কালার ইনসাইড

বিয়ে করলেন সাই পল্লবী!

প্রকাশ: ০৪:৩২ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩


Thumbnail দক্ষিণ ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী সাই পল্লবী

হঠাৎ করেই তুমুল আলোচনায় দক্ষিণ ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী সাই পল্লবী। পরিচালক রাজকুমার পেরিয়াসামির সাথে তার একটি ছবি এখন সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হচ্ছে। ছবিতে দুজনকে গলায় মালা পরিহিত অবস্থায় দেখা যাচ্ছে। অনেক ফ্যান পেজ দাবি করেছে, তারা দুজনে গোপনে বিয়ে করেছেন।

এরপর থেকেই একের পর এক গুঞ্জন শুরু হয়। ভক্ত অনুরাগীরাও হতবাক সাই পল্লবীর গোপনে বিয়ে করার এই সংবাদে। 

তবে ভাইরাল ছবির পেছনের সত্যতা আসলে ভিন্ন। উল্লিখিত ছবিটি রাজকুমার এবং শিবকার্থিকেয়নের ‘এসকে ২১’ সিনেমার পূজার সময় তোলা হয়েছিল বলে জানা গেছে।

ফেসবুক এবং এক্সে (টুইটার) ছবিটি ভাইরাল হবার সাথে জোর গুঞ্জন উঠেছিল যে দুজনে গোপনে বিয়ে করেছেন। তবে এটি কৌশলগতভাবে ক্রপ করা হয়েছিল যাতে লোকেরা বিশ্বাস করে যে তারা সত্যিই বিবাহিত। চলতি বছর ৯মে পরিচালক রাজকুমার সাই পল্লবীকে তার জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানাতে পূজা অনুষ্ঠানের কয়েকটি ছবি শেয়ার করেছিলেন। সেই ছবিগুলো শেয়ার করে তিনি লিখেছেন, “শুভ জন্মদিন প্রিয় সাই পল্লবী। আপনি সেরা এবং ঈশ্বর আপনাকে সবসময়ের মতো সেরা সবকিছু দিয়ে আশীর্বাদ করুন! আপনাকে আমার পাশে পেয়ে আমি ধন্য মনে করি! সেখানে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ!”

সাই পল্লবী সম্প্রতি রাজকুমার পেরিয়াসামি পরিচালিত ‘এসকে ২১’-এর কাশ্মীর শিডিউল গুটিয়ে ফেলেছেন। সিনেমাটিতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন শিবকার্থিকেয়ন। এরপর নাগা চৈতন্যের সঙ্গে জুটি বাঁধতে দেখা যাবে অভিনেত্রীকে।


বিয়ে   সাই পল্লবী   দক্ষিণ ভারত  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

‘এশা মার্ডার: কর্মফল’ সিনেমার শুটিং ৪ ডিসেম্বর থেকে

প্রকাশ: ০৫:৫২ পিএম, ০১ ডিসেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

কিছুদিন আগে অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধনকে নিয়ে নতুন একটি সিনেমা নির্মাণের ঘোষণা দেন ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ও ‘মিশন এক্সট্রিম’ খ্যাত নির্মাতা সানী সানোয়ার। সিনেমাটির নাম ঠিক করা হয় ‘এশা মার্ডার: কর্মফল’ নামে। তবে ঠিক কবে থেকে শুটিং শুরু করবেন সেটা জানাতে পারেননি। তবে এবার জানা গেল শুটিংয়ের তারিখ। প্রযোজনা সূত্রে জানা যায়, আগামী ৪ ডিসেম্বর থেকে ঢাকার বাইরে শুরু হচ্ছে ‘এশা মার্ডার: কর্মফল’ সিনেমার শুটিং।

এতে একজন নারী পুলিশ কর্মকর্তা চরিত্রে দেখা যাবে অভিনেত্রী বাঁধনকে। এছাড়াও সিনেমাটিতে অভিনয় করবেন পূজা ক্রুজ নামে একজন তরুণ মুখ।

জানা যায়, ২০০৯ সাল ঢাকার আজিমপুরে ঘটে যাওয়া একটি খুনের ঘটনা তদন্ত করে সমাধান করেছিলেন নির্মাতা সানী সানোয়ার। কর্মজীবনে বহু খুন তদন্তের মাধ্যমে উদ্ঘাটন করলেও এই ঘটনাটি তাঁকে বিশেষভাবে নাড়া দেয়। ফলে তৈরি করেন সিনেমার চিত্রনাট্য।

সিনেমাটি নিয়ে পরিচালক সানী সানোয়ার বলেন, ‘অ্যাকশন থেকে বের হয়ে এবার খুন রহস্যে ঢুকে গেলাম। ২০০৯ সালে ঘটে যাওয়া এই কেসের তদন্তে আমি নিজে যুক্ত ছিলাম। সেটা নিয়ে সিনেমা বানানোর স্বপ্ন দেখেছিলাম ‘ঢাকা অ্যাটাক’ মুক্তির পরপরই। সেই ২০১৮ সাল থেকে লিখতে লিখতে ২০২৩ সালের শেষে এসে শুটিং শুরু করতে যাচ্ছি।’ 

সিনেমাটির মাধ্যমে প্রথমবার পুলিশ চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন বাঁধন। তিনি বলেন, ‘সিনেমার নাম পড়েই বোঝা যায় এটি একটি খুনের গল্প। তবে এর পরতে পরতে রয়েছে রহস্য। গল্প নিয়ে এর বেশি কিছু বলব না। সিনেমাটির জন্য নিজেকে প্রস্তুত করে এবার শুটিংয়ে নামছি, যাতে নিজের সেরাটা দিতে পারি। তবে আগে শুটিং শেষ করি এর পর মুক্তির আগে বাকি সব অনুভূতি জানাব।’ 

সিনেমাটিতে বাঁধন ও পূজা ক্রুজ ছাড়া আরও অভিনয় করবেন মিশা সওদাগর, শতাব্দী ওয়াদুদ, সুমিত সেনগুপ্ত, রওনক রিপন, ফারুক আহমেদ, শরীফ সিরাজ, নিবিড় আদনান নাহিদ, সৈয়দ এজাজ আহমেদ, মাজনুন মিজান, কাজী আনিসুল হক বরুন, সুষমা সরকার, দীপু ঈমামসহ অনেকেই।


আজমেরী হক বাঁধন   সানী সানোয়ার   পূজা ক্রুজ   ঢাকা অ্যাটাক  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

দুঃখ-কষ্ট হজম করে হাসিমুখে বিনোদন বিলিয়ে বেড়াই: চঞ্চল চৌধুরী

প্রকাশ: ০৫:০২ পিএম, ০১ ডিসেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) মুক্তি পেয়েছে নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ও নুসরাত ইমরোজ তিশার নিজেদের জীবনের গল্পে আবর্তিত সিনেমা ‘সামথিং লাইক অ্যান অটোবায়োগ্রাফি’। মুক্তির দিন সন্ধ্যায় রাজধানীর মহাখালীর স্টার সিনেপ্লেক্সে সিনেমাটির একটি বিশেষ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। এই আয়োজনে হাজির হয়েছিলেন চঞ্চল চৌধুরীসহ নির্মাতা, প্রযোজক, সিনেমার কলাকুশলীরা ও শোবিজের অনেক তারকা।

সিনেমাটির প্রদর্শনী দেখে আবেগপ্রবণ হয়ে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করে অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী বলেন, ‘আমরা যারা পর্দায় কাজ করি, আমাদের গল্পও অনেকের জীবন ছাপিয়ে যেতে পারে। সে গল্পটা সাধারণ মানুষ জানে না। আমাদেরও অনেক কষ্ট, অনেক বেদনা ও দুঃসময় যায় নিজেদের জীবনে। যেটা আমরা নিজেরাই হজম করি। হজম করে আপনাদের সামনে হাসিমুখে বিনোদন বিলিয়ে বেড়াই।’

সামথিং লাইক অ্যান অটোবায়োগ্রাফি নিয়ে চঞ্চল চৌধুরী বলেন, এটা নুসরাত ইমরোজ তিশা ও ফরুকী ভাইয়ের জীবনের গল্প। তবে এটি আমাদের জীবনেরও গল্প। আমরা যারা শোবিজ মাধ্যমে কাজ করি আমাদের জীবনের গল্প অনেক কিছুকে ছাপিয়ে যেতে পারে, যে গল্পটা সাধারণ মানুষ জানে না। এই গল্পটা দেখতে দেখতে বহুবার আমার চোখ ভিজে গেছে। মনে হয়েছে এটা আমার নিজের গল্প। কারণ এটা বিশ্বাসের, সত্য গল্প, যেটি দর্শক দেখতে পারবে। অনেক সময় আমাদের জীবনের অনেক মুহূর্ত দর্শকদের প্রভাবিত করে। ভালো কিছু চিন্তা করার সুযোগ দেয়। সবকিছু মিলিয়ে আমি মনে করি সামথিং লাইক অ্যান অটোবায়োগ্রাফি দর্শকদের কাছে ভালো লাগবে।

সিনেমাটি প্রসঙ্গে ইরেশ যাকের বলেছেন, ‘ফারুকীর সাথে আমার একটা মিল আছে, আমরা দুজনই প্রাপ্তবয়স্ক অবস্থায় বাবা হয়েছি। বাবা-মায়ের দুর্বলতা খুব সুন্দরভাবে এই সিনেমায় তুলে ধরা হয়েছে। জীবনে এত দূর এসে আমিও অনেকটা প্রতিষ্ঠিত, কিন্তু সন্তানের জন্য যে সেক্রিফাইস, যে ভয়, নিজেদের পরিবর্তন করা- এগুলো প্রতিটি মানুষের জীবনের গল্প। আর এখন পর্যন্ত আমার কন্যা আমাকে যতটা সুখ, শান্তি, ভালোবাসা, আনন্দ দেয়। এটার মতো জীবনে আর কিছু খুঁজে পাইনি আমি। তাই সামথিং লাইক অ্যান অটোবায়োগ্রাফিও দর্শকের ভালো লাগবে।’

অভিনেত্রী নাদিয়া আহমেদ বলেন, ‘এটা ভীষণ একটা ইমোশনের গল্প। খুব ভালো লেগেছে। তাদের জীবনের ঘটনা, এতটা সংগ্রাম করতে হয়েছে তাদের। সিনেমাটি দর্শকের ভালো লাগবে।’

সামথিং লাইক অ্যান অটোবায়োগ্রাফি মা হওয়ার পর অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশার প্রথম কাজ। রাইটার হিসেবেও তার প্রথম লেখা গল্প। একইসঙ্গে তার কন্যা ইলহামের প্রথম মিউজিক ভিডিওতে অভিনয়। এছাড়াও সিনেমায় প্রথমবার পরিচালনার পাশাপাশি অভিনয়ও করেছেন ফারুকী। সিনেমায় ফারুকী ও তিশার সঙ্গে আরো অভিনয় করেছেন ইরেশ যাকের, ডলি জহুর, শরাফ আহমেদ জীবনসহ আরো অনেকে।

প্রায় ৮২ মিনিট দৈর্ঘ্যের এই সিনেমা চরকিতে মুক্তি পেয়েছে। চরকির ‘মিনিস্ট্রি অব লাভ’-এর প্রথম সিনেমা এটি।


সামথিং লাইক অ্যান অটোবায়োগ্রাফি   চঞ্চল চৌধুরী   নুসরাত ইমরোজ তিশা   মোস্তফা সরয়ার ফারুকী  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

‘ইয়াং স্টার সিজন-২’ এর চ্যাম্পিয়ন ঢাকার জাহিদ অন্তু

প্রকাশ: ০৩:৫৮ পিএম, ০১ ডিসেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) রাত ৮টায় জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হলো বেসরকারি টিভি চ্যানেল আরটিভির সাড়া জাগানো রিয়েলিটি শো ‘ইয়াং স্টার সিজন-২’র চূড়ান্ত পর্ব। এবারের আসরের চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন ঢাকার জাহিদ অন্তু, রানার্সআপ হয়েছেন অনিক সূত্রধর। ২য় রানার্সআপ হয়েছেন যৌথ ভাবে আদিবা কামাল এবং অঙ্কিতা মল্লিক।

প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন পুরস্কার হিসেবে জাহিদ অন্তু পদক ছাড়াও পেয়েছেন ৩ লাখ টাকা, প্রথম রানারআপ অনিক সূত্রধর পেয়েছেন ২ লাখ টাকা এবং দ্বিতীয় রানার্সআপ আদিবা কামাল ও অঙ্কিতা মল্লিক পেয়েছেন ৫০ হাজার টাকা।

‘ইয়াং স্টার সিজন ২’এ বিচারক হিসেবে ছিলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত সুরকার ও সংগীত পরিচালক ইমন সাহা, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত গীতিকার কবির বকুল এবং সংগীতশিল্পী সানিয়া সুলতানা লিজা। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করছেন ইমতু রাতিশ ও রুহানি সালসাবিল লাবণ্য।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, বাংলা গান নিয়ে আরটিভির এ ধরণের একাধিক প্রতিযোগিতা রয়েছে যেগুলো দেশের পাশাপাশি বিদেশেও বাংলা গানের চর্চাকে প্রাণ দিয়েছে। আমি তাদের এ আয়োজনে অভিভুত। আরটিভিকে আমার আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা।

প্রতিমন্ত্রী সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আশরাফ আলী খান খসরু- বলেন, আয়োজনগুলো তাদের মাঝে নতুন ভাবে জাগরণ সৃষ্টি করেছে এবং ভবিষ্যতেও করবে।

অনুষ্ঠানটি নিয়ে আরটিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক রহমান বলেন, আজ এই গ্র্যান্ড ফিনালে পর্বে যারা প্রতিযোগিতা করছে তাদের সবাই আমাদের কাছে যোগ্য। বাংলাদেশের এতো তরুণ শিল্পীদের প্রতিভা দেখে আমি খুবই আনন্দিত।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদানের পাশাপাশি মনোনীতদের হাতে পদক তুলে দেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, আরটিভির ভাইস চেয়ারম্যান মো. জসিম উদ্দিন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ুন কবির প্রমুখ। সেরা ছয় প্রতিযোগীর সঙ্গে কণ্ঠ মেলান জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ইমরান মাহমুদ ও দিলশাদ নাহার কনা।

পুরো অনুষ্ঠানে স্টাইলিস্ট কোরিওগ্রাফার হিসেবে ছিলেন আসাদ খান। সৈয়দ আশিক রহমানের পরিকল্পনায় দেওয়ান শামসুর রকিবের সার্বিক তত্তাবধানে রিয়েলিটি শো-টি প্রযোজনা করছেন আরজু আহমেদ। ওটিটি পার্টনার হিসেবে ছিল আরটিভিপ্লাস, অনলাইন পার্টনার: আরটিভি অনলাইন, ম্যাগাজিন পার্টনার লুক-এ্যাট-মি। মেকাপ পার্টনার হিসেবে ছিলেন পারসোনা এবং ড্রেস পার্টনা।

প্রসঙ্গত, আরটিভির লোকগানের রিয়েলিটি শো ‘বাংলার গায়েন’ ও ‘বাংলার গায়েন ইউএসএ’এবং তরূণ সংগীত শিল্পীদের অংশগ্রহণে রিয়েলিটি শো ‘ইয়াং স্টার’ ও ‘ইয়াং স্টার ইউএসএ’এর বিপুল জনপ্রিয়তার ধারাবাহিকতায় এবার আয়োজন করা হয় ‘ইয়াং স্টার সিজন-২ ২০২৩’।


ইয়াং স্টার সিজন ২   জাহিদ অন্তু   ইমরান মাহমুদুল  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

বাংলাদেশে আজ মুক্তি পায়নি ‘অ্যানিমেল’! আগামী সপ্তাহে মুক্তির সম্ভাবনা

প্রকাশ: ০২:৩৫ পিএম, ০১ ডিসেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

বলিউড তারকা রণবীর কাপুরের নতুন সিনেমা ‘অ্যানিমেল’। ট্রেলার মুক্তির পর থেকেই সিনেমাটি নিয়ে উত্তেজনা চলছে নেটদুনিয়ায়। দর্শকরা মুখিয়ে রয়েছেন সিনেমাটি দেখার জন্য।  শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) ভারতসহ বিশ্বব্যাপী মুক্তি পেয়েছে বাবা-সন্তানের ভালবাসার মিশেলে নির্মিত আলোচিত এ সিনেমাটি। ভারত ও বিশ্বের সাথে একযোগে বাংলাদেশেও মুক্তির কথা ছিল সিনেমাটির। সেভাবে প্রস্তুতিও নিয়েছিল সিনেমাটির আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান কিবরিয়া ফিল্মস। কিন্তু সেন্সর ছাড়পত্র না পাওয়ায় সিনেমাটি শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশে মুক্তি দিতে পারেনি তারা।

কিবরিয়া ফিল্মসের কর্ণধার কামাল মোহাম্মদ কিবরিয়া লিপু বলেন, ‘আমরা আমদানির অনুমতি পেলেও কাগজপত্র সব গোছাতে পারিনি। সেন্সর ছাড়পত্রও হাতে পাইনি।’ তিনি বলেন, ‘অনেক ইচ্ছা ছিল বলিউডের সঙ্গে একই দিন ছবিটি মুক্তি দেওয়ার। কিন্তু শেষ পর্যন্ত হলো না। দেশের হল মালিকদের পাশাপাশি দশর্কদের মধ্যেও ছবিটি নিয়ে তুমুল আগ্রহ তৈরি হয়েছিল। আমি তাদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। আশা করছি আগামী সপ্তাহে সিনেমাটি মুক্তি দিতে পারব।’

বিষয়টি নিশ্চিত করে চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্য ও প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু বলেন, সিনেমাটি এখনও সেন্সরে জমাই পড়েনি। ছাড়পত্র তো আরও পরের বিষয়। সে সিনেমা কি ভাবে মুক্তি পায়! এরকম তথ্য পেয়ে আমি নিজেই অবাক হয়েছি। তথ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন পেলেও দেশে কোন সিনেমা মুক্তি দিতে হলে তা সেন্সর বোর্ডে প্রদর্শনপূর্বক ছাড়পত্র নিতে হয়।

তিনি আরও বলেন, আমরা এখনও রণবীর কাপুরের ‘অ্যানিমেল’ সিনেমাটি হাতে পাইনি। দেশে তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে অনুমতির পর কাগজপত্রের কিছু বিষয় থাকে। তারা (আমদানিকারক) হয়তো সেগুলো এখনও প্রস্তুত করতে পারেনি। সুতরাং সিনেমাটি দেশে মুক্তি পাচ্ছে না, এটা আপনারা কনফার্ম।

এদিকে মুক্তি উপলক্ষে দেশের কিছু প্রেক্ষাগৃহে ‘অ্যানিমেল’র অগ্রিম টিকিটও বিক্রি শুরু হয়ে গেছে। সেসব টিকিটের তারিখ-প্রদর্শনী আপাতত পিছিয়ে দেওয়া ছাড়া আর কোনো উপায় নেই বলে জানায় হল মালিক সমিতি।

উল্লেখ্য, ‘অ্যানিমেল’ নির্মিত হয়েছে প্রায় ২০০ কোটি রুপি বাজেটে। এতে রণবীর কাপুরের সঙ্গে আছেন রাশমিকা মান্দানা, অনিল কাপুর, ববি দেওল, শক্তি কাপুর, প্রেম চোপড়া, সৌরভ সচদেব প্রমুখ। হিন্দির পাশাপাশি তামিল, তেলুগু, কন্নড় ও মালয়ালাম ভাষায় দেখা যাবে বহুল প্রতিক্ষীত এই সিনেমাটি।


অ্যানিমেল   রণবীর কাপুর   রাশমিকা মান্দানা   ববি দেওল  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

'আগুন' সিনেমার বাকি থাকা শুটিংয়ে ফিরছেন শাকিব খান

প্রকাশ: ০১:২৭ পিএম, ০১ ডিসেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

চার বছর ধরে আটকে থাকার পর নির্মাতা বদিউল আলম খোকনের পরিচালনায় ফের ‘আগুন’ সিনেমার শুটিংয়ে ফিরছেন ঢালিউডের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান। বদিউল আলম খোকন পরিচালিত ও শাকিব খান অভিনীত ‘আগুন’ ‍সিনেমার শুটিং শুরু হয়েছিল ২০১৯ সালের আগস্টে মাসে। সে বছরই শেষ হয়েছিল এর দ্বিতীয় লটের শুটিং। এরপর কয়েক ধাপে শুটিং হলেও পুরোপুরি সম্পন্ন হয়নি সিনেমাটির শুটিং।

জানা যায়, করোনার আগে শুরু হয়ে ৮০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছিল সিনেমাটির। এরপর করোনার কারণে থমকে যায় সিনেমাটির কাজ। মাঝখানে প্রযোজক নিয়ে জটিলতার কথাও শোনা গিয়েছিল।   

গণমাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পরিচালক খোকন। জানান, এরইমধ্যে প্রস্তুতি শুরু করেছেন। সব ঠিক থাকলে ২২ ডিসেম্বর থেকে ছবির বাকি অংশের শুটিং করবেন তিনি।

খোকন বলেন, “সামনের সপ্তাহ থেকে ‘রাজকুমার’ ছবির শুটিং করবেন শাকিব। ২২ ডিসেম্বর থেকে আমার শিডিউল দেবেন। তখন আমি বাকি থাকা দুটি গান ও অন্যান্য দৃশ্যের শুটিং করব। সব ঠিক থাকলে আগামী বছর কোনো উৎসবে ছবিটি মুক্তি দেব।’’

উল্লেখ্য, সিনেমাটিতে শাকিব খানের বিপরীতে জুটি বেঁধেছেন নবাগত নায়িকা জাহারা মিতু। এতে আরও অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর, আলীরাজ, সুচরিতা, সুব্রতসহ অনেকে। কাহিনী ও সংলাপ লিখেছেন কমল সরকার।


শাকিব খান   আগুন  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন