ক্লাব ইনসাইড

দ্বিতীয় মেয়াদে ঢাবির প্রো-ভিসি হিসেবে যোগ দিলেন ড. মুহাম্মদ সামাদ

প্রকাশ: ০৪:৩৬ পিএম, ২৭ মে, ২০২২


Thumbnail দ্বিতীয় মেয়াদে ঢাবির প্রো-ভিসি হিসেবে যোগ দিলেন ড. মুহাম্মদ সামাদ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে দ্বিতীয় মেয়াদে যোগদান করেছেন অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ। 

শুক্রবার (২৭ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো  হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদের প্রথম মেয়াদ শুক্রবার (২৭ মে) শেষ। তবে আজ ও শনিবার (২৮ মে) সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় তিনি বৃহস্পতিবার প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর পদে দ্বিতীয় মেয়াদে যোগদান করেছেন। 

গত ১২ই এপ্রিল ২০২২ বুধবার রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে চার বছরের জন্য তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়।

অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদকে দ্বিতীয় মেয়াদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে নিয়োগ দেওয়ায় তিনি রাষ্ট্রপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ ২০১৮ সালের ২৮ মে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবে যোগদান করেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের উইনোনা স্টেট ইউনিভার্সিটিতে ভিজিটিং প্রফেসর হিসেবে তিনি ২০০৫ এবং ২০০৯-এ পাঠদান করে খ্যাতি অর্জন করেন। ২০০৯ সালে সমাজকর্ম শিক্ষার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা ওয়াশিংটনস্থ সিএসডবিউই পরিচালিত ‘ক্যাথেরিন ক্যান্ডাল ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল সোশ্যাল ওয়ার্ক এডুকেশন’-এর ফেলো হিসেবে বাংলাদেশ ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজকর্মের উচ্চশিক্ষার তুলনামূলক বিষয়ে গবেষণা করেন।

গবেষণা ফেলো হিসেবে কাজ করেছেন টোকিওর ‘জাপান কলেজ অব সোশ্যাল ওয়ার্ক’-এ। এছাড়া, তিনি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিভার্সিটি অব ইনফরমেশন টেকনোলজি অ্যান্ড সায়েন্সেসের (ইউআইটিএস) উপাচার্য হিসেবে দক্ষতা ও সফলতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি একজন প্রথিতযশা কবি ও শিক্ষাবিদ। গবেষণা, কবিতা ও অনুবাদ মিলিয়ে দেশে-বিদেশে প্রকাশিত ড. মুহাম্মদ সামাদের গ্রন্থসংখ্যা ৩০টি। এছাড়া জাতীয় ও আন্তর্জাতিক জার্নালে তার অর্ধশত গবেষণা-প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। 

মুহাম্মদ সামাদ বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার এবং চীনের সাহিত্যভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল পোয়েট্রি ট্রান্সলেশন অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার (আইপিটিআরসি) ও গ্রিক একাডেমি অব আর্টস অ্যান্ড লেটারস কর্তৃক ঘোষিত বিশ্বের ১০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে প্রাইজেস ২০১৮ : ইন্টারন্যাশনাল বেস্ট পোয়েট লাভ করেন। এছাড়া সিটি আনন্দ-আলো পুরস্কার, কবিতালাপ পুরস্কার, পশ্চিমবঙ্গের কবি বিষু দে পুরস্কার ও প্রথম আলো পুরস্কারসহ বহু পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন।


দ্বিতীয়   মেয়াদে   ঢাবির   প্রো-ভিসি   ড. মুহাম্মদ সামাদ  


মন্তব্য করুন


ক্লাব ইনসাইড

ঢাবি ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শীর্ষ তিনে যারা

প্রকাশ: ০৮:৩০ পিএম, ০৩ Jul, ২০২২


Thumbnail ঢাবি ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শীর্ষ তিনে যারা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। পরীক্ষায় অংশ নেওয়া ২৯ হাজার ৯৯৭ জনের মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছেন ৪ হাজার ২৮৯ জন (পাসের হার ১৪ দশমিক ৩০)। ৯৩০ জন পরীক্ষার্থী এবার এই ইউনিটের মাধ্যমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাবেন।

রোববার (৩ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের আবদুল মতিন চৌধুরী ভার্চ্যুয়াল শ্রেণিকক্ষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফলাফল ঘোষণা করেন উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান। গত ৩ জুন ‘গ’ ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

এবার ‘গ’ ইউনিটে প্রথম হয়েছেন রাজধানী ঢাকার নটর ডেম কলেজের ছাত্র সারওয়ার হোসেন খান। তাঁর মোট নম্বর ১১৬ দশমিক ৭৫ (মূল পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে ৯৬ দশমিক ৭৫)। তিনি পরীক্ষা দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে।

দ্বিতীয় হয়েছেন যশোরের দাউদ পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রী অনিমা পারভেজ ইলমা। তাঁর মোট নম্বর ১১০ (মূল পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে ৯০)। তিনি পরীক্ষা দিয়েছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে।

তৃতীয় হয়েছেন ফরিদপুরের সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের মো. আবদুল্লাহ খান। তাঁর মোট নম্বর ১০৭ দশমিক ৭৫ (মূল পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে ৮৭ দশমিক ৭৫)। তিনি পরীক্ষা দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে।

‘গ’ ইউনিটে ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট (https://admissions.eis.du.ac.bd) থেকে ফলাফল জানতে পারছেন। এ ছাড়া রবি, এয়ারটেল, বাংলালিংক বা টেলিটক নম্বর থেকে ‘DU KHA Roll No’ ফরম্যাটে ১৬৩২১ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়েও ফলাফল জানা যাচ্ছে।

‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার প্রকাশিত ফলাফলে ১ থেকে ১ হাজার ১০০ মেধাক্রম পর্যন্ত সব শিক্ষার্থীকে ৬ জুলাই বিকেল ৩টা থেকে ২১ জুলাই বিকেল ৫টা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে বিস্তারিত ফরম ও বিষয় পছন্দক্রম ফরম পূরণ করতে হবে। কোটায় আবেদনকারীদের ৬ থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট কোটার ফরম ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন কার্যালয় থেকে সংগ্রহ করতে হবে। তা যথাযথভাবে পূরণ করে ওই সময়ের মধ্যে ডিন কার্যালয়ে জমা দিতে হবে।

কারও ফলাফল নিয়ে সন্দেহ থাকলে তা নিরীক্ষার জন্য ১ হাজার টাকা ফি দেওয়া সাপেক্ষে ৬ থেকে ২১ জুলাই পর্যন্ত ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন কার্যালয়ে আবেদন করা যাবে।


মন্তব্য করুন


ক্লাব ইনসাইড

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে চুয়েট ছাত্রলীগ এলামনাই এসোসিয়েশনের পুস্তবক অর্পণ

প্রকাশ: ০৬:২৩ পিএম, ০২ Jul, ২০২২


Thumbnail বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে চুয়েট ছাত্রলীগ এলামনাই এসোসিয়েশনের পুস্তবক অর্পণ

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) ছাত্রলীগ এলামনাই এসোসিয়েশন এর নবগঠিত কমিটি বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শনিবার পুস্তবক অর্পণ করেছেন।  

এসময় সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আমিরুল ইসলাম মিলন এবং সাধারণ সম্পাদক হলেন ইঞ্জিনিয়ার আজিজ মিসির সেলিম সহ কমিটির নেতৃবৃন্দ 'ধানমন্ডি-৩২নাম্বারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে  করা এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া ও মুনাজাত করা হয়। 

উল্লেখ্য, গত২২জুন ২০২২ কমিটির আহবায়ক মো. মনিরুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কমিটির উপদেষ্টা রয়েছেন ২১জন। সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আমিরুল ইসলাম মিলন এবং সাধারণ সম্পাদক হলেন ইঞ্জিনিয়ার আজিজ মিসির সেলিম।  

চুয়েট   ছাত্রলীগ  


মন্তব্য করুন


ক্লাব ইনসাইড

উৎসবমুখর পরিবেশে উদযাপিত হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস

প্রকাশ: ০৬:৫২ পিএম, ০১ Jul, ২০২২


Thumbnail উৎসবমুখর পরিবেশে উদযাপিত হলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস

উৎসবমুখর পরিবেশে ১০১ বছর পূর্তি ও ১০২তম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে উদযাপিত হয়েছে। ১৯২১ সালের ১ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়েছিল। দিবসটি উপলক্ষে পতাকা উত্তোলন, বেলুন ও পায়রা উড়ানো, কেক কাটা ও আলোচনা সভা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ছিল ‘গবেষণা ও উদ্ভাবন : ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া সহযোগিতা’।

শুক্রবার (১ জুলাই) সকালে জাতীয় সংগীতের সাথে জাতীয় পতাকা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ও হলগুলোর পতাকা উত্তোলন, পরে পায়রা উড়ানো, বেলুন উড্ডয়ন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০২তম জন্মদিনে ১০২ পাউন্ড ওজনের কেক কেটে দিবসের কর্মসূচির উদ্বোধন ঘোষণা করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

এর আগে, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হল থেকে শোভাযাত্রা সহকারে কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে আসে হলের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকতা-কর্মচারীরা। সংগীত বিভাগের আয়োজনে পরিবেশিত হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের থিম সং। এরপর শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও সাবেক শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে কেন্দ্রীয় খেলার মাঠ থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান শোভাযাত্রায় নেতৃত্ব দেন।

বেলা ১১টায় ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র মিলনায়তনে ‘গবেষণা ও উদ্ভাবন : ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া সহযোগিতা’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ।

এসময় উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূইয়া, অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আনোয়ার-উল আলম চৌধুরী প্রমুখসহ বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে সঞ্চালনা করেন রেজিস্ট্রার প্রবীর কুমার সরকার।

সভায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান গবেষণা ও উদ্ভাবনে ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া সহযোগিতা বৃদ্ধির উপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, এক্ষেত্রে সরকার, একাডেমিয়া, ইন্ডাস্ট্রি ও অ্যালামনাইদের একযোগে কাজ করতে হবে। বিশ্বের বিভিন্ন উন্নত দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উদাহরণ তুলে ধরে তিনি বলেন, সে সব দেশের অনেক খ্যাতিমান অধ্যাপক শিল্প প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে গবেষণা কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে নোবেল পুরস্কার লাভ করেছেন।

তিনি বলেন, ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া সহযোগিতা বৃদ্ধিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যালামনাইদের কার্যকর ভূমিকা পালন করতে হবে। শিক্ষার্থীদের প্রায়োগিক জ্ঞান বৃদ্ধি ও স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে শিল্প প্রতিষ্ঠানে ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রাম চালুর জন্য উপাচার্য শিল্প মালিকদের প্রতি আহ্বান জানান।

মূল প্রবন্ধে ড. কাজী খলীকুজ্জমান বলেন, শিক্ষক-গবেষক এবং শিল্পখাতের যৌথ গবেষণা ও উদ্ভাবনী কার্যক্রম গ্রহণ করা হলে উভয়পক্ষ তথা দেশ উপকৃত হবে। প্রয়োজনীয় দক্ষতাসম্পন্ন লোকবল তৈরি এবং শিল্পখাতে নানা উৎপাদন প্রক্রিয়ার উন্নতি ও সম্প্রসারণের লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ইতিমধ্যে একটি শিল্পখাত-একাডেমিয়া সহযোগিতা প্ল্যাটফর্ম গঠনের উদ্যোগ নিয়েছে। এক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনের জন্য বাস্তবতার মূল্যায়ন করে নির্দিষ্ট করণীয়সমূহ চিহ্নিত করা প্রয়োজন। এ ব্যাপারে সরকার বাস্তবতাভিত্তিক যথাযথ নীতিমালা ও আইন প্রণয়ন করতে পারে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবস  


মন্তব্য করুন


ক্লাব ইনসাইড

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত ঘোষণা

প্রকাশ: ০৫:১৪ পিএম, ০১ Jul, ২০২২


Thumbnail জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কমিটি স্থগিত ঘোষণা

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ কমিটিকে স্থগিত ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় কমিটি। একই সব সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে।

শুক্রবার (১ জুলাই) দুপুরে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক জানানো যাচ্ছে যে, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সব সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিত করা হলো।


জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়   ছাত্রলীগ কমিটি   স্থগিত  


মন্তব্য করুন


ক্লাব ইনসাইড

শিক্ষক হত্যাকারী জিতুর সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে উত্তাল সাভার

প্রকাশ: ০১:১২ পিএম, ৩০ Jun, ২০২২


Thumbnail শিক্ষক হত্যাকারী জিতুর সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে উত্তাল সাভার

সাভারের আশুলিয়ায় হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক উৎপল কুমার সরকারকে খুনের ঘটনায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভে উত্তাল সাভার। অভিযুক্ত আশরাফুল আহসান জিতুর সর্বোচ্চ শাস্তিসহ ৫ দফা দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে ওই প্রতিষ্ঠানের  শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) বেলা ১১টার দিকে সাভার উপজেলা চত্বরে প্রায় ৬ শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষার্থী এই বিক্ষোভে অংশ নেয়। এ সময় তারা জিতুর সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান।

৫ দফা দাবির মধ্যে রয়েছে- শিক্ষকদের নিরাপত্তায় সুরক্ষা আইন প্রণয়ন করতে হবে, আশরাফুল আহসান জিতুর দৃষ্টান্তমূলক সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে, নিহতের পরিবারকে সর্বোচ্চ আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিতে হবে, জিতুর সহযোগীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনতে হবে এবং স্থানীয় ও ভাড়াটিয়া শিক্ষার্থীদের ভেদাভেদ নির্মূল করতে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

মানববন্ধনে ফেডারেশন অব কিন্ডারগার্টেন অ্যাসোসিয়েশনের (ফোকা) চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম জীতু বলেন, আমরা খুনির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। যাতে করে ভবিষ্যতে কোনো শিক্ষার্থী শিক্ষকদের অবমাননা করতেও সাহস না পায়। এমন শাস্তি নিশ্চিত করা হোক, যেন শাস্তি দেখে পরিবার সন্তানদের স্পর্ধা না দিয়ে চরিত্র গঠনে সহায়ক হন। এখন মানববন্ধন করা হলো। এরপর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে স্বারকলিপি প্রদানসহ সকল শিক্ষক কালো ব্যাচ ধারণ করবেন।

হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ সাইফুল ইসলাম বলেন, আমরা চাই কিশোর গ্যাং নির্মূল হোক। জিতু পরিকল্পনা করে শিক্ষক উৎপলকে হত্যা করেছে। সে তার নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছে। যেখান থেকে জিতুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, সেখানে আমাদের প্রতিষ্ঠানের সাবেক শিক্ষার্থী ছিল। তার কাছেই সে আশ্রয় নেয়। সুতরাং জিতু যে নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছে তা স্পষ্ট। আমরা চাই পুরো ঘটনা স্পষ্ট করা হোক।

প্রসঙ্গত, শনিবার (২৫ জুন) দুপুরে আশুলিয়ার চিত্রশাইল এলাকায় হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের মাঠে শিক্ষক উৎপলকে স্ট্যাম্প দিয়ে আঘাত করেন শিক্ষার্থী জিতু। পরে শিক্ষককে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সোমবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এ ঘটনায় রোববার আশুলিয়া থানায় নিহত শিক্ষকের ভাই বাদী হয়ে মামলা করেন। বুধবার রাতে কুষ্টিয়া থেকে জিতুর বাবা ও বৃহস্পতিবার গাজীপুরের শ্রীপুর থেকে জিতুকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের পরও সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করছেন শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষক   সাভার  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন