ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৮, ৪ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

ছবির নাম বদলেও স্বস্তিতে নেই সালমান

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০৪:১০ পিএম
ছবির নাম বদলেও স্বস্তিতে নেই সালমান

কথায় বলে, নামে কি আসে যায়;কাজেই আসল পরিচয়। কিন্তু ভারতের ‘কর্নি সেনা’ নামে একটি উগ্রবাদী হিন্দুগোষ্ঠীর কাছে কাজ নয়, আপাতত নামের মহাত্তই অনেকে। সুপারস্টার সালমান খানের প্রযোজিত ছবি ‘লাভরাত্রি’র নাম পরিবর্তনের জন্য অনেকদিন ধরেই আন্দোলন করে আসছিল সংগঠনটি। মামলাও হয়েছে। তাঁদের আপত্তিতে বদলেও দেওয়া হলো ছবির নাম। কিন্তু তাতেও ক্ষান্ত হচ্ছে না উগ্রবাদী সংগঠনটি।

১৮ সেপ্টেম্বর রাতে ‘লাভরাত্রি’ ছবির নাম পরিবর্তীত হয়ে ‘লাভযাত্রি’ হচ্ছে বলে ঘোষণা দিয়েছেন সালমান খান। কিন্তু এতেও উগ্রবাদী সংগঠনটিকে সন্তুষ্ট করতে পারেননি ভাইজান।

সংগঠনটির দাবী, নাম নয় ছবির কিছু দৃশ্যও বদলাতে হবে। ছবির নাম অনেক হিন্দুর মনে আঘাত হানতে পারে। ছবির বিষয় ও সংলাপ এখনও একই রয়েছে, যা যে কোনও হিন্দু ধর্মাবলম্বী মানুষের কাছে অপমানজনক। ইতিমধ্যে সংগঠনটি নাম গ্রহণ না করার বিপক্ষে গুজরাটের উচ্চ আদালতে আবেদন করেছেন। তাঁদের অভিযোগ, ছবির নতুন নামটি হিন্দু ধর্মের উৎসব নবরাত্রির মতোই শোনাচ্ছে। আবেদনকারীদের আইনজীবী আদলতে ছবির ট্যাগ লাইনও পেশ করেন, ‘আ জার্নি অব লাভ’, যা ছবির পোস্টার ও প্রমোশনে রয়েছে।

এদিকে সালমানের আইনজীবী এই দাবীকে ভিত্তিহীন আখ্যা দিয়ে বলেন, ছবিটি এখনও সেন্সর বোর্ড পর্যন্ত যায়নি। জবাবে ডিভিশন বেঞ্চের প্রধান বিচারপতি বলেন, সেন্সর বোর্ডের সার্টিফিকেশন ছাড়া কিভাবে ছবির প্রোমো রিলিজ হয়? প্রয়োজন পড়লে বেঞ্চকে ছবিটি দেখতে হতে পারে বলেও জানান বিচারপতি।

উল্লেখ্য, ‘লাভরাত্রি’ ছবির মধ্য দিয়ে বলিউডে অভিষেক হচ্ছে সালমানের ভগ্নীপতি আয়ূশ শর্মার। তাঁর বিপরীতে নায়িকা হিসেবে দেখা যাবে অভিনেত্রী ওয়ারিনা হোসেনকে। হিন্দুদের নয় দিন ব্যাপী উৎসব ‘নবরাত্রি’ নিয়ে ছবির গল্প। আর জনপ্রিয় এই উৎসবের সঙ্গে ছবির নাম কিছুটা মিলে যাওয়ায় উগ্রবাদী সংগঠনের আপত্তি। এছাড়া তাঁরা মনে করেন আপত্তিকর কিছু সংলাপও রয়েছে, যা হিন্দুদের মনে আঘাত করতে পারে। চলতি বছরের ৫ অক্টোবর ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

সূত্রঃ দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

ইনিশিয়ালঃ বাংলা ইনসাইডার/ এইচপি