কালার ইনসাইড

‘খালি মনে করতাম, আমার বরের আদরের বউ হব’

প্রকাশ: ০৩:২৬ পিএম, ২১ Jun, ২০২২


Thumbnail ‘খালি মনে করতাম, আমার বরের আদরের বউ হব’

সাদিয়া ইসলাম মৌ, বাংলাদেশের মডেলিংয়ের সর্বোচ্চ শিখরে থাকা একমাত্র মডেল কন্যা। বিজ্ঞাপনে মডেল কন্যা হিসেবে মৌর আগে আরও অনেকেরই অভিষেক হয়েছে। আবার মৌকে অনুপ্রেরণা হিসেবে নিয়ে তার পথেই অনেকেই হেঁটেছেন। কিন্তু মৌর জনপ্রিয়তাকে ছাপিয়ে যেতে পারেননি কেউ। বিজ্ঞাপনে মৌ কাজ করেছেন খুব বেছে বেছে। আর সেসব বিজ্ঞাপনে কাজ করেই তিনি হয়ে উঠেন অপ্রতিদ্বন্দ্বী মডেল তারকা।



মৌ নানা সময়ে অভিনয়ও করেছেন। কিন্তু মৌ সব সময় তাকে বিজ্ঞাপনে দেখতেই স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেছেন। দীর্ঘদিনের পথচলায় এখনো বিজ্ঞাপনে কাজ করার ব্যাপারে ভীষণ চুজি। যে কারণে তাকে নিয়ে কাজ করার আগে নির্মাতাদেরও ভাবতে হয়। আজ এই নন্দিত অভিনেত্রীর জন্মদিন। বাংলা ইনসাইডারের পক্ষ থেকে রইলো জন্মদিনের শুভেচ্ছা। 

জান্মদিন নিয়ে মৌ বলেন, সত্যি বলতে কি, এখন আর নিজের জন্মদিনে বিশেষ কিছু করা হয় না। একসময়ে অনেক ঘটা করে জন্মদিন পালন করা হতো। এখন নিজের জন্মদিনের চেয়ে পরিবারের অন্যদের জন্মদিন নিয়েই হৈচৈ বেশি করি। কারণ পরিবারই এখন আমার চাঁদের হাট। তাই জন্মদিনটা স্বামী জাহিদ হাসান, মেয়ে পুষ্পিতা আর ছেলে পূর্ণর সঙ্গেই কেটে যায়।



ছোটবেলায় কী হতে চেয়েছিলেন? প্রশ্নটা শুনে খানিকটা চিন্তা করলেন। এর পর একটানেই গেলেন, তিন বছর বয়সে যখন নাচ শিখেছি, তখন আমার হ্যাঁ-না বলার সুযোগই হয়নি। মডেলিং করেছি বড় দুলাভাইয়ের কারণে। আমার এসবের কোনো কিছুর প্ল্যান না। আমি সব সময় বিয়ে করে বাচ্চা-কাচ্চার মা হয়ে সংসারী হতে চেয়েছি। খালি মনে করতাম, আমার বরের আদরের বউ হব। আমাকে প্রতিদিন সন্ধ্যার পর বাইরে নিয়ে যাবে। কারণ আমার মাকে দেখতাম, আমার মা সব সময় বাবার ভীষণ আদরের ছিল।



মডেলিংয়ের পাশাপাশি নাচ ও অভিনয়- মৌ সব জায়গাতেই জনপ্রিয়। বেশ কিছু নাটক পরিচালনাও করেছেন তিনি। এ ছাড়া সংসার-সন্তানের কাজ তো সামলে যাচ্ছেনই। এত কিছু একসঙ্গে কীভাবে সামলান? মৌ বলেন, ‘এখনো পরিবার সামলানোর দায়িত্ব মূলত মেয়েদের ওপরেই পড়ে। বিয়ের পরেই যদি আমি হুট করে কাজে চলে যাই, তা হলে তো হবে না। বুঝে ওঠার জন্য নিজেকে সময় দিতে হবে। ছেলের পরীক্ষা থাকলে তখন শুটিংয়ের ডেট দিই না। এখন ওরা বড় হয়েছে। তাই এখন আমি কাজে আগের চেয়ে বেশি সময় আর মনোযোগ দিতে পারি। শুক্রবারটা আমার ছেলে ঘুম থেকে উঠে আমাকে দেখতে চায়। এটা আমি এখনো মেইনটেইন করি।’

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের এপ্রিলে আন্তর্জাতিক নৃত্য উৎসবে লন্ডনে দুই দিনব্যাপী উৎসবে পরপর দুদিন দুটি ভিন্ন অনুষ্ঠানে মৌকে সম্মাননায় ভূষিত করা হয়। লিডস সিটি কাউন্সিল এবং বার্কিং অ্যান্ড ডেগেনহাম কাউন্সিল তাকে বিশেষ সম্মাননায় ভূষিত করে। 

সাদিয়া ইসলাম মৌ   জন্মদিন   জাহিদ হাসান  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

হেমন্ত-লতার বিখ্যাত গান নতুন করে গাইলেন বিপ্লব-সুস্মিতা

প্রকাশ: ০৭:৩৮ পিএম, ৩০ Jun, ২০২২


Thumbnail হেমন্ত-লতার বিখ্যাত গান নতুন করে গাইলেন বিপ্লব-সুস্মিতা

উপমহাদেশের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী  হেমন্ত মুখোপাধ্যায় ও লতা মুঙ্গেশকরের শ্রোতাপ্রিয় গান 'দে দোল দোল'। তাদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে গানটি এবার নতুন করে গাইলেন ফ্যাশন ডিজাইনার  বিপ্লব সাহা ও সুস্মিতা সাহা। ঈদ উপলক্ষে গানটি ভিডিওচিত্রসহ প্রকাশিত হবে বলে জানিয়েছেন বিপ্লব সাহা। 

তিনি  বলেন,অনেকদিন পর নতুন করে গানে কণ্ঠ দিলাম। এই গানটি আমার নিজের ভিষণ পছন্দের। আমার মতো কোটি মানুষ এই গানটি পছন্দ করেন। সেই ভালোলাগা ও আবেগ থেকে গানটি কভার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। গানটি আমার সঙ্গে দ্বৈত কণ্ঠ দিয়েছেন  সুস্মিতা সাহা। খুব দারুণ গান গায় ও। আশা করি হেমন্ত-লতা জুটির গানটি আমাদের দুজনের কণ্ঠে উপভোগ করবেন শ্রোতা-দর্শক।

সুস্মিতা সাহা বলেন,বিপ্লব সাহা দাদার সবগুলো কাজ আমি দেখেছি। খুব ভালো কাজ করে দাদা। তার সঙ্গে এই প্রথম আমার কাজ করার সৌভাগ্য হয়েছে। তাই আমার খুব ভালো লাগছে। আশা করছি দর্শক-শ্রোতারা কয়েকদিনে মধ্যে গানটি শোনতে পাবে।

গানটিতে নতুন করে সংগীতায়োজন করেছেন জিয়াউল হাসান পলাশ। স্টুডিও তানপুরাতে এই গানের রেকর্ড সম্পন্ন হয়েছে।

হেমন্ত মুখোপাধ্যায়   লতা মুঙ্গেশকর   বিপ্লব সাহা  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

এবার ভাতিজাকে নিয়ে সাব্বিরের নতুন মিশন

প্রকাশ: ০৪:৫৭ পিএম, ৩০ Jun, ২০২২


Thumbnail এবার ভাতিজাকে নিয়ে সাব্বিরের নতুন মিশন

মডেল-অভিনেতা সাব্বির আহমেদ। ছোটপর্দায় নিয়মিত কাজ করছেন। ঈদুল আজহায় বেশ কিছু নাটকে দেখা যাবে তাকে। সেগুলোরই একটি ‘শিকড়ের টানে’।

ড. পিয়ার মোহাম্মদের রচনা ও পরিচালনায় নাটকটিতে সাব্বিরের বিপরীতে আছেন চিত্রনায়িকা নিঝুম রুবিনা। এ ছাড়াও এই নাটকের মাধ্যমে প্রথমবার অভিনয় করেছেন সাব্বিরের ভাতিজা শিশুশিল্পী শেখ ফজলে তুরজাউন সামি।

এ প্রসঙ্গে সাব্বির আহমেদ বলেন, পারিবারিক গল্পে নাটকটি নির্মিত হয়েছে। প্রথমবার আমার ভাইয়ের ছেলে নাটকে অভিনয় করেছে। সব মিলিয়ে দারুণ অনুভূতি। আশাকরি দর্শকদের নাটকটি ভালো লাগবে।

নাটকটিতে আরো অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু, কাজী রাজু, সাজ্জাদ হোসেন, ফারজানা ছবিসহ আরো অনেকে। বাংলাদেশ টেলিভিশনের জন্য নির্মিত এই নাটকটি শনিবার (৩ জুলাই) রাত ৯ টায় প্রচার হবে বলে জানান সাব্বির। 

মডেল   অভিনেতা   সাব্বির আহমেদ  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

আসছে শুভর ‘ব্ল্যাক ওয়ার’

প্রকাশ: ০৪:৩৩ পিএম, ৩০ Jun, ২০২২


Thumbnail আসছে শুভর ‘ব্ল্যাক ওয়ার’

বহুল প্রতীক্ষিত ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমার দ্বিতীয় পর্ব ‘ব্ল্যাক ওয়ার’ আসছে শিগগির। এরই মধ্যে সিনেমাটির প্রচারণা শুরু হয়েছে। প্রকাশ পেল এর ফার্স্টলুক পোস্টার। বুধবার (২৯ জুন) সন্ধ্যায় প্রকাশিত হয়েছে পোস্টারটি। যেখানে একটি দুর্দান্ত অ্যাকশনের আভাস পাওয়া গেছে। পোস্টারটি দেখে ছবিটি নিয়ে বাড়ছে দর্শকদের আগ্রহ।

পোস্টারে দেখা গেছে অরিফিন শুভ, সাদিয়া নাবিলা ও সুমিত সেনগুপ্তকে। তারা অশুভ শক্তি বিনাশে শত্রুর দিকে তাক করে আছেন বন্দুক! ‘ব্ল্যাক ওয়ার’ অর্থাৎ ‘কালো যুদ্ধ’-নামের সঙ্গে মিল রেখে কালো আবহে পোস্টারটি তৈরি করা হয়েছে। এটি ডিজাইন করেছেন সাজ্জাদুল ইসলাম সায়েম।

চলতি বছর ঈদুল ফিতরে ‘ব্ল্যাক ওয়ার’ মুক্তির কথা ছিল। কিন্তু সার্বিক পরিস্থিতি চিন্তা করে এর মুক্তি পেছানো হয়। তবে এখনো নির্দিষ্ট তারিখ ঘোষণা করা হয়নি।

এ প্রসঙ্গে সিনেমাটির অন্যতম প্রযোজক ও পরিচালক সানী সানোয়ার বলেন, সবকিছু চিন্তা করে গত ঈদে ‘ব্ল্যাক ওয়ার’ মুক্তি দিইনি। তবে এটি চলতি বছরই মুক্তি পাবে। আর ঈদুল আযহার উপহার হিসেবে দর্শকদের জন্য ফার্স্টলুক পোস্টার প্রকাশ করলাম। আশা করছি পুরো সিনেমা দেখার জন্য দর্শকদের বেশিদিন অপেক্ষা করতে হবে না।

‘ব্ল্যাক ওয়ার’-এ প্রথম পর্বের গল্পের সমাপ্তি ঘটবে বলে জানিয়েছেন পরিচালকদ্বয়। ‘মিশন এক্সট্রিম’র দুই পর্বেই কেন্দ্রীয় চরিত্রে রয়েছেন আরিফিন শুভ।

কুল নিবেদিত, মাইম মাল্টিমিডিয়া সহ-প্রযোজিত এবং ঢাকা ডিটেকটিভ ক্লাবের সহযোগিতায় নির্মিত ‘ব্ল্যাক ওয়ার’-এ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন- তাসকিন রহমান, জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী, সাদিয়া নাবিলা, সুমিত সেনগুপ্ত, রাইসুল ইসলাম আসাদ, ফজলুর রহমান বাবু, মিশা সওদাগর, শতাব্দী ওয়াদুদ, মনোজ প্রামাণিক, ইরেশ যাকের, মাজনুন মিজান, সুদীপ বিশ্বাস, সৈয়দ আরেফ, রাশেদ খান অপু, দীপু ইমাম, এহসানুর রহমান, ইমরান শওদাগর প্রমুখ।

এর আগে ২০২১ সালের ৩ ডিসেম্বর মুক্তি পায় ‘মিশন এক্সট্রিম’র প্রথম পর্ব। বাংলাদেশ ছাড়াও বিশ্বের বহু দেশে একযোগে সিনেমাটি মুক্তি দেওয়া হয়।

আরেফিন শুভ   মিশন এক্সট্রিম  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

শোবিজ থেকে বিদায় নিচ্ছেন ‘বাহুবলি’ অভিনেতা

প্রকাশ: ০৪:১১ পিএম, ৩০ Jun, ২০২২


Thumbnail শোবিজ থেকে বিদায় নিচ্ছেন ‘বাহুবলি’ অভিনেতা

ভারতের দক্ষিণী সিনেমার বর্ষীয়ান অভিনেতা নাসের। শোবিজ অঙ্গন থেকে বিদায় নেওয়ার পরিকল্পনা করছেন তিনি। এস এস রাজামৌলি পরিচালিত ‘বাহুবলি’ সিনেমায় বল্লালদেবার বাবার চরিত্রে অভিনয় করে বিশেষ খ্যাতি পেয়েছেন নাসের। শোনা যাচ্ছে, শারীরিক অসুস্থতাজনিত কারণে সিনেমা জগতকে বিদায় জানাতে চাইছেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, হার্টের সমস্যায় ভুগছেন নাসের। করোনা মহামারির সময় তার এই সমস্যা বেড়েছে। এ কারণে তার পক্ষে সিমোয় অভিনয় সম্ভব হচ্ছে না। তাই শোবিজ অঙ্গন থেকে বিদায় নেওয়ার পরিকল্পনা করছেন। এর আগে এক সাক্ষাৎকারে সিনেমা থেকে দূরে থাকার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন এই অভিনেতা।

শোবিজে নাম লেখানোর আগে ভারতীয় বিমান বাহিনীতে চাকরি করেছেন নাসের। পরবর্তী সময়ে অভিনয়ের ব্যাপারে আগ্রহী হন। এরপর সাউথ ইন্ডিয়ান ফিল্ম চেম্বার অব কমার্স ফিল্ম ইনস্টিটিউট এবং তামিল নাড়ু ইনস্টিটিউট অব ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন টেকনোলোজিস থেকে অভিনয়ের প্রশিক্ষণ নেন।

১৯৮৫ সালে কে. বালাচান্দের ‘কল্যাণা আগাথিগাল’ সিনেমার মাধ্যম রুপালি পর্দায় তার অভিষেক হয়। তবে তিনি প্রথম সবার নজরে আসেন মণি রত্নমের ‘নায়াকান’ সিনেমার মাধ্যমে। এতে একজন পুলিশ কর্মকর্তার চরিত্রে অভিনয় করেন। পরে তামিল, তেলেগু, কন্নড়, হিন্দি সিনেমায় অভিনয় করেছেন এই অভিনেতা।

বাহুবলি   অভিনেতা  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

আসছে অটল বিহারী বাজপেয়ীর বায়োপিক

প্রকাশ: ০৩:২৮ পিএম, ৩০ Jun, ২০২২


Thumbnail আসছে অটল বিহারী বাজপেয়ীর বায়োপিক

ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর জীবন নিয়ে তৈরি হচ্ছে বায়োপিক। ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি মোশন পোস্টার শেয়ার হয়েছে এই ছবির।এই ছবিতে উঠে আসবে অটল বিহারী বাজপেয়ীর জীবনের অন্যান্য দিকও। শুধু রাজনীতি নয়, তার কবিতা, লেখা এবং তার মানবিক দিকও উঠে আসবে ছবির গল্পে।

ছবির নাম ‘অটল’। ছবির পোস্টারে শিরোনামের সঙ্গে লেখা রয়েছে ‘ম্যায় রহু, ইয়া না রহু ইয়ে দেশ রহেনা চাহিয়ে’। এনপি মেঞ্চার লেখা বই ‘আনটোল্ড বাজপেয়ী: পলিটিশিয়ান অ্যান্ড প‍্যারাডক্স’ এর থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে তৈরি হতে চলেছে এই ছবি। বিনোদ ভানুশালী এবং সন্দীপ সিং মিলিতভাবে ছবিটির প্রযোজনার দায়িত্বে রয়েছেন। ছবিতে অটল বিহারী বাজপেয়ীর ভূমিকায় কে অভিনয় করবেন এবং কে পরিচালনা করবেন, তা অবশ্য ঠিক হয়নি।

জানা গেছে, ২০২৩ সালে বছরের শুরুর দিকে শুটিং শুরু হবে এই ছবির। ২০২৩-এর বড়দিনে অটল বিহারী বাজপেয়ীর ৯৯তম জন্মবার্ষিকীতে মুক্তি পাওয়ার কথা এই ছবি।

অটল বিহারী বাজপেয়ী   বায়োপিক  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন