার দিকে মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত করা হয়েছে এমন একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দেখা যায় ছাত্রলীগের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ, সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতাদের ফেসবুক ওয়ালে। যদিও পরবর্তীতে ছাত্রলীগের অফিসিয়াল পেজ ও সাধারণ সম্পাদক বিজ্ঞপ্তিটি সরিয়ে নেয়। এদিকে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কুবি ক্যাম্পাস জুড়ে সৃষ্টি হয়েছে ধোঁয়াশা।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত সংক্রান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য ও দপ্তর সম্পাদক ইন্দ্রনীল দেব শর্মা রনি।

এবিষয় জানতে সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের সাথে যোগাযোগ করা হলে এক খুদে বার্তায় তিনি জানান, কমিটি বিলুপ্ত করা হয় নাই। সম্মেলন আয়োজন করা হবে। তারিখ নির্ধারণ হলে জানানো হবে।

দপ্তর সম্পাদক ইন্দ্রনীল দেব শর্মা রনি জানান, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিটির ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি এখনও। প্রেস বিজ্ঞপ্তিটি ভুল হয়েছে। কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে সম্মেলনে কমিটি হবে।

তবে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় এবং কর্মসূচি ও পরিকল্পনা সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন নিজের ফেসবুক ওয়ালে কমিটি বিলুপ্তির বিজ্ঞপ্তি শেয়ার করেছেন।

এ বিষয়ে জানতে সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয়কে মুঠোফোনে ও ক্ষুদেবার্তা পাঠিয়ে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও পাওয়া যায়নি।

কর্মসূচি ও পরিকল্পনা সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি তার ফেসবুক স্ট্যাটাস দেখতে বলেন। পরে আবারও যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, প্রেস রিলিজ হয়েছে কমিটি বিলুপ্তের। এখন পর্যন্ত আমরা এটাই জানি। পরবর্তীতে কোনো আপডেট পাইনি যে এরকম কোনো সিদ্ধান্ত পরিবর্তন হয়েছে কিনা।

এর আগে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পেজ থেকে 'কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত' সংক্রান্ত একটি স্ট্যাটাস দেয়ার পর বিজ্ঞপ্তিটি মুছে ফেলা হয়। 

এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উপ-সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক ফাহিম হাসান লিমন জানান, সম্মেলনের তারিখসহ আরেকটি প্রেস রিলিজ আসবে, সেজন্য আগেরটি সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হলো। 

সেই সাথে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নতুন কমিটিতে সভাপতি/সাধারণ সম্পাদক পদে আগ্রহী পদ-প্রত্যাশীদের নিকট থেকে আগামী ১০ (দশ) কার্যদিবসের মধ্যে নিম্নোক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতৃবৃন্দের কাছে জীবনবৃত্তান্ত জমা দেয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো।


ক্যাম্পাস   কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়   কুবি ছাত্রলীগ   কমিটি   বিলুপ্ত  


মন্তব্য করুন


ক্লাব ইনসাইড

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে ৭৬ ছাত্রীকে ছাত্রলীগের সাইকেল উপহার

প্রকাশ: ০৯:৪৫ পিএম, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২


Thumbnail প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে ৭৬ ছাত্রীকে ছাত্রলীগের সাইকেল উপহার

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে ৭৬ জন শিক্ষার্থীকে বাইসাইকেল উপহার দিয়েছে ছাত্রলীগ। প্রধানমন্ত্রীর ৭৬তম জন্মদিনকে স্মরণীয় রাখতে এই বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে টিএসসিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) পাঁচটি ছাত্রী হল, ইডেন কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ এবং গভর্নমেন্ট কলেজ অফ অ্যাপ্লাইড হিউম্যান সায়েন্স কলেজের ৭৬ মেধাবী ছাত্রীকে এ উপহার দেয়া হয়।

ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয়ের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মো. সিদ্দিকুর রহমান। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, শহীদ বুদ্ধিজীবীর সন্তান ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডা. নুজহাত চৌধুরী। এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। কর্মসূচির সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ইমরান জমাদ্দার এবং উপ-ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ফারুক আহম্মেদ ও আনোয়ার হোসেন।

অনুষ্ঠানে অতিথিরা ‘দুর্যোগ দুর্বিপাকে; সংকট সংশয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ’ ম্যাগাজিনের মোড়ক উন্মোচন করেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রথমে ছাত্রীদের মাঝে বাইসাইকেল উপহারের জন্য আবেদন ফর্ম বিতরণ করা হয়। দীর্ঘ যাচাই-বাছাইের পরে চূড়ান্তভাবে ৭৬ জন ছাত্রীর মাঝে ক্রমিক নম্বর সংবলিত টোকেন প্রদান করা হয়। ৭৬ জন ছাত্রীর সকলেই প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে ‘জন্মদিনের শুভেচ্ছা চিঠি’ লিখেন। তাদের মধ্য থেকে সেরা ১০ জনকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লেখা বই উপহার দেয়া হয়।

আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান বলেন, সামনে নির্বাচন, এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নানা ধরনের অপপ্রচার চালানোর চেষ্টা করবে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগসহ সকল সহযোগী সংগঠনের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে, ঐক্যবদ্ধ থাকলে আগামী নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে কেউ হারাতে পারবে না। 

আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের গৌরবময় ইতিহাস যারা রুখে দিতে চায়, তাদের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগ রুখে দাঁড়াবে। যারা এই ঐতিহ্যবাহী সংগঠনকে কলঙ্কিত করতে চায়, সে ঘরের শত্রু হোক কিংবা বাইরের- তাদের বিরুদ্ধে সজাগ থাকতে হবে। সতর্ক থাকতে হবে।’

ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি এই উন্নয়ন অর্জন সহ্য করতে পারছে না। তারা নানা রকম বিভ্রান্ত তথ্য ছড়ানো শুরু করেছে। এ ব্যাপারে ছাত্র সমাজকে সজাগ ও সতর্ক থাকতে হবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের উন্নয়ন ও অর্জনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে এবং ছাত্রলীগের ভাবমুর্তি ক্ষুণ্ন করতে সংগঠনের ভেতরে একটা ক্ষুদ্র শ্রেণি উঠেপড়ে নেমেছে। তাদের আসল উদ্দেশ্য কী আমরা খতিয়ে দেখব।

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে বলেই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। স্বাধীনতার পর দেশের যত উন্নয়ন সবকিছু আওয়ামী লীগের হাত ধরেই হয়েছে। সামনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন, এই নির্বাচনেও আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে ছাত্রলীগকে মানুষের ঘরে ঘরে যেতে হবে। তিনি বলেন, একটা শ্রেণি ছাত্রলীগকেই ভয় পায়। কারণ তারা জানে ছাত্রলীগ হচ্ছে জননেত্রী শেখ হাসিনার ভ্যানগার্ড। ছাত্রলীগকে ক্ষতিগ্রস্ত করা গেলে স্বাধীনতা বিরোধীরা সুবিধা পাবে। কিন্তু ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে সজাগ থাকতে হবে। বিরোধী পক্ষকে সমালোচনার সুযোগ সৃষ্টি করতে কোন ইস্যু তুলে দেওয়া যাবে না।


মন্তব্য করুন


ক্লাব ইনসাইড

হাবিপ্রবিতে শুদ্ধাচার প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

প্রকাশ: ০১:০২ পিএম, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২


Thumbnail হাবিপ্রবিতে শুদ্ধাচার প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি এস্যুরেন্স সেলের (আইকিউএসি) আয়োজনে “শুদ্ধাচার সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ” কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ডীন ও চেয়ারম্যানগণের অংশগ্রহণে বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৯ টায় আইকিউএসি কনফারেন্স রুমে জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশলের অংশ হিসেবে উক্ত প্রশিক্ষণ কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়। 

উক্ত প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হাবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. কামরুজ্জামান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আইকিউএসি'র পরিচালক অধ্যাপক ড. বিকাশ চন্দ্র সরকার এবং সঞ্চালনা করেন আইকিউএসি'র অতিরিক্ত পরিচালক অধ্যাপক ড. মোঃ শাহ্ মইনুর রহমান। কর্মশালায় রিসোর্স পার্সন হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইকিউএসি'র পরিচালক অধ্যাপক ড. কামরুল আলম খান। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. কামরুজ্জামান বলেন, একটি দেশে যদি সুশাসন, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা থাকে তবে যেকোন লক্ষ্য বাস্তবায়ন অনেক সহজ হয়। এক্ষেত্রে কিছু কিছু বিষয়ে আমরা এখনও কিছুটা পিছিয়ে আছি, আশা করি সামনে এটি আমরা অতিক্রম করতে পারবো। প্রতিটি ক্ষেত্রে আমরা স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা কিভাবে নিশ্চিত করবো সেটি আজকে আমাদের আলোচনার প্রধান বিষয়বস্তু।

হাবিপ্রবি   শুদ্ধাচার প্রশিক্ষণ কর্মশালা   অনুষ্ঠিত  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন