ঢাকা, রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

একটি অতি প্রয়োজনীয় ঈদের বাজার!

মো. মাহমুদুল হাসান
প্রকাশিত: ১৩ মে ২০২১ বৃহস্পতিবার, ০১:০৪ পিএম
একটি অতি প্রয়োজনীয় ঈদের বাজার!

জীবনের মূল্য দিতে গিয়ে সব সময় সময়ের সঙ্গেই তুলনা করা হয়ে থাকে। বলা হয় সময়ের চেয়ে জীবনের মূল্য অনেক বেশি। কিন্তু এখন সেই জীবনের থেকেও মূল্যবান একটা কিছুর সন্ধান পেয়েছে বাংলাদেশের ঈদ উদযাপনকারী জাতি। এখন জীবনের চেয়ে ঈদ শপিং আরও বেশি দামি। তাদের মতে, ঈদে যদি নতুন কাপড় না পড়া হয়, তাহলে কেমন দেখায়। সেই জন্যই তারা ঢাল তলোয়ার ছাড়াই মাঠে নেমেছে। এটা যুদ্ধের মাঠ না হলেও তার থেকে কম কিছু নয়। এক রকম যুদ্ধই বলা যায়। এটি হলো অতি প্রয়োজনীয় ঈদ শপিং এর যুদ্ধ।

এই করোনাকালে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক হলেও আমাদের ঈদ উদযাপনকারী জাতি সেটার কোনো তোয়াক্কা করছে না। তারা মনে হয় মনে করছে, করোনা তাদের প্রয়োজনীয় ঈদ শপিং দেখে ছাড় দেবে। করোনা হয়ত ভাবতে পারে, এরা এতো প্রয়োজনীয় কাজ করছে, সেখানে আমার না যাওয়াই ভালো। আসলে করোনা ভাইরাসও দ্বিধায় পড়ে গেছে যে, এ কোন জাতির কাছে সে এসেছে। যাদের মধ্যে নূন্যতম জ্ঞানটুকুও কাজ করে না। 

আমাদের এই জাতি বীরের জাতি। ১৯৫২ সালে ভাষা আন্দোলন করেছে। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ করেছে। আর এখন তারা করোনা যুদ্ধ করছে। আগে দুটো আন্দোলনে জেতার বড় বাসনা থাকলেও এবার তাদের মধ্যে সেই বাসনা কেমন যেনো কাজই করছে না। বাজার ঘাটে মানুষ যাচ্ছে মাস্কটাকে গলায় ঝুলিয়ে। কেউ আবার কানে। কেউবা হাতে। আর কারোর তো মাস্কই নেই। এই দেখে একটা গল্প মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছে।

মার্কেটে সাংবাদিক এক ব্যক্তিকে প্রশ্ন করলো আপনার মাস্ক নেই কেন? ওই ব্যক্তি সাংবাদিককে বলল, আরে ভাই মাস্ক পরে কি হবে। সবাই তো মাস্ক পড়েই আছে। আমি না পড়লে কি আর হবে। আর আমি পান খাই। পান খাওয়াদের করোনা হয় না। সাংবাদিক অবাক।

আরেক জনকে প্রশ্ন করলো আপনার মাস্ক নেই কেনো ? সে বলল, আমি আসলে মার্কেটে দেখতে এসেছিলাম ভির কেমন। ভির বেশি থাকলে চলে যেতাম। আজ একটু ভির কম। আর আমি মার্কেটে আসছি আসলে একটা প্রয়োজনীয় কাজেই। একটা মাস্ক কিনতে। ঈদে নতুন মাস্ক পড়বো না?

এই ভাবেই আমাদের বীরের জাতি তাদের ঈদের বাজার করে যাচ্চে অবলীলায়। করোনা তাদের বন্ধু হয়ে গেছে। এমনই বন্ধু যে তাদেরকে স্পর্শও করছে না। তারা এটা বুঝতেই পারছে না যে, অনেক প্রাণের বন্ধুও কিছু কিছু সময় বিশ্বাসঘাতকতা করে। পেছন থেকে ছোবল মারে। তাদের এই করোনা বন্ধুও কি তাদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করে কিনা সেটা দেখার বিষয়। 

 

বিষয়: ঈদ , বাজার