কালার ইনসাইড

আবারও নারীকেন্দ্রীক সিনেমার মুখ্য চরিত্রে বাঁধন

প্রকাশ: ০২:০৮ পিএম, ২১ নভেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

সম্প্রতি নেটফ্লিক্সে মুক্তি পায় বাংলাদেশের রেহানা মরিয়ম নূর খ্যাত অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধনের বলিউডি সিনেমা ‘খুফিয়া’। এতে অভিনয় করে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছেন এ অভিনেত্রী। সেই প্রশংসার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার নতুন সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হলেন অভিনেত্রী বাঁধন। সিনেমাটির নাম ‘এশা মার্ডার’। এতে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করবেন বাঁধন। 

জানা যায়, এ সিনেমাটি নারীকেন্দ্রিক গল্প নিয়ে নির্মিত হবে। বাঁধন ছাড়াও সিনেমাটির আরেকটি কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করবেন লাক্স তারকা পূজা ক্রুজ। সিনেমাটি প্রযোজনা করবে ক্রপ ক্রিয়েশনস। 

প্রযোজনা সংস্থা থেকে জানানো হয়েছে, গল্পটি হত্যা রহস্য ঘরানার। যাতে মুখ্য চরিত্রে থাকছেন বাঁধন। এতে আরও অভিনয় করবেন মিশা সওদাগর, শতাব্দী ওয়াদুদ, সুমিত সেনগুপ্তসহ একঝাঁক তারকা। আপাতত সিনেমাটির নাম বলতে নারাজ প্রযোজনা সংস্থা। আজ রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সিনেমাটির নাম, আনুষ্ঠানিক ঘোষণা ও শিল্পীদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হবে। 

জানা গেছে, সিনেমাটি নিয়ে বাঁধনের সঙ্গে কয়েক দফা আলোচনা হয়। গল্পের প্রয়োজনেই কয়েক সপ্তাহ আগে বাঁধনকে নেওয়া ও চুক্তি স্বাক্ষর করা হয়। এ ব্যাপারে অভিনেত্রী বলেন, ‘সিনেমাটি নিয়ে এখনই আমার তেমন কিছু বলার অনুমতি নেই। সবই আজ সংবাদ সম্মেলন করে প্রযোজনা সংস্থা থেকে জানানো হবে। শুধু বলব, গল্পটি নারীশক্তির কথা বলবে। রয়েছে থ্রিলারের জমজমাট আয়োজন। আশা করি দর্শকরা হতাশ হবেন না।’

উল্লেখ্য, পুলিশি অ্যাকশন থ্রিলার সিনেমা ‘মিশন এক্সট্রিম’ দিয়ে আত্মপ্রকাশ ঘটে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ক্রপ ক্রিয়েশনসের। সিনেমা ব্যবসার মন্দাভাবের মধ্যেই ঝুঁকি নিয়ে সুদিন ফিরিয়ে আনার প্রচেষ্টায় কাজ করার প্রত্যয় নিয়ে যাত্রা করেছিল প্রতিষ্ঠানটি। সেই যাত্রায় এবার নির্মাণ করতে যাচ্ছে নারীকেন্দ্রিক গল্পের সিনেমাটি। এটি নির্মাণ থাকবেন সানী সানোয়ার। যিনি ‘মিশন এক্সটিম’ ও ‘ব্ল্যাক ওয়ার’ নির্মাণ করে পরিচিতি লাভ করেন।

পরিচালক সানী সানোয়ার বললেন, ক্রপ ক্রিয়েশনস থেকে সিনেমাটি নির্মিত হবে। সিনেমাটির শিল্পী ও কলাকুশলী সব নির্বাচন করা শেষ। আজ আনুষ্ঠানিকভাবে সব জানাব। সিনেমাটিতে বাঁধন মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন। আপাতত এটুকুই বলছি। বাকিটা জানাব সংবাদ সম্মেলনে।


রেহানা মরিয়ম নূর   আজমেরী হক বাঁধন   খুফিয়া  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

‘অ্যানিম্যাল’ ভক্তদের অপেক্ষার অবসান, দেশের হলে মুক্তি ৭ ডিসেম্বর

প্রকাশ: ১২:৫৫ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) বাংলাদেশে মুক্তি পেতে যাচ্ছে রণবীর কাপুর অভিনীত বলিউড সিনেমা ‘অ্যানিমেল’। ইতোমধ্যে সিনেমাটি আনকাট সেন্সর পেয়েছে। মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) রাতে এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্টের কর্ণধার ও পরিচালক অনন্য মামুন। 

তিনি জানান, বাংলাদেশে আনকাট সেন্সর পেয়েছে ‘অ্যানিমেল’। এরইমধ্যে বাংলাদেশে মুক্তির জন্য যাবতীয় প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশে সিনেমাটি মুক্তি পাবে। বুধবার থেকেই অনলাইনে টিকেট সংগ্রহ করা যাবে।

এদিকে, মাত্র চার দিনে ভারতীয় বক্স অফিসে ২৪০ কোটি টাকার ব্যবসা করে ফেলেছে রণবীর কাপুর অভিনীত সিনেমাটি। এছাড়াও, বিশ্বব্যাপী প্রায় ৫০০ কোটি রুপি বক্স অফিস কালেকশন করেছে সিনেমাটি। এভাবে এগিয়ে যেতে থাকলে খুব দ্রুতই পৌঁছে যাবে হাজার কোটি আয়ের বলিউড সিনেমার তালিকায়। 

যদিও অ্যানিমেল আরেকটি বড় সিনেমার সঙ্গে বক্স অফিসে মুখোমুখি হয়েছে, তবে বক্স অফিস পুরোটাই নিজের নিয়ন্ত্রণে রেখেছেন রণবীর। ভিকি কৌশল অভিনীত মেঘনা গুলজারের পিরিয়ড ড্রামা ‘শ্যাম বাহাদুর’-এর সঙ্গে মুক্তি পেয়েছে অ্যানিমেল।  

দুই দিনের আয়েই অ্যানিমেল রণবীর কাপুরের ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা হয়ে ওঠার ইঙ্গিত দিচ্ছে। সিনেমাটি মুক্তির আগেই ধারণা করা হচ্ছিল, এটি রণবীরের ক্যারিয়ারসেরা সিনেমা হতে যাচ্ছে। এখন পর্যন্ত রণবীরের সবচেয়ে বড় হিট হলো ‘সঞ্জু’, যেটি ২০১৮ সালে বিশ্বব্যাপী প্রায় ৬০০ কোটি রুপি আয় করেছে। কিন্তু ‘অ্যানিমেল’ তার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় উদ্বোধনী আয়ের রেকর্ড গড়ে নিয়েছে।

পিতা-পুত্রের ভালোবাসা ও দ্বন্দ্বের গল্প নিয়ে ‌‘অ্যানিম্যাল’ সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন সন্দীপ রেড্ডি ভাঙ্গা যিনি এর আগে উপহার দিয়েছেন ‘অর্জুন রেড্ডি’ আর ‘কবীর সিং’এর মত দুটি ব্লকব্লাস্টার সিনেমা। তাই আশা করা হচ্ছে ‘অ্যানিম্যাল’ সেসব রেকর্ড ভেঙে দেবে। তবে দর্শকমহলে দুর্দান্ত সাড়া পেলেও সিনেমাটি অতিরিক্ত ভায়োলেন্স, যৌনতা, সহিংসতার জন্য তীব্র নিন্দার সম্মুখীন হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ‘অ্যানিমেল’ সিনেমাটি নির্মিত হয়েছে প্রায় ২০০ কোটি রুপি বাজেটে। এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন রণবীর কাপুর। তাঁর বাবার ভূমিকায় রয়েছেন অনিল কাপুর। স্ত্রীর ভূমিকায় রাশমিকা মান্দানা। খলনায়ক হিসেবে অভিনয় করেছেন ববি দেওল। গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে রয়েছেন শক্তি কাপুর, তৃপ্তি দিমরি, প্রেম চোপড়া, সৌরভ সচদেব প্রমুখ। । হিন্দির পাশাপাশি তামিল, তেলুগু, কন্নড় ও মালয়ালাম ভাষায় মুক্তি পেয়েছে বহুল প্রতিক্ষীত এই সিনেমাটি।


অ্যানিমেল   রণবীর কাপুর   রাশমিকা মান্দানা   ববি দেওল  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

তাহলে কি ‘জিন্দেগি না মিলেগি দোবারা’র সিক্যুয়েল আসছে?

প্রকাশ: ০৮:০১ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

২০১১ সালের ১৫ জুলাই মুক্তি পেয়েছিল হৃতিক রোশন ও ক্যাটরিনা কাইফ অভিনীত সুপারহিট সিনেমা ‘জিন্দেগি না মিলেগি দোবারা’। সিনেমাটি পরিচালনা করেন জোয়া আখতার। সম্প্রতি তার নির্মিত ‘দ্য আর্চিস’ মুক্তি পাচ্ছে। সেটি মুক্তির আগে ‘জিন্দেগি না মিলেগি দোবারা’ সিনেমার সিক্যুয়েল নিয়ে কথা বলেছেন এ পরিচালক।

জোয়া আখতারকে প্রশ্ন করা হয়েছিল ‘জিন্দেগি না মিলেগি দোবারা’–এর সিক্যুয়েল আসবে কি না? এ প্রশ্নে তিনি ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এএনআইকে বলেন, ‘হ্যাঁ, এই প্রশ্ন সব সময়ই আসে, প্রযোজক থেকে অভিনয়শিল্পী, সিক্যুয়েল নিয়ে সবাই বেশ আগ্রহী।

তাঁর কথায়, ‘এটা আমাদের কাছে সিনেমার চেয়ে বড় কিছু। তাই আমরা যদি দ্বিতীয় পর্বের জন্য সেই উৎসাহের জায়গাটা খুঁজে পাই, তাহলেই আমরা এটি তৈরি করব। শুধু অর্থের জন্য এটা করতে চাই না। দর্শকেরা যখন দ্বিতীয় অংশটি দেখতে আসবেন, তখন তাদের একটি প্রত্যাশা থাকবে এবং আমাদের অবশ্যই তা নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায়, তারা খুশি হবেন না।’

উল্লেখ্য, জোয়া আখতার পরিচালিত ২০১১ সালের সফল ছবি ‘জিন্দেগি না মিলেগি দোবারা’র গল্পটি ছিল তিন বন্ধুর এক রোমাঞ্চকর ভ্রমণকে ঘিরে। সেখানে নিজেরদের নানা সমস্যার সমাধান এবং নিজেদের নতুন ভাবে আবিষ্কার করেন তারা। সিনেমাটিতে হৃতিক ও ক্যাটরিনা ছাড়াও অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন কালকি কেক্লান, ফারহান আখতার, অভয় দেওল প্রমুখ।


জিন্দেগি না মিলেগি দোবারা   হৃতিক রোশন   ক্যাটরিনা কাইফ  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

ট্রাম্পের লুক নকল করলেন সেবাস্টিয়ান স্ট্যান!

প্রকাশ: ০৭:২৯ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

আমেরিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জীবনী নিয়ে নির্মিত হতে যাচ্ছে সিনেমা। তার জনপ্রিয়তা ও ক্ষমতার ঘটনা সম্বলিত এই সিনেমার নাম ‘দ্য অ্যাপ্রেন্টিস’। এতে ট্রাম্পের চরিত্রে অভিনয় করবেন ‘ক্যাপ্টেন আমেরিকা’ খ্যাত অভিনেতা সেবাস্টিয়ান স্ট্যান। শিগগিরই সিনেমাটির নির্মাণকাজ শুরু হতে যাচ্ছে। ‘দ্য অ্যাপ্রেন্টিস’ এর সেট থেকে অভিনেতা সেবাস্টিয়ান স্ট্যানের একটি ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে। যা বেশ সাড়া ফেলেছে অনুরাগীদের মাঝে।

ছবিতে স্ট্যানকে ডোনাল্ড ট্রাম্পের যৌবনকালের লুকে দেখা যাচ্ছে। যেখানে কালো স্যুট পরে বার্গার খেতে দেখা যাচ্ছে ট্রাম্প ওরফে স্ট্যানকে। তীক্ষ্ণ চোখে যেন জমে আছে অনেক প্রশ্ন! ছবিটি বিনোদন মাধ্যম পেজ সিক্স থেকে প্রকাশ করা হয়েছে। ট্রাম্পের ভূমিকায় অভিনয়ের জন্য ইতিমধ্যে আলোচনায় উঠে এসেছেন স্ট্যান।

তবে এই প্রথমবার তিনি বাস্তব জীবনের ব্যক্তিত্বের চরিত্রে অভিনয় করেছেন এমন নয়, এর আগে তিনি আমেরিকান মিউজিশিয়ান টমি লির চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। ‘পাম এবং টমি’ নামক সিরিজটি একটি মিনি সিরিজ, যেটি পামেলা অ্যান্ডারসন ও টমি লির কুখ্যাত সেক্স টেপকে ঘিরে তৈরি হয়েছিল। ১৯৯৫ সালে দুজনের বিয়ের পর হানিমুনে কাটানো সময়কালের সেই সেক্স টেপ চুরি হয়ে যায় এবং পরবর্তী সময়ে ইন্টারনেটে ফাঁস হয়ে যায়, যা বেশ আলোড়ন তৈরি করেছিল।

চলচ্চিত্রটি নিউ ইয়র্কের একজন রিয়েল এস্টেট মোগল হিসেবে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টের প্রারম্ভিক বছরগুলো এবং রয় কোহনের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ককে অন্বেষণ করবে। রয় কোহন সেই কুখ্যাত আইনজীবী, যিনি তাঁকে পরামর্শ দিয়েছিলেন এবং পরে অনৈতিক আচরণের জন্য তাঁকে বরখাস্ত করা হয়েছিল।

‘দ্য অ্যাপ্রেন্টিস’ ২০ শতকের সত্তর ও আশির দশকে সেট করা হয়েছে, যেখানে দেখানো হবে কিভাবে ট্রাম্প কোহনের কাছ থেকে ডিল মেকিং এবং ম্যানিপুলেশনের শিল্প শিখেছিলেন। ম্যাককার্থি যুগ এবং এইডস সংকটের সময়কালে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব ছিলেন কোহন। কোহন বেশ কয়েকটি মামলায় ট্রাম্পের আইনজীবীও ছিলেন এবং ট্রাম্পকে তাঁর রাজনৈতিক উচ্চাকাঙ্ক্ষার বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছিলেন।

মার্কিন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্প, যিনি দুবার অভিশংসিত হয়েছিলেন এবং চারটি ভিন্ন ফৌজদারি মামলায় ৯১টি অপরাধমূলক অভিযোগের মুখোমুখি হয়েছেন। বর্তমান জরিপ অনুসারে, ২০২৪ সালে আবার রাষ্ট্রপতি পদে লড়বেন বলে আশা করা হচ্ছে। তিনি ম্যানহাটনে একটি হাই প্রোফাইল জালিয়াতির বিচারেও জড়িত। চলচ্চিত্রটি তাঁর বিতর্কিত ব্যক্তিত্ব এবং উত্তরাধিকারের উৎস সম্পর্কে আলোকপাত করবে। আগামী বছর মুক্তি পাবে এটি।

‘দ্য অ্যাপ্রেন্টিস’ সিনেমায় ট্রাম্পের যৌবনকালের চরিত্রে অভিনয় করছেন সেবাস্টিয়ান স্ট্যান। ট্রাম্পের জীবনে অন্যতম ব্যক্তি আইনজীবী কোহনের চরিত্রে অভিনয় করবেন এমি বিজয়ী জেরেমি। ট্রাম্পের প্রথম স্ত্রী ইভানার ভূমিকায় অভিনয় করবেন অস্কার মনোনীত মারিয়া বাকালোভা। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন ইরানি চলচ্চিত্র নির্মাতা আলী আব্বাসি, যিনি সম্প্রতি ২০২২ সালের থ্রিলার ‘হলি স্পাইডার’-এর জন্য অস্কার মনোনয়ন পেয়েছেন। চিত্রনাট্যটি লিখেছেন সাংবাদিক এবং লেখক গ্যাব্রিয়েল শেরম্যান, যিনি ‘দ্য লাউডেস্ট ভয়েস ইন দ্য রুম’ লিখেছেন। 


ডোনাল্ট ট্রাম্প   সেবাস্টিয়ান স্ট্যান   মারিয়া বাকালোভা  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

এবার মায়ের চরিত্রে মেহজাবীন!

প্রকাশ: ০৬:১১ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

ব্যতিক্রমী সব চরিত্রে অভিনয় করে ইতোমধ্যেই নিজের অভিনয়গুণের জানান দিয়েছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী মেহজাবীন চৌধুরী। তেমনি একটি ব্যতিক্রমী চরিত্রের প্রয়োজনে এবার এই অভিনেত্রীকে দেখা যাবে মায়ের ভূমিকায়। নির্মাতা মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের পরিচালনায় ‘অনন্যা’ শিরোনামের একটি নাটকে মায়ের চরিত্রে দেখা যাবে তাকে।

নাটকটিতে শিশুসন্তানকে নিয়ে একজন নারীর সংগ্রামের গল্প তুলে ধরা হয়েছে। সম্প্রতি রাজধানীর বিভিন্ন মনোরম স্থানে ‘অনন্যা’ নাটকটির দৃশ্যধারনের কাজ শেষ হয়েছে।

কাজটি প্রসঙ্গে মেহজাবীন চৌধুরী বলেন, ‘ইদানীং নাটকে খুব একটা কাজ করছি না। দারুণ একটি গল্প ও চরিত্র পাওয়ায় অনেকদিন পর ক্যামেরার সামনে ফিরলাম। আর যেসব নির্মাতার ওপর আমার আস্থা আছে তাদেরই একজন মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ। দর্শকদের যদি আমাদের নতুন কাজটি ভালো লাগে তাহলেই এ পরিশ্রম সার্থক হবে।’

নির্মাতা মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের পরিচালনায় সর্বশেষ ২০২২ সালে ‘কাজল’ নাটকে একসঙ্গে কাজ করেন তারা। নতুন এই নাটক প্রসঙ্গে রাজ বলেন, ‘এটি একটি নারীকেন্দ্রিক গল্প। সংগ্রাম করে টিকে থাকার ক্ষেত্রে মেয়েদের অনুপ্রেরণা জোগাতে পারে এই নাটক। মেহজাবীন হৃদয় দিয়ে কাজটি করেছেন বলতে পারি।’

প্রসঙ্গত, ২০২৩ সালে ‘অনন্যা’ই হবে মেহজাবীন চৌধুরীর পঞ্চম ও শেষ কাজ। চলতি বছরের প্রথম দিন ভিকি জাহেদের ‘কাজলের দিনরাত্রি’ টেলিফিল্মে কাজল চরিত্রে অনবদ্য অভিনয় করেন। মানসিক প্রতিবন্ধীর ভূমিকায় মেহজাবীনের অভিনয় মুগ্ধ করেছে দর্শকদের। দেশের ওটিটি প্ল্যাটফর্ম আইস্ক্রিনে গত ১৬ নভেম্বর মুক্তি পেয়েছে এ অভিনেত্রীর নতুন ওয়েব ফিল্ম ‘নীল জলের কাব্য’। শিহাব শাহীনের পরিচালনায় এতে আরও অভিনয় করেছেন আফরান নিশো।

উল্লেখ্য, ‘অনন্যা’ নাটকটিতে মেহজাবীনের প্রধান দুই সহশিল্পী শাশ্বত দত্ত ও ডলি জহুর। নাটকটির চিত্রনাট্য লিখেছেন জাহান সুলতানা। তার সঙ্গে মিলে এটি রচনা করেছেন জাকারিয়া নেওয়াজ। চিত্রগ্রহণে ছিলেন রাজু রাজ। ‘অনন্যা’ নাটকটির জন্য তৈরি হয়েছে একটি বিশেষ গানও। নাভেদ পারভেজের সুরে গানটি গেয়েছেন পল্লবী রায়। আগামী ১৬ ডিসেম্বর সিনেমাওয়ালা’র ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পাবে  ‘অনন্যা’।


মেহজাবীন   অনন্যা   মোস্তফা কামাল রাজ  


মন্তব্য করুন


কালার ইনসাইড

বন্ধু দীপুর মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছেন শাকিব খান

প্রকাশ: ০৫:০৪ পিএম, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২৩


Thumbnail

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাবেক মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার বড় ছেলে সাজেদুল হোসেন চৌধুরী (দীপু) ছিলেন বাংলা চলচ্চিত্রাভিনেতা শাকিব খানের বন্ধু। গত শনিবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। বন্ধুর এই অকাল মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছেন এই নায়ক।

মঙ্গলবার ( ডিসেম্বর) দীপুর সঙ্গে কাটানো মূহুর্তগুলোর স্মৃতিচারণ করে ফেসবুকে দীর্ঘ এক স্ট্যাটাস দিয়েছেন শাকিব খান। দীপুর একটি ছবি পোস্ট করে শাকিব লিখেন, এইতো কিছুদিন আগে তোর অফিসে নিয়ে গেলি, তোর সন্তানের এনিমেটেড সিনেমার কাজ দেখালি, আগামীতে কত কি করতে চাস সেইসব স্বপ্নের কথাগুলো বললি। সেই তুই হঠাৎ করে সবাইকে চিরদিনের জন্য ছেড়ে চলে গেলি! তুই নেই সেটা মানতে এখনো আমার কষ্ট হচ্ছে।

আমি যেখানে থাকতাম কিছুদিন পর পর ফোন করে খবর নিতি। কেমন আছি, কবে আসব, কবে দেখা হবে, কত কিছু জানতে চাইতি। সেই তোকে যখন মর্গে গিয়ে দেখছিলাম, মনে হচ্ছিল একটু পরেই উঠে দোস্ত বলে ডাক দিবি। যেমনটা দেখা হলেই তোর বন্ধুত্ব আর ভ্রাতৃত্বের পরম ভালোবাসা আমি অনুভব করতাম। যে বনানীর রাস্তা দিয়ে আমরা বহুবার একসঙ্গে যাতায়াত করেছি, সেখানে তোকে চিরদিনের জন্য সমাহিত করা হয়েছে। দূর থেকে শুধু তোর নিথর দেহকে দেখেছিলাম। তোর চলে যাওয়ায় আমি যে স্বজন হারানোর শূন্যতা অনুভব করছি সেটা বলে বোঝানোর উপায় নেই।

বন্ধু হিসেবে তোর ভালোবাসার শূন্যতা আমার জীবনে কখনো পূরণ হবে না। কারণ তুই যে কত বড় মনের অধিকারী এবং ভালো মানুষ ছিলি সেটা তোর শেষ বিদায়ে মানুষের ঢলই বলে দেয়। যতদিন বেঁচে থাকব তোকে খুব মিস করব রে দীপু। ওপারে অনেক ভালো থাকিস বন্ধু আমার। তোর বিদেহী আত্মার শান্তি দোয়া কামনা করি। মহান আল্লাহ তোকে জান্নাতবাসী করুন।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি হন সাজেদুল হোসেন চৌধুরী (দীপু) দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার জন্য গত ১৯ নভেম্বর আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছিলেন তিনি। যদিও আওয়ামী লীগ থেকে দীপু মনোনয়ন পাননি। তার বাবা মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া মনোনয়ন পেয়েছেন।


শাকিব খান   সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দীপু  


মন্তব্য করুন


বিজ্ঞাপন