কালার ইনসাইড

‘মায়ের মতো বিয়ে না করে সন্তান জন্ম দেওয়ার সাহস আমার নেই’

প্রকাশ: ০৭:১০ পিএম, ১৪ মে, ২০২২


Thumbnail ‘মায়ের মতো বিয়ে না করে সন্তান জন্ম দেওয়ার সাহস আমার নেই’

আলোচিত বলিউড অভিনেত্রী নীনা গুপ্তা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটার ভিভ রিচার্ড যুগলের একমাত্র কন্যা মাসাবা গুপ্তা। বিবাহিত ভিভের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন নীনা। অভিনেত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লেও ভিভের পক্ষে প্রথম স্ত্রীকে ছেড়ে আসা সম্ভব ছিল না। নীনাও জোর করে বিয়ে করতে চাননি প্রেমিককে। সে সম্পর্কের সাক্ষী হয়ে আছেন তাদের একমাত্র কন্যা মাসাবা।

যদিও এ ঘটনায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন অভিনেত্রী নীনা। সে সময় বিষয়টি নিয়ে তুমুল আলোচনা হয়েছে। তবে কোনো কিছুর তোয়াক্কা না করে মেয়েকে একাই বড় করেছেন নীনা গুপ্তা। ইতোমধ্যে ফ্যাশন ডিজাইনার ও অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন নীনার মেয়ে মাসাবা। তবে সিঙ্গেল মাদারের মেয়ে হিসেবে বড় হতে অনেক কটু কথা শুনতে হয়েছে তাকে। তিনিও কি মায়ের মতো বিয়ে ছাড়াই সন্তানের জন্ম দিতে চান? মাসাবার উত্তর- সে সাহস তার নেই।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে মাসাবা জানান, ‘আমাকে সবসময় শুনতে হয়েছে, আমি অতিরিক্ত আধুনিক। আমার মাকেও অনেক কথা শুনতে হয়েছে। তবে আধুনিকতার তকমা নেতিবাচকভাবেই লেগেছিল আমাদের গায়ে। কিন্তু মায়ের মতো বিয়ে না করে সন্তান জন্ম দেওয়ার সাহস আমার নেই।’

উল্লেখ্য, পেশায় পোশাক শিল্পী মাসাবা অভিনয় জগতে পা রাখেন ২০২০ সালে। নেটফ্লিক্সে ‘মাসাবা মাসাবা’ ওয়েব সিরিজে নিজের চরিত্রেই অভিনয় করেন তিনি। তার জীবনের ওঠাপড়া, মায়ের সঙ্গে সম্পর্ক- এ সব নিয়েই তৈরি হয় সিরিজের গল্প। ছিলেন নীনা গুপ্তাও। হাতেখড়িতেই দর্শকের প্রশংসা পেয়েছিলেন মাসাবা। এবার তাকে দেখা যাবে ‘মডার্ন লাভ মুম্বাই’ ওয়েব সিরিজে।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা ও এই সময়।


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

শাকিবের দৃষ্টিতে আসতেই আমেরিকায় অধরা!

প্রকাশ: ১০:০০ পিএম, ২০ মে, ২০২২


Thumbnail শাকিবের দৃষ্টিতে আসতেই আমেরিকায় অধরা!

নতুন প্রজন্মের উঠতি নায়িকা অধরা খান। ‘নায়ক’ চলচ্চিত্রের মাধমে ঢাকাই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে তার অভিষেক হয়। এরপর মুক্তি পায় ‘মাতাল’ ও ‘পাগলের মতো ভালোবাসি’ নামের সিনেমা দুটি। তবে অধরার তিনটি সিনেমাই মুখ থুবড়ে পড়ে। এরপর এই নায়িকার নতুন কোনো সিনেমা মুক্তি না পেলেও বিভিন্ন কারণে ছিলেন আলোচনায়।

সম্প্রতি গুঞ্জন চাউর হয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজের সঙ্গে নতুন প্রেমে জড়িয়েছেন অধরা। তাই তো মধ্যেরাতেও প্রযোজকের ডাকে সাড়া দিচ্ছেন এই ‘মাতাল’ নায়িকা। প্রায় সময়ই প্রযোজকের সঙ্গে সময় কাটে বলে গুঞ্জন রয়েছে। শুধু তাই নয় প্রযোজক তাঁর জন্য লিখেছেন কবিতাও।



কবিতার নিচে অধরা খান লিখেছেন, এই শব্দগুলো এমন যা সত্যিকার অর্থে একে অপরের অভ্যন্তরীণ অনুভূতিগুলোকে বর্ণনা করে। এই কবিতার শব্দগুলো এমন অর্থ বহন করে যে তারা প্রমাণ করে যে প্রেম সত্যিই সুন্দর। আবারও লেখা এগিয়ে নেয়ার জন্য ধন্যবাদ। কারও লেখায় অন্যরকম ভালো লাগা কাজ করে।

অধরার সেই কমেন্টে লাভ রিয়েক্ট দিয়েছেন আজিজ। এবং জবাবে লিখেছেন, ধন্যবাদ... তোমার এই কমেন্ট আমার জন্য অনেক।



এদিকে, বর্তমানে অধরা অবস্থান করছেন আমেরিকায়। যেখানে এখন আছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের সুপারস্টার শাকিব খান। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে শাকিব খানের সাথে সিনেমার করতে তাঁর সাথে সক্ষতা তৈরী করতেই হুট করে আমেরিকা উড়াল দিয়েছেন এই নায়িকা।

অধরার প্রেমের খবর এবারই প্রথম নয়। চিত্রনায়ক বাপ্পি চৌধুরী, এক পরিচালক নেতা, প্রযোজকসহ নায়িকার একাধিক প্রেমের কথা ইন্ডাস্ট্রিতে কান পাতলেই শোনা যায়। এমনকি অধরার গোপন বিয়ের খবরও জানা গেছে!

ভ্রমণপিপাসু নায়িকার বিদেশ যাত্রা নিয়েও রয়েছে নানান কথা। তবে অধরার দাবি, পারিবারিক ব্যবসার কারণে তাকে বছরে একাধিক বার বিদেশ যেতে হয়।

বর্তমানে অধরার হাতে রয়েছে অহিদুজ্জামান ডায়মন্ডের ‘কোভিড নাইনটিন ইন বাংলাদেশ’, সৈকত নাসির পরিচালিত ‘বর্ডার’, অপূর্ব রানার ‘উন্মাদ’ ও ‘গিভ অ্যান্ড টেক’ সিনেমাগুলি। তবে শোনা যাচ্ছে,  ‘উন্মাদ’ ও ‘গিভ অ্যান্ড টেক’ সিনেমা দুটি আর আলোর মুখ দেখবে না।


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

মেয়ের একাধিক সম্পর্কের কথা জানালেন পল্লবীর মা

প্রকাশ: ০৭:৪৮ পিএম, ২০ মে, ২০২২


Thumbnail মেয়ের একাধিক সম্পর্কের কথা জানালেন পল্লবীর মা

ভারতীয় টিভি অভিনেত্রী পল্লবী দের মৃত্যুর পর থেকে বেরিয়ে আসছে নানা তথ্য। কখনো তার পুরোনো প্রেম, কখনো ক্যারিয়ার নিয়ে অনিশ্চয়তার খবর ছড়িয়ে পড়ছে টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে। এবার পুরোনো একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। যেখানে পল্লবীর মায়ের মুখে শোনা যায়, পল্লবীর ব্যক্তিগত জীবনের অজানা তথ্য।

মা সংগীতাকে নিয়ে একাধিকবার রিয়েলিটি শো দিদি নাম্বার ওয়ানে এসেছিলেন প্রয়াত অভিনেত্রী পল্লবী দে। শোয়ে অংশ নিয়েছিলেন পল্লবীর বান্ধবী প্রত্যুষা পাল, অভিনেত্রী ভাবনা বন্দ্যোপাধ্যায়। দিদি নাম্বার ওয়ানের এক এপিসোডে সঞ্চালক রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় পল্লবীর মাকে প্রশ্ন করেছিলেন, পল্লবী নিশ্চয়ই আপনাকে সব বলে, বিশেষ কারো কথা কোনো দিন বলেছে? পল্লবীর মা স্পষ্ট জানান, ‘‘না এখনো বলেনি। আসলে ওর জীবনে তো অনেকেই এসেছে, গিয়েছে। কিন্তু মেয়ে বার বার বলে, হচ্ছে না ঠিক!’ পল্লবীর মায়ের মুখে এ কথা শুনে শুটিং ফ্লোরের সবাই হাসিতে ফেটে পড়েন।

শুধু পল্লবীর মা নয়, পল্লবীও জানিয়েছিলেন, তার সঙ্গে থাকা বেশ কঠিন। কারণ প্রেমিককে তার সব কথা শুনতে হবে। আর তা না শুনলেই বকাঝকা চলবে। পল্লবীর মা বলেছিলেন, পল্লবীর এই ব্যবহারের জন্যই হয়তো তার কোনো সঙ্গী টেকে না!

সাগ্নিক চক্রবর্তী নামে এক যুবকের সঙ্গে লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলেন পল্লবী। কলকাতার যে বাসা থেকে পল্লবীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে, সেই বাসায় বসবাস করতেন তারা। হত্যা মামলায় সাগ্নিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।


পল্লবী   মৃত্যু   প্রেমিক  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

অবশেষে প্রকাশ্যে শিরোনামহীনের ব্যয়বহুল ‘পারফিউম’ (ভিডিও)

প্রকাশ: ০৭:১১ পিএম, ২০ মে, ২০২২


Thumbnail অবশেষে প্রকাশ্যে শিরোনামহীনের ব্যয়বহুল ‘পারফিউম’ (ভিডিও)

গানের অ্যালবাম প্রকাশের প্রচলন প্রায় হারিয়ে যাচ্ছে। এ পর্যায়েও সিঙ্গেল গানের পাশাপাশি ৬ষ্ঠ অ্যালবামের কাজ শেষ করেছে শ্রোতাপ্রিয় ব্যান্ড শিরোনামহীন। ৮টি গান নিয়ে সাজানো হয়েছে অ্যালবামটি। এর আগে ৭টি গানের ভিডিও অন্তর্জালে মুক্তি পেয়েছে। অ্যালবামটির শেষ গান ‘পারফিউম’। এ গান নিয়ে নির্মিত হয়েছে ব্যয়বহুল ভিডিও। দীর্ঘ অপেক্ষার পর মুক্তি পেয়েছে গানটি।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) শিরোনামহীনের অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পায় গানটি। এর কথা ও সুর করেছেন জিয়াউর রহমান। মিউজিক ভিডিওটি পরিচালনা করেছেন ব্যান্ড প্রধান জিয়াউর রহমান। গানটির দৃশ্যধারণের কাজ হয়েছে হেমায়েতপুরে দেশালের পরিচালক গোলাম মোস্তফা সবুজের বাসভবন ‘সবুজপাতা’য়। যা এ বছর আর্ক এশিয়া স্থাপত্য অ্যাওয়ার্ড জিতেছে।

শিরোনামহীন প্রধান জিয়াউর রহমান জানান, ব্যয়বহুল এই মিউজিক ভিডিওর পেছনে আড়াই বছর পরিশ্রম করেছেন তারা। যেটাকে বাংলাদেশের ব্যান্ড মিউজিক ইতিহাসের সর্বোচ্চ বাজেটের মিউজিক ভিডিও বলতে চাইছেন। যেখানে গ্রিক মিথোলজি নিয়ে নির্মিত গানে শিরোনামহীন সদস্যদের সম্পূর্ণ ভিন্ন আউটলুকে উপস্থাপন করা হয়েছে। গল্পের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ করার জন্য এ রকম স্ক্রিনপ্লে করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

গানটি মুক্তির পর থেকে ভূয়সী প্রশংসা করছেন নেটিজেনরা। ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, ‘শিরোনামহীনের এই গানগুলো আমাদের মতো মন ভাঙা মানুষের বেঁচে থাকার অনুপ্রেরণা। রাত যখন গভীর হয় তখন নিজেকে অনেক একা মনে হয়, তখন এই গানগুলোই আমাদের সঙ্গী হয়ে যায়!’ আসিফ রাহাত লিখেছেন, ‘‘শিরোনামহীনের এই ‘পারফিউম’ গানটি ইতিহাসে আরেকটি রেকর্ড করবে।’’ এমন অসংখ্য প্রশংসাসূচক মন্তব্যে ভরে আছে কমেন্ট বক্স।

শিরোনামহীন’র বর্তমান লাইন–আপ হলো—বেস গিটারিস্ট, চেলিস্ট ও সরোদবাদক: জিয়াউর রহমান। ড্রামস, সরোদ ও বাঁশিতে কাজী আহমাদ শাফিন, লিড গিটারে দিয়াত খান, কণ্ঠে শেখ ইশতিয়াক ও কিবোর্ডে সাইমন চৌধুরী।


শিরোনামহীন   পারফিউম  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

অবশেষে শুরু হচ্ছে নতুন ‘ফেলুদা’র শুটিং

প্রকাশ: ০৫:৫২ পিএম, ২০ মে, ২০২২


Thumbnail অবশেষে শুরু হচ্ছে নতুন ‘ফেলুদা’র শুটিং

নানা সমস্যার ইতি টেনে নতুন প্রযোজনা সংস্থার হাত ধরেই কলকাতায় আবারও ‘ফেলুদা’র পথচলা শুরু হচ্ছে আগামী মাসে। সত্যজিত রায়ের ‘হত্যাপুরী’কে সিনেমার পর্দায় তুলে ধরতে পরিচালক সন্দীপ রায়ের সহযোগী প্রযোজনা সংস্থা কলকাতার শ্যাডো ফিল্মস এবং ফ্লোরিডার ঘোষাল মিডিয়া। জুনের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকেই কলকাতায়শুরু হতে চলেছে শুটিং।

সত্যজিৎ রায়ের লেখা ‘হত্যাপুরী’ গল্পকে এবার বড়পর্দায় আনতে চলেছেন পরিচালক সন্দীপ রায়। আর ‘ফেলুদা’ চরিত্রে তিনি বেছেছিলেন অভিনেতা ইন্দ্রনীল সেনগুপ্তকে। গত মাসেই তিনি নতুন ‘ফেলুদা’র কথা প্রকাশ করেছিলেন। বাঙালির অন্যতম এক আবেগের চরিত্রে নিজেকে যোগ্য করে তুলতে অনেক মাস ধরে প্রস্তুতি নিয়েছিলেন ইন্দ্রনীল। তবে সব চূড়ান্ত হয়েও মাঝপথে বাধা আসে। জানা যায়, সন্দীপ রায়ের ‘ফেলুদা’ ইন্দ্রনীলকে পছন্দ হয়নি প্রযোজকদের। তাই এই সিনেমার প্রযোজনার দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছে টলিউডের অন্যতম নামী প্রযোজনা সংস্থা এসভিএফ।

যার ফলে নতুন ‘ফেলুদা’র পথচলা অনিশ্চয়তার মাঝে পড়ে। কিন্তু বৃহস্পতিবার মিলল সুখবর। ‘বন্ধু’ সন্দীপ রায়ের এহেন সমস্যার খবর শুনে হাত বাড়িয়ে দিলেন ঘোষাল মিডিয়ার অঞ্জন ঘোষাল। ফ্লোরিডার ঘোষাল মিডিয়া ও কলকাতার শ্যাডো ফিল্মসের যৌথ প্রযোজনায় তৈরি হবে ‘হত্যাপুরী’। অন্যতম প্রযোজক অঞ্জন ঘোষাল ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছেন, তাঁর বহুদিনের ইচ্ছা সন্দীপ রায়ের সঙ্গে কাজ করার। কিন্তু বড় প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে চুক্তি থাকায় তা সম্ভব হচ্ছিল না। এবার এসভিএফ নিজে সেই কাজ থেকে সরে দাঁড়ানোয় ঘোষাল মিডিয়ার রাস্তা মসৃণ হল।

‘হত্যাপুরী’কে সিনেমার পর্দায় আনার বহুদিন ধরে ইচ্ছে ছিল পরিচালক সন্দীপ রায়ের। সন্দেশ পত্রিকায় প্রথম প্রকাশিত হয় সত্যজিৎ রায়ের এই গল্প। এই গল্পের প্রেক্ষাপট পুরী। সেখানেই লালমোহন বাবু ও তোপসেকে নিয়ে ঘুরতে যাবেন ফেলুদা। হঠাৎ সমুদ্রের পারে একটি মৃতদেহ ঘিরে রহস্যের জাল। সমাধান হবে ‘ফেলুদা’র হাত ধরে। জানা যাচ্ছে, জুন মাসে কলকাতায় শুরু হবে শুটিং। তারপর শুটিং হবে পুরীতে।


ফেলুদা