কালার ইনসাইড

যে কারণে মিশা-জায়েদের পক্ষে নির্বাচন করছেন মৌসুমী

প্রকাশ: ০২:২৭ পিএম, ১৩ জানুয়ারী, ২০২২


Thumbnail

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির গত ২০১৯-২০২১ মেয়াদের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে সভাপতি পদে মিশা-জায়েদ প্যানেলের বিরুদ্ধে লড়েছিলেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী। সেবার ওই প্যানেলের কাচে পরাজিত হয় মৌসুমীর পুরো প্যানেল।  এবার প্রতিপক্ষ সেই মিশা-জায়েদের প্যানেলে ভিড়লেন চলচ্চিত্রের প্রিয়দর্শিনী খ্যাত এই নায়িকা। গুরুত্বপূর্ণ কোনো পদে নয়, কার্যকারি সদস্যপদে লড়ছেন তিনি। 

মৌসুমী কেনো গতবারের প্রতিপক্ষের প্যানেলে নির্বাচন করতে এলেন? এ প্রশ্ন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট প্রায় সবার কাছেই। বিষয়টি নিয়ে এতোদিন মুখ খুলেননি এই নায়িকা। তবে এফডিসি পাড়ার গুঞ্জন, গত মেয়াদে মৌসুমীকে নির্বাচনে দাঁড় করিয়ে তার কিছু কাছের শিল্পীরা পেছন থেকে সরে গিয়েছিলো। তাই এবার তাদের পেছনে নেই তিনি। অভিমানে প্রতিপক্ষের দলেই ভিড়েছেন মৌসুমী। 


গতকাল বুধবার এফডিসিতে মনোনয়ন জমা দিতে এসেছিলেন মৌসুমী। এ সময় মিশা-জায়েদের প্যানেলের হয়ে নির্বাচন করার কারণ জানতে চাওয়া হয় তার কাছে। মৌসুমী বলেন, 'গতবছর থেকই দেখে আসছি মিশা-জায়েদ শিল্পীদের জন্য ভালো কাজ করছে। বিগত দিনে তাদের কাজগুলো দেখলেই বুঝতে পারবেন শিল্পী সমিতির হয়ে তারা সবগুলো কাজই ভালো করেছে। আমি তাদের সেই ভালো ভালো কাজের সমর্থক হিসেবেই তাদের প্যানেলের হয়ে দাঁড়িয়েছি।'

মৌসুমী বলেন, 'আমি জাস্ট এক্সিকিউটিভ কমিটিতে দাঁড়িয়েছি। আমি শিল্পীদের পাশে সবসময় ছিলাম। সে প্রত্যয় থেকে আমি এবারও দূরে নেই।  আমি ফ্যামিলিগত সমস্যা ও অন্যান্য সমস্যার কারণে নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ পদে  করতে পারছি না । তবে আমি মিশা-জায়েদের সঙ্গে আছি। '

মিশা-জায়েদের প্যানেলে আসা নিয়ে আর বেশি কিছু জানাতে চাইলেন না মৌসুমী। তবে আগামীতে জয়ী হলে মিশা-জায়েদ কমিটির কাছে প্রত্যাশার কথা জানালেন। 

মৌসুমী বলেন, তারা তো ভালো কাজ করছেই আশা করি আরো ভালো কাজ করবে।  যেহেতু এখন সিনেমা কম নির্মাণ হচ্ছে তাই আমাদের কাজও কম। তাই কাজ ও অন্যান্য সমিতির সঙ্গে সমন্বয় করে আমাদের সমিতিকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাবে। পাশাপাশি শিল্পীদের পক্ষে কথা বলা। তারা যে বড় পরিকল্পনা করছে আশা করি তারা সব বাবস্তবায়ন করতে পারবে। 

এবার ইলিয়াস কাঞ্চন ও নিপুণ প্যানেলের বিপক্ষে লড়বে জায়েদ খান ও মিশা সওদাগর প্যানেল।

এবার শিল্পী সমিতির নির্বাচনে কমিশনারের দায়িত্ব পালন করছেন পীরজাদা হারুন। অন্য দুই সদস্য হলেন- বিএইচ নিশান ও বজলুর রাশীদ চৌধুরী। আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান করা হয়েছে সোহানুর রহমান সোহানকে। সদস্য মোহাম্মদ হোসেন জেমী ও মোহাম্মদ হোসেন।


মিশা   জায়েদ খান   নির্বাচন   মৌসুমী  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

নায়ক রিয়াজকে হত্যার হুমকি!

প্রকাশ: ০৬:৫০ পিএম, ২৫ জানুয়ারী, ২০২২


Thumbnail

আগামী ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন। এবার নির্বাচনে লড়ছেন দুইটি প্যানেল। একটি ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল ও অন্যটি মিশা-জায়েদ প্যানেল। এ নির্বাচন ঘিরে ঘিরে উত্তাল হাওয়া বইছে চলচ্চিত্রপাড়ায়। এক প্যানেল অন্য প্যানেলকে প্রশ্ন বানে জর্জরিত করে রেখেছে। 

আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটছে শিল্পীদের। যার ধারাবাহিকতায় আজ মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) মগবাজার কনভেনশন সেন্টারে চলছে কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের পরিচিতি পর্ব।  এবার এই প্যালেন থেকে সহ-সভাপতি পদে নির্বাচন করছেন নায়জ রিয়াজ। আয়োজিত অনুষ্ঠানে রিয়াজ অভিযোগ করেব তাকে  হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছেন।

রিয়াজ বলেন,  ‘আমি কাউকে দোষারোপ করছি না। বিগত কয়েক দিন আমার এই ফোনে অনেক রকম নম্বর থেকে ফোন আসছে। যে নম্বরগুলো জীবনে কখনো দেখিনি। ফোন দিয়ে বলে, এফডিসিতে গেলে মেরে ফেলবে, হাত–পা ভেঙে ফেলবে। আমি রিয়াজকে তারা খুন করবে। জিডি করিনি, কাউকে বলিনি। যত দূর ব্যবস্থা নেওয়ার, আমি নিয়েছি। আমি সবার সামনে বলতে চাই, সেসব নম্বর মুঠোফোনে সেভ করা আছে। আজ আমি বলতে চাই, আমি রিয়াজ শুদ্ধ মানুষ, আমার তো দূরের কথা, আমার শিল্পী সমিতির একজন মেম্বরের কিংবা এফডিসিতে যে ঝাড়ু দেন, তাঁরও যদি কিছু হয়, আমরা দেখে নেব। এফডিসির মাটি অন্যায় সহ্য করে না।’

আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের প্রার্থী রিয়াজ, ফেরদৌস, সাইমন, নিরব, ইমন, সীমান্ত, সাংকো পাঞ্জা, আরমান, গাঙ্গুয়া, নানাশাহ, জেসমিন, কেয়া, শাহনূর ও অন্যরা।

রিয়াজ   শিল্পী সমিতি  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

শিল্পীদের স্বার্থরক্ষায় কাজ করতে চাই: মৌসুমী হামিদ

প্রকাশ: ০৫:১২ পিএম, ২৫ জানুয়ারী, ২০২২


Thumbnail

আসছে ২৮ জানুয়ারি টেলিভিশন নাটকের শিল্পীদের সংগঠন অভিনয়শিল্পী সংঘের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচন ঘিরে তারকা প্রার্থীরা ব্যস্ত। নাট্যপাড়া মেতেছে ভোট উৎসবে। শিল্পীরা এক হলেই চলছে ভোটের গল্প। চায়ের চুমুকে ভোটের আলাপ জমে উঠেছে। এবার কার্যনির্বাহী পদে নির্বাচন করছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী মৌসুমী হামিদ।

নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে মৌসুমী হামিদ বলেন, আমার তো উৎসব মনে হচ্ছে। আমরা যেমন সাধারণ ভোটারদের কাছে ভোট চাইছি। অন্যদিকে এক প্রার্থী অন্য প্রার্থীর থেকেও ভোট চাইছি। এক কথায় অসাধারণ। 


জয়ের ব্যাপারে আপনি কতটা আশাবাদী? এমন প্রশ্নের জবাবে এই অভিনেত্রী বলেন, দেখুন আমার কাছে জয়-পরাজয় বড় কথা না। এই ইন্ডাস্ট্রিতে এত বছর ধরে কাজ করছি। সবাই আমাকে খুব ভালো করে জানেন-চেনেন। সম্মানিত ভোটাররা যদি মনে করেন আমি নির্বাচিত হলে তাদের জন্য কিছু করতে ভূমিকা রাখতে পারবো তাহলে আমাকে অবশ্যই ভোট দেবেন।

মৌসুমী হামিদ আরও বলেন, আমি একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবে চাইবো শিল্পীদের স্বার্থরক্ষায়। নির্বাচিত হলে শিল্পীদের উন্নয়নে কাজ করবো। এ ক্ষেত্রে সবার সহায়তা পাবো বলে আশা করি। ।

ভোট চাওয়ার অনুভূতি কেমন? জবাবে তিনি বলেন, নতুন অভিজ্ঞতা। আসলে কাজের মধ্যে থেকেই প্রচারণা করতে হচ্ছে। শুনলাম পরিচিতজনরাও আমার জন্য ভোট চাইছেন। আমাদের শিল্পীদের ১২ মাসই কাজের মধ্যে থাকতে হয়। এর মধ্যে থেকেই চেষ্টা করছি প্রচারণা করার। সোমবার (২৪ জানুয়ারি) বরিশাল থেকে একটি নাটকের শুটিং করে এসেছি। ঢাকায় ফিরেই সন্ধ্যায় অনেক ভোটারদের সঙ্গে দেখা করে কুশল বিনিময় করেছি। আজকেও একটি নাটকের শুটিং সেটে আছি। আমার বিপরীতে রয়েছেন গুণী অভিনেতা জাহিদ হাসান ভাই। শুটিং সেটেও ভোট ভোট আমেজ পাচ্ছি।

প্রতি বছরের মতো বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এবারের নির্বাচনে কোনো প্যানেল নেই। নির্বাচনে নতুন নেতৃত্বের উদ্দেশ্যে মোট ২১টি পদে নির্বাচন করছেন ৪৮ জন প্রার্থী। তাদের সবাই স্বতন্ত্র।

মৌসুমী হামিদ   নির্বাচন   অভিনয়শিল্পী সংঘ  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

রিচার্ড গিয়ারের সঙ্গে অশ্লীলতার অভিযোগ থেকে রেহাই পেলেন শিল্পা

প্রকাশ: ০৪:৫৫ পিএম, ২৫ জানুয়ারী, ২০২২


Thumbnail

জনপ্রিয় বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠি। রিচার্ড গিয়ারের সঙ্গে তার চুমু নিয়ে মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন এই অভিনেত্রী। সালটা ২০০৭। ভারতের রাজস্থানের এক অনুষ্ঠানে মঞ্চেই শিল্পাকে চুমু খেয়েছিলেন হলিউড অভিনেতা রিচার্ড গিয়ার। এই অভিনেত্রীও তাতে বাধা দেননি। তবে রিচার্ড ও শিল্পার এই চুমুতে আপত্তি ছিল অনেকের। 

মিডিয়ায় এটি নিয়ে দীর্ঘদিন লেখালেখি হয়। অশ্লীলতার দায় ওঠে শিল্পার বিরুদ্ধে। এই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৯২, ২৯৩ এবং ২৯৪ ধারায় মামলা দায়ের হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি এই মামলার শুনানিতে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট কেতকি চাওয়ান জানান, পুলিশের প্রতিবেদন ও নথির ভিত্তিতে তার মনে হয়েছে শিল্পার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ ভিত্তিহীন। ফলে তাকে এই অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

২০০৭ সালের এই ঘটনা ঘটার পর একই ধরনের আরো দু’টি মামলা হয় রাজস্থানে। এছাড়া একটি গাজিয়াবাদে। ২০১৭ সালে শিল্পা আর্জি জানান, মামলাটির শুনানি যেন মুম্বাই উচ্চ আদালতে হয়। ২৩৯ ও ২৪৫ ধারা অনুযায়ী আবেদন করেছিলেন শিল্পার আইনজীবী মধুকর ডালভি। অবশেষে মামলা দায়েরের দীর্ঘ ১৫ বছর পর মুম্বাইয়ের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত জানালেন, এতে শিল্পার কোনো দোষ নেই। অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

রিচার্ড গিয়ার   চুমু   অশ্লীলতা   শিল্পা শেঠি  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

যে কারণে ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল পরিচিতি অনুষ্ঠানে নেই সাংবাদিকরা

প্রকাশ: ০৪:৪৭ পিএম, ২৫ জানুয়ারী, ২০২২


Thumbnail

আগামী ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন। এবার নির্বাচনে লড়ছেন দুইটি প্যানেল। একটি ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল ও অন্যটি মিশা-জায়েদ প্যানেল। এ নির্বাচন ঘিরে ঘিরে উত্তাল হাওয়া বইছে চলচ্চিত্রপাড়ায়। এক প্যানেল অন্য প্যানেলকে প্রশ্ন বানে জর্জরিত করে রেখেছে। 

আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটছে শিল্পীদের। যার ধারাবাহিকতায় আজ মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) মগবাজার কনভেনশন সেন্টারে চলছে কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের পরিচিতি পর্ব। আয়োজিত অনুষ্ঠানে দেখা মেলেনি কোন গণমাধ্যম কর্মীদের। বিষয়টি নিয়ে অনেকের মাঝে দেখা দিয়েছে নানা প্রশ্ন। 

বিষয়টি নিয়ে ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন,  দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব বেশ বেড়েছে। আর এ কারণেই  একটু সতর্ক থেকেই পরিচিতি পর্ব সারতে হচ্ছে। আমরা দুটি ভাগে আমাদের প্যানেলের পরিচিতি পর্ব করছি। আজ ভোটারদের নিয়ে  পরিচিতি পর্ব সারছি। আগামীকাল আমার  গণমাধ্যম কর্মী ভাই-বোনদের সাথে বসবো। 

এদিকে ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল থেকে আন্তর্জাতিক সম্পাদক প্রার্থী নায়ক নিরব জানান, সাংবাদিকদের নিয়ে আগামীকাল মগবাজারস্থ জলপাই রেস্তোরাঁয় একটি সংবাদ সম্মেলন করবে তাদের প্যানেল।

আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের প্রার্থী রিয়াজ, ফেরদৌস, সাইমন, নিরব, ইমন, সীমান্ত, সাংকো পাঞ্জা, আরমান, গাঙ্গুয়া, নানাশাহ, জেসমিন, কেয়া, শাহনূর ও অন্যরা।

ইলিয়াস কাঞ্চন   নিপুণ   রিয়াজ   ফেরদৌস   সাইমন   নিরব   ইমন   নির্বাচন  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

মামলার হুমকি দিলেন নায়ক আলমগীর

প্রকাশ: ০৪:১৯ পিএম, ২৫ জানুয়ারী, ২০২২


Thumbnail

আগামী ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন। এবার নির্বাচনে লড়ছেন দুইটি প্যানেল। একটি ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল ও অন্যটি মিশা-জায়েদ প্যানেল। এ নির্বাচন ঘিরে ঘিরে উত্তাল হাওয়া বইছে চলচ্চিত্রপাড়ায়। এক প্যানেল অন্য প্যানেলকে প্রশ্ন বানে জর্জরিত করে রেখেছে। 

আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটছে শিল্পীদের। যার ধারাবাহিকতায় আজ মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) মগবাজার কনভেনশন সেন্টারে চলছে কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের পরিচিতি পর্ব। এই প্যানেল পরিচিতি অনুষ্ঠানে অন্যান্য শিল্পীদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়ক আলমগীরও। 

শুভেচ্ছা বক্তব্যে আলমগীর  ১৮৪ জন ভোটার বাতিলের প্রসঙ্গ টেনে মিশা-জায়েদকে চ্যালেঞ্জ করে বলেন, ১৮৪ জন ভোটার বাতিলের রেজ্যুলিউশনটা আমাকে দেখাও। সেখানে আমার স্বাক্ষর আছে, আমি জড়িত আছি এটা প্রমাণ করতে পারলে আমি কথা দিলাম তোমাদের প্যানেলকে ভোট দেবো। আর যদি প্রমাণ না দিতে পারো তবে আমি তোমাদের নামে আইনি ব্যবস্থা নেবো৷ ফারুক ভাই, সোহেল রানা ভাই, উজ্জ্বল ভাই যদি আমার সঙ্গে নাও আসেন, আমি একাই তোমাদের নামে ফৌজদারি মামলা করবো।

তিনি মিশা-জায়েদকে আরও বলেন, মিথ্যার বেসাতি বন্ধ করো। আল্লাহকে ভয় করো৷ নতুবা আল্লাহই টেনে নামাবে। আমরা যারা আছি, ইন্ডাস্ট্রির গাছের মতো৷ আমাদের মেরে ফেলে আগায় পানি দিও না। পাতাগুলো ঝরে যাবে। অলরেডি যাচ্ছে। সতর্ক হও৷ আমাদের কাছে আসলে ভালো পরামর্শের জন্য আসো৷ আমরা যারা আছি মোস্ট সিনিয়র, সবাই চাই চলচ্চিত্রের অবস্থা ভালো হোক।

কাঞ্চনকে নিয়ে বলেন এই গুনী অভিনেতা বলেন, আজ এখানে ইলিয়াস কাঞ্চন আছে। সভাপতি পদে নির্বাচন করছে। ও এমন একজন মানুষ যার আসলে প্রশংসার শেষ নেই। ওর সাথে কথা বললে মনে হয় বড় ভাইয়ের সাথে কথা বলছি। প্রায়ই ভাবি, ও আমার বড় ভাই হলো কবে। ওর কথা শুনলে মুগ্ধ হই। আমি কাঞ্চন ও তার প্যানেলের জন্য শুভেচ্ছা জানাই।

আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেলের প্রার্থী রিয়াজ, ফেরদৌস, সাইমন, নিরব, ইমন, সীমান্ত, সাংকো পাঞ্জা, আরমান, গাঙ্গুয়া, নানাশাহ, জেসমিন, কেয়া, শাহনূর ও অন্যরা।

নায়ক   আলমগীর   মামলা  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন