ঢাকা, শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮ , ৩ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

শুভ জন্মদিন আন্তেনিও বান্দেরাস

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০ আগস্ট ২০১৮ শুক্রবার, ০১:৩৬ পিএম
শুভ জন্মদিন আন্তেনিও বান্দেরাস

একজন অভিনেতা হিসেবেই দর্শকদের কাছে পরিচিত আন্তেনিও বান্দেরাস। তবে অভিনয় ছাড়াও তিনি সংগীত, ফুটবল, চলচ্চিত্র পরিচালনা ও প্রযোজনায় পারদর্শী। বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী এই অভিনেতার আজ ৫৭ তম জন্মদিন। ১৯৬০ সালের ১০ আগস্ট স্পেনের মালাগায় জন্মগ্রহণ করেন আন্তেনিও বান্দেরাস।

অভিনেতা আন্তেনিও বান্দেরাসের পুরো নাম হোসে আন্তেনিও দমিনগেস বান্দেরাস। ফুটবলের শহর মালাগায় জন্ম নেয়া আন্তেনিওর ছিল ফুটবল খেলোয়াড় হওয়ার শখ। স্প্যানিশ ক্লাব রিয়েল মাদ্রিদের একজন একনিষ্ঠ ভক্ত। কিন্তু ১৪ বছর বয়সে পায়ের গোড়ালি ভাঙার সঙ্গে ভেঙে যায় তাঁর ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন।

স্পেনেই কেটেছে আন্তেনিওর শৈশব-কৈশোর। লেখাপড়া করেছেন ড্রামাটিক আর্টে। সেখান থেকেই তাঁর অভিনয়ের হাতেখড়ি। ১৯৮২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘ল্যাবরিন্থ অব প্যাশন’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে প্রবেশ করেন আন্তেনিও বান্দেরাস। এরপর তিনি বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করলেও আলো ছড়াতে পারেননি। ‘টাই মি আপ!টাই মি ডাউন’ ছবিতে একজন মানসিক রোগীর ভূমিকায় অভিনয় করে তিনি প্রথম আলোচনায় আসেন। ছবিতে তাঁর অভিনয় বেশ প্রশংসিত হয়।

মার্কিন সিনেমায় আন্তেনিও বান্দেরাসের যাত্রা শুরু ১৯৯২ সালে ‘দ্য মাম্বো কিং’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে। ইংরেজি ভাষায় অদক্ষতা থাকা সত্ত্বেও ছবিতে আন্তেনিওর সংলাপ বলার ধরন ও অভিনয় সমালোচকদের ব্যাপক প্রশংসা কুড়ায়।

আন্তেনিও বান্দেরাস আন্তর্জাতিক খ্যাতি পান ১৯৯৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘ফিলাডেলফিয়া’ ছবিতে। সেখানে একজন এইডস রগে আক্রান্ত সমকামী আইনজীবীর চরিত্রে তাঁর অভিনয় ব্যাপক প্রশংসিত হয়। সারা বিশ্বের চলচ্চিত্রপ্রেমীদের কাছে তাঁর গ্রহণযোগ্যতা বাড়ে। এরপর ‘ইন্টারভিউ উইথ দ্য ভ্যাম্পায়ার’, ‘দেস্পারেদো’, ‘অ্যাসাসিনস’, ‘দ্য মাস্ক অব জরো’, ‘স্পাই কিডস’, ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন মেক্সিকো’, ‘টেক দ্য লিড’ এবং ‘দ্য এক্সপান্ডেবলস থ্রি’ এর মতো ছবি উপহার দিয়ে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে যান আন্তেনিও বান্দেরাস। ২০০৮ সালে অভিনয়ে অসামান্য অবদানের জন্য তাঁকে সান সেবাস্টিয়ান ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে আজীবন সম্মাননা দেয়া হয়।

ব্যক্তিগত জীবনে দু’বার বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটেছে আন্তেনিও বান্দেরাসের। প্রথম স্ত্রী আনা লেজার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ১৯৯৬ সালে মার্কিন অভিনেত্রী মেলানি গ্রীফিথকে বিয়ে করেন। দীর্ঘদিন একসঙ্গে থাকার পর ২০১৪ সালে তাঁদের বিচ্ছেদ ঘটে। আন্তেনিওর বর্তমান সঙ্গী ডাচ ব্যাংক কর্মকর্তা নিকোল কিম্পেল।

সূত্রঃ উইকি ও ডেইলি মেইল

বাংলা ইনসাইডার/ এইচপি