ঢাকা, বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
Bangla Insider

দারুণ জমেছে ‘ঢাকা লিট ফেস্ট’

বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯ নভেম্বর ২০১৮ শুক্রবার, ০৫:১৬ পিএম
দারুণ জমেছে ‘ঢাকা লিট ফেস্ট’

৮ নভেম্বর থেকে বাংলা একাডেমিতে বসেছে সাহিত্যের অন্যতম আন্তর্জাতিক আসর ‘ঢাকা লিট ফেস্ট’। ৩ দিনের এই উৎসবের অন্যতম চমক হয়ে থাকছেন বলিউডের মনীষা কৈরালা ও নন্দিতা দাস।

এতে অংশ নিয়েছেন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনের সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বরা। সাহিত্য আলাপের সূত্র ধরে থাকছে বেশ কিছু সাংস্কৃতিক আয়োজন।

উৎসবের উদ্বোধন হল কত্থক নৃত্য ‍দিয়ে। প্রথম দিনই (৮ নভেম্বর) কথা বললেন নন্দিতা দাস। একাডেমির মিলনায়তনে বিকাল সোয়া ৪টায় দেখানো হল তার নির্মিত চলচ্চিত্র ‘মান্টো’। ছবিটি দেখতে এদিন পুরো বাংলা একাডেমিতো ছিলো উপচে পড়া ভিড়!

সিনেমা শুরু হওয়ার কথা সোয়া চারটায়, অথচ দীর্ঘ লাইন তৈরি হয়ে আছে দুপুর আড়াইটা থেকে। সাড়ে তিনটা নাগাদ গেট খুলে দেয়া হয়। মুহূর্তেই কানায় কানায় পূর্ণতা পায় বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনটি। নির্ধারিত আসন পূর্ণ হলে অনেককে এসময় মেঝেতে বসে ‘মান্টো’ দেখার জন্য প্রস্তুতি নিতে দেখা যায়। প্রচুর মানুষ মিলনায়তনে প্রবেশ করতে না পেরে সিনেমা না দেখেই ফিরে গেছেন। সিনেমা দেখতে এমন পরিস্থিতি কি দেখেছে ‘ঢাকা লিটফেস্ট’-এর কোনো আসর?

নির্ধারিত সময়ের একটু পরেই ‘মান্টো’ প্রদর্শনী শুরু হয়। কিন্তু তার আগে মাইক্রোফোন হাতে মঞ্চে আসেন নন্দিতা দাস। তুমুল কড়তালিতে তাকে স্বাগত জানায় ঢাকার দর্শক। পরিষ্কার বাংলায় তিনি বলেন, আমার নামের জন্য সবাই আমাকে বাঙালি মনে করে। কিন্তু আমি বাঙালি নই তবে অল্প অল্প বাংলা বলতে পারি। ‘মান্টো’ দেখতে এতো মানুষের ভিড় দেখে মুগ্ধতা প্রকাশ করেন এবং ঢাকার দর্শকদের সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, ‘মান্টো’ দেখার পর আপনাদের মতামত শুনতে অপেক্ষা করছি! এরপর ডিরেক্টর’স কাট পর্বে কথা বলবেন এই নন্দিত অভিনেত্রী-পরিচালক।

ওদিন দুপুরে আরও একটি আলোচনায় অংশ নেন ‘রিকশাগার্ল’ উপন্যাসের লেখিকা মিতালি বোস পারকিনস। এ উপন্যাসের গল্প নিয়েই বাংলাদেশের অমিতাভ রেজা চৌধুরী নির্মাণ করছেন স্বনামের ছবি।

দ্বিতীয় দিন (৯ নভেম্বর) একই মঞ্চে বসলেন মনীষা কৈরালা ও নন্দিতা দাস। উৎসবে সাংবাদিকদের মনীষা নিজের জীবনের গল্প বললেন। তার অভিনয় জার্নি ছাড়াও এই গল্পে তিনি তুলে ধরলেন ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে বেঁচে থাকার এক মানবিক গল্প। সেলুলয়েড পর্দার বাইরে স্বপ্রতিভ তিনি। আনফেপা গুডউইলের শুছেচ্ছাদূত এবং সামাজিক কর্মী হিসেবে বিশেষভাবে সুপরিচিত তিনি।

সম্প্রতি মনীষা কৈরালা এ সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে তার জীবনের প্রথম গ্রন্থ ‘দ্য বুক অব আনটোল্ড স্টোরিজ’ প্রকাশের ঘোষণা দিয়েছেন। ঢাকা লিট ফেস্টের এই সেশনে তিনি তার বই নিয়েও বিশদ কথা বলেছেন।

এছাড়া দ্বিতীয় দিন সকাল ৯টায় ‘মঞ্চনাটক, টিভি নাটক ও চিত্রনাট্য’ শিরোনামের প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন নির্মাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরী, লেখক-সাংবাদিক মাহবুব আজীজ, মঞ্চ অভিনেতা রুবাইয়াৎ আহমেদ এবং কবি-সাংবাদিক আলতাফ শাহনেওয়াজ।

আর নজরুল মঞ্চে বেশ কিছু শিশুতোষ আয়োজন ও গানের অনুষ্ঠানও ছিল উল্লেখ করার মত।

সমাপনী দিন সন্ধ্যা ৬টায় নজরুল মঞ্চে থাকছে গানের আসর।



বাংলা ইনসাইডার/এমআরএইচ